দক্ষিণ এশিয়া

ভারতের প্রধানমন্ত্রী হলে কী করতেন রাহুল গান্ধী?

ময়ুখ বসু

নয়াদিল্লী, ০৩ এপ্রিল – যদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী থাকতেন রাহুল গান্ধী। তাহলে বর্তমান সময়ে কি করতেন তিনি? এক আলোচনা সভায় প্রকাশ্যে তার মত ব্যক্ত করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। যেখানে তিনি তার পরিকল্পনার পাশাপাশি বর্তমান সরকার কি ভুল করে চলেছে তা নিয়েও খোলামেলা মত জানিয়েছেন।

হাভার্ড কেনেডি স্কুলের অধ্যাপক নিকোলাস বার্নসের সঙ্গে এক অনলাইন আলোচনায় রাহুল গান্ধী বলেন, আমাদের দেশের বিকাশ প্রয়োজন একথা সত্যি। তবে আমি বিকাশ কেন্দ্রিক অর্থনীতির থেকেও চাকরি কেন্দ্রিক অর্থনীতির দিকে বেশি নজর দিতাম। দেশের প্রকৃত বিকাশের জন্য চাকরি তৈরি করা এবং উৎপাদন বাড়ানো বেশি প্রয়োজন বলে আমি মনে করি। তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে আমাদের দেশের বিকাশ ও চাকরির বাজারের দিকে লক্ষ্য করলে বোঝা যাবে দুটোর মধ্যে কোনও সম্পর্ক নেই।

আসলে মাত্র ৯ শতাংশ আর্থিক বিকাশ নিয়ে আমি কিছুই করতে পারব না, যদি না আমি চাকির বাজার তৈরি করতে পারি। পাশাপাশি রাহুল বর্তমান ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে বলেন, ভারতের গণতান্ত্রিক কাঠামো বর্তমান সরকারের হাতের পুতুলে পরিণত হয়েছে।

আরও পড়ুন : ক্যাপিটল হিলে হামলাকারীর পরিচয় মিলেছে

অথচ নিয়ম অনুযায়ী একটি দেশে গণতন্ত্রে সমস্ত রাজনৈতিক দলের সমান অধিকার থাকা প্রয়োজন। সেটাই এখন দেশে হচ্ছে না। শুধু কংগ্রেসের সঙ্গে এই সমস্যা হচ্ছে না। দেশের সব বিরোধী দলেরই একই অবস্থা বলে মত রাহুলের।

তিনি বলেন, ভারতে আজ শুধুমাত্র কংগ্রেস নয়, বহুজন সমাজবাদী পার্টি, সমাজবাদী পার্টি, ন্যাশানালিস্ট কংগ্রেস পার্টির মতো পার্টি গুলোও নির্বাচনে জেতেনি। আসলে নির্বাচনে জেতার জন্য একটি গণতান্ত্রিক কাঠামো দরকার। আইনের সুরক্ষা দরকার। সংবাদমাধ্যম ও বিরোধীদের স্বাধীনতা দরকার। কিন্ত সেগুলোর কিছুই বর্তমান ভারতে নেই।

যে কারণেই আজ বিরোধীরা ভোটে জিততে পারছে না। রাহুল বলেন, বর্তমান সময়ে বিজেপি যেভাবে সবকিছু গায়ের জোরে দখল করে নিচ্ছে, তাতে সমস্ত রাজনৈতিক দল ও দেশের মানুষ ক্রমশ তাদের বিরোধী হয়ে উঠছে। যা গণতন্তের জন্য শুভ লক্ষণ হতে পারে না।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এ/ ০৩ এপ্রিল

Back to top button