পুষ্টি

লেবুর ভিন্ন ব্যবহার

সাইট্রাস জাতীয় ফল লেবুতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন সি পাওয়া যায়। নিয়মিত এই ফল খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। সকালে হালকা গরম পানিতে লেবুর রস এবং আদা খেলে যে মেদ ঝরাতে সুবিধা হয়, তা-ও অনেকের জানা। কিন্তু এই ফল আরও নানাভাবে ব্যবহার করা যায়। যেমন-

ভাত ঝরঝরে করে : অনেকেই তাড়াহুড়োর সময় প্রেসার কুকার ভাত রান্না করেন। কিন্তু বেশির ভাগ দিন ভাত একসঙ্গে লেগে দলা পেকে যায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চালের পানিতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে দিন। এতে ভাত ঝরঝরে হবে।

চিনি নরম থাকবে : শুধু রসই নয়, লেবুর খোসারও অনেক গুণ রয়েছে। লেবু ব্যবহার করা হয়ে গেলে খোসাগুলো ফেলে দেবেন না। সব লেবুর খোসা ছাড়িয়ে নিন। চিনি কৌটোয়, বিশেষ করে যদি ব্রাউন চিনি ব্যবহার করেন, এক ফালি খোসা এতে ফেলে রাখুন। সাধারণত চিনি দলা পেকে শক্ত হয়ে যায়। কিন্তু লেবুর খোসা থাকলে সেই সমস্যা হবে না।

ফল-সবজি কালো হয়ে যাবে না : ফল খেটে দীর্ঘ সময রাখলে কালো হয়ে যায়। এ সমস্যা দূর করতে ফল কেটে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস লাগিয়ে রাখুন। লেবুর রস এতটাই অ্যাসিটিক যে ফলের অক্সিডেশনের পদ্ধতি আটকে দেয়। আলু কেটে রাখলেও এই পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন।

ডিম সিদ্ধ করতে সুবিধা হয় : ডিম সিদ্ধ করতে দিলেই অনেকে সময় খোসা ফেটে যায়। এ সমস্যা কাটাতে ফুটন্ত পানিতে ডিমগুলো ফেলার আগে গায়ে একটু লেবুর রস মাখিয়ে নিন। এ সমস্যা দূর হবে।

লবণের পরিবর্তে ব্যবহার করুন : লবণ খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। কিন্তু অনেকেই স্বাদ বাড়াতে বেশি লবণ ব্যবহার করেন। অনেক রান্নায় লবণের তেমন প্রয়োজন নেই। একটু লেবুর রসেই স্বাদ বেড়ে যায়। বিশেষ করে বেক করা কোনও খাবার কিংবা মাংসের স্টেক তৈরিতে লবণের পরিবর্তে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন।

এস সি/১৭ জুন

 

Back to top button