নোয়াখালী

সেতুমন্ত্রীর সহকারী নিউইয়র্কে বাড়ি বানিয়েছেন : কাদের মির্জা

নোয়াখালী, ১৩ এপ্রিল – নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে আমি কথা বলি না। অনেক চেষ্টা করেছে গত দুই মাসে। একদিনও কথা বলিনি।

তিনি বলেন, আমি অন্যায়ের কাছে মাথানত করব না। অপরাজনীতি করব না, মেনে নেব না। দুই হাজার গুলি করেছে, মাথানত করিনি। মাথানতের প্রশ্নই উঠে না।

সোমবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে বসুরহাট পৌরসভার আয়োজনে করোনাযোদ্ধাদের সম্মাননা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

আরও পড়ুন : কাদের মির্জা ও তার ভাগ্নের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৫

কাদের মির্জা বলেন, কেউ হাজার হাজার কোটি টাকা কামাবে; কেউ টাকার অভাবে খেতে পারবে না, এটা মানব না। অনেকে আজ দুই বেলা খেতে পারে না। এটা দেশে চলতে দেওয়া যায় না। আমি সাহস করে সত্য কথা বলব। আজ কঠিন ভাষায় বলে গেলাম। জেলা পর্যায়ের অফিসারদের দেখেন। তারা বিদেশি কাপড় পরিধান করেন। এত টাকা কোথায় পান, কোথায় পায় শালারা। দেশের মানুষের মাথা বিক্রি করে, লুট করে, তারা খাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সেতুমন্ত্রীর সহকারী জুয়েল। এদের পদবী নেই। ভুয়া পদ লাগিয়েছে। কতগুলো ভিজিটিং কার্ড নিয়ে চলে। এমপি-মন্ত্রী ও সচিবসহ বিভিন্ন জায়গায় তদবির করে কোটি কোটি টাকা কামায়। নিউইয়র্কের সবচেয়ে অভিজাত এলাকায় জায়গা কিনে বাড়ি বানিয়েছে। দেখেন অবস্থা তার। এগুলো দেখে আমার বিবেক নাড়া দিয়েছে। সত্য কথা বলে যাবই।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সেলিম, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. মাকসুদাহ সুলতানা সুরভি, ডা.শওকত আল ইমরান ইমরোজ ও ডা.সামিয়া কামাল।

সূত্র : প্রতিদিনের সংবাদ
এন এইচ, ১৩ এপ্রিল

Back to top button