রূপচর্চা

মেকআপ করতে সাবধান?

মেকআপ আপনাকে আপনার মাঝে থেকে বের করে এনে এক নতুন আমিতে উপস্থাপন করবে। কারন মেকআপ একটি আর্ট। কিন্তু এই মেকআপেই যদি থাকে ভুল তবে কি আর নিজেকে উপস্থাপন সম্ভব। তাই সাজের ক্ষেত্রে কিছুটা সতর্কতা অবলম্বন করুন। যাতে আপনি খুব সহজেই মেকআপের ভুলগুলো এড়িয়ে যেতে পারেন। চলুন জেনে নেই মেকআপ করার ক্ষেত্রে সেই ভুলগুলো এবং তার সমাধান ।

১) ত্বকে একবারে বেশি ফাউন্ডেশন লাগানো খুবই সাধারণ একটি ভুল। তাই ফাউন্ডেশন লাগানোর ক্ষেত্রে প্রথমেই বেশি পরিমাণে ফাউন্ডেশন ত্বকে না লাগিয়ে অল্প পরিমাণে ফাউন্ডেশন নিয়ে ব্লেন্ডার বা ব্রাশ দিয়ে ত্বকে মিশিয়ে নেওয়া উচিত। পরে প্রয়োজন হলে আবারও ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নেওয়া যেতে পারে। ফাউন্ডেশন দেয়ার কিছুক্ষণ পরই মুখ কালচে হয়ে যায়, এর কারণ রুক্ষ ত্বক। আর তাই ত্বকের জন্য সঠিক শেডের ফাউন্ডেশন বাছাই করা দুষ্কর হয়ে পড়ে। ফাউন্ডেশন কেনার ক্ষেত্রে আগেই ত্বক রুক্ষ কিনা তা জানতে হবে। রুক্ষ ত্বকের ক্ষেত্রে নিজের গায়ের রংয়ের চেয়ে এক শেড হালকা ফাউন্ডেশন বাছাই করতে হবে।

২) লিপস্টিকের রংয়ের সঙ্গে লিপ লাইনারের রং যদি না মেলে তবে দেখতে বেমানান লাগে। তাই লিপস্টিক এবং লিপ লাইনারের রং একই কিনা সে বিষয়ে খেয়াল রাখা জরুরি।

৩) অনেক সময় ব্লাশন লাগানোর সময় ব্রাশে অতিরিক্ত ব্লাশন লেগে যাওয়ার ফলে গাল একটু বেশিই রঙিন হয়ে যায়। এমন সমস্যা হলে একটি পরিষ্কার ব্রাশ গালে বুলিয়ে নিলে অতিরিক্ত ব্লাশোন ঝরে পড়বে। ক্রিম বা লিকুইড ব্লাশোন হলে একটি তুলার বল ভিজিয়ে চেপে নিলে অতিরিক্ত ব্লাশোন উঠে আসবে।

৪) চোখের নিচে কাজল, আইলাইনার বা মাস্কারা ছড়িয়ে গেলে একটি কটন বাড মেকআপ রিমুভারে ভিজিয়ে ছড়িয়ে পড়া কাজল মুছে নিতে হবে।

৫) অতিরিক্ত আইশ্যাডো ব্যবহার করে ফেললে ব্রাশে সামান্য ফাউন্ডেশন নিয়ে শ্যাডো হালকা করে নেয়া যেতে পারে।

৬) লিপস্টিক বেশি হয়ে গেলে সামান্য লিপবাম লাগিয়ে টিস্যু পেপার আলতো করে ঠোঁটে চেপে ধরলে অতিরিক্ত লিপস্টিক উঠে আসবে।

এস সি

Back to top button