ক্রিকেট

ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো

নেপিয়ার, ৩১ মার্চ – বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছেন, এমন খেলা কখনো দেখেননি। ডমিঙ্গোর ভাষায়, ‘আমার মনে হয় না, আগে এমন কোনো ম্যাচ দেখেছি যেখানে ব্যাটিংয়ে নামার সময় ব্যাটসম্যানরা জানে না লক্ষ্য কত! এটাও জানা নেই ডাকওয়ার্থ-লুইসে লক্ষ্য কত! কারও কোনো ধারণা ছিল না, ৫ ওভারে আমাদের কত দরকার বা ৬ ওভারে। কোনো ম্যাচে এরকম দেখিনি। আমার মনে হয় না, টার্গেট না জেনে ম্যাচ শুরু করা ঠিক হয়েছে। ব্যাপারটি যথেষ্ট ভালো ছিল না।

বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে নামার আগে জানানো হয় ১৬ ওভারে করতে হবে ১৪৮। কিন্তু খেলা শুরুর পর আবার তা বন্ধ করে জানানো হয় একই ওভারে ১৭০ রান করতে হবে বাংলাদেশকে! ডমিঙ্গো আরও বলেন, ‘তারা প্রিন্ট আউটের জন্য অপেক্ষা করছিল। হিসাব-নিকাশ চলছিল। কিন্তু খেলা শুরু করার জন্য আর অপেক্ষা করতে পারছিল না, কারণ সময় চলে যাচ্ছিল। সব মিলিয়ে ব্যাপারটি হতাশার। তারা যখন অপেক্ষা করছিলই, তাহলে খেলা শুরু করার প্রয়োজন ছিল না। আমাকে তারা বলেছে যে সাধারণ ইনিংসের ২-১ বল হতে হতেই এটা বের করে ফেলতে পারে। অজুহাত দিচ্ছি না, তবে খুবই হতাশাজনক আমাদের জন্য। ‘

আরও পড়ুন : অবশেষে বাংলাদেশ দলের কাছে ক্ষমা চাইলেন জেফ ক্রো

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং এর ১৮তম ওভারের শেষ বলটা আর করা হয়নি বাংলাদেশের বোলারদের। বৃষ্টি বাগড়ায় সে দফায় বন্ধ খেলা আর মাঠে নামতে দেয়নি কিউই ব্যাটারদের।
স্বাভাবিকভাবেই ডাক ওয়ার্থ লুইসের শরণাপন্ন হন ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো। ১৬ ওভারে ১৪৮ রানের টার্গেট তাড়া করার উদ্দেশ্যে ম্যাকলিন পার্কে শুরু হয় লিটন-নাঈমের লড়াই। কিন্তু ৯ বল হতে না হতেই থেমে যায় খেলা। তবে, এবার আর বৃষ্টি নয়, আম্পায়ারদের সিদ্ধান্তেই বন্ধ ম্যাচ। টিভি ক্যামেরায় দেখা যায় ম্যাচ রেফারির কক্ষে কথা বলছেন বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। কম্পিউটারের সামনে তখন দ্রুত হাতে কিছু একটা করছিলেন ক্রো।

হঠাৎ করেই সিদ্ধান্ত আসলো বদলে গেছে বাংলাদেশের টার্গেট। ১৬ ওভারে এবার ১৭০ রান করতে হবে টাইগারদের। ক্রিকেট ইতিহাসে এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেছে কিনা, জানা নেই কারো। তবে, বিষয়টা একেবারেই ভালোভাবে নেননি রাসেল। চটেছেন ম্যাচ অফিশিয়ালদের ওপর।

সূত্র : বিডি২৪লাইভ
এন এইচ, ৩১ মার্চ

Back to top button