ফরিদপুর

আমাকে চোখ রাঙাইয়া কথা বলবেন না : এমপি নিক্সন

আমাকে চোখ রাঙাইয়া কথা বলবেন না : এমপি নিক্সন

ফরিদপুর, ১২ অক্টোবর- ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকারকে (ডিসি) চোখ রাঙিয়ে কথা না বলতে হুমকি দিয়েছেন ৪ আসনের এমপি মুজিবর রহমান নিক্সন চৌধুরী। চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন পরবর্তী বিজয় সমাবেশে যোগ দিয়ে এ হুমকি দেন নিক্সন। ডিসিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনি যত বড় উপদেষ্টার নাতি হন না কেন; আপনি নিক্সন চৌধুরীর সঙ্গে চোখ রাঙাইয়া কথা বলবেন না।’

গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চরভদ্রাসন উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে নিজের বক্তব্যে শুরু থেকেই বেশ কড়া কথাবার্তা বলেন নিক্সন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘প্রশাসনের মধ্যে লুকিয়ে থাকা ওই জেলা প্রশাসক শেখ হাসিনার চোখ ফাঁকি দিয়ে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়ে নৌকার কর্মীদের গ্রেপ্তার করেছেন, পিটিয়েছেন। ওই জেলা প্রশাসক একজন রাজাকার। তা না হলে মাত্র চার ইউনিয়নে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে আমার নেতাকর্মীদের যেখানে পেয়েছেন সেখানে হামলা করেছেন, পিটিয়েছেন ডিসি।’

নিক্সন বলেন, ‘আমি জেলা প্রশাসককে সাবধান করব আপনি ফরিদপুরে দেখেছেন অনেক বড় বড় নেতার পতন হইছে। ওই বরকত-রুবেলের যত অন্যায়-দুর্নীতি তার সঙ্গে আপনার জেলা প্রশাসনের লোকজন জড়িত। বরকত-রুবেলের বিচার হলে জেলা প্রশাসকেরও বিচার হবে। কারণ, ওই দিপু খাঁর (আওয়ামী লীগ প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বী কেএম ওবায়দুল বারী) বালুর ব্যবসার ভাগ পান জেলা প্রশাসক।’

ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য বলেন, ‘জেলা প্রশাসকের উদ্দেশ্য বলব, আপনি যত বড় উপদেষ্টার নাতি হন না কেন; আপনি নিক্সন চৌধুরীর সঙ্গে চোখ রাঙাইয়া কথা বলবেন না। আমি যদি জনগণ নিয়া আপনার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামি, আপনি নৌকার বিরুদ্ধে কাজ করেছেন, আমার নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করেছেন, নৌকার এজেন্টদের গ্রেপ্তার করেছেন, এসব নিয়ে রাস্তায় নামলে আপনি এক মিনিটও দম নেওয়ার সুযোগ পাবেন না।’

এ সময় জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে আপত্তিকর স্লোগান দিতে শুরু করেন নিক্সনের অনুসারীরা। ওই সমাবেশের একটি ভিডিও ইতোমধ্যে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

এমপি নিক্সন আরও বলেন, ‘তিনি (ডিসি) এক উপদেষ্টার ভয় দেখান। তিনি মনে করেন ওই উপদেষ্টা তার ক্ষমতা। আরে এমন কত উপদেষ্টা দেখলাম মিয়া, কাজী জাফরউল্লাহর বেল নাই আর আপনি উপদেষ্টার ভয় দেখান। সরকারি চাকরি করেন; বিএনপি নেতাদের চেয়ারম্যান বানানোর জন্য না। যুবদলের প্রেসিডেন্ট দিপু খাঁর বালুর ব্যবসা থেকে কোটি কোটি টাকা ডিসি ঘুষ নিচ্ছেন বলেই আজ এ অবস্থা। আমরা এর বিচার অবশ্যই করব; আমরা এর বিচার চাই।’

এমপি মুজিবর রহমান নিক্সনের অশ্রাব্য কথাবার্তা ও হুঁশিয়ারির বিষয়ে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, ‘বিষয়টি শিষ্টাচারবহির্ভূত। একজন সাংসদের কাছ থেকে এ জাতীয় বক্তব্য প্রত্যাশিত নয়। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তারা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।’

সূত্র: আমাদের সময়

আর/০৮:১৪/১২ অক্টোবর

Comments

Back to top button