কোন পেশায় কোন রাশি

মেষ

মেষ (২১ মার্চ – ২০ এপ্রিল)

চিকিৎসাশাস্ত্রে এ রাশির জাতক-জাতিকা বিশেষ কৃতিত্ব অর্জন করতে সমর্থ হয়। তা ছাড়া ইঞ্জিনিয়ার, পুলিশ, ব্যাংক, জীবনবীমা এবং পূর্ত বিভাগের উচ্চপদে এরা কৃতিত্ব দেখাতে পারে। তবে স্বাধীন পেশা এদের জন্য ভালো। অর্থাৎ সব ধরনের বড় কাজে সাফল্য আসে। ২৪ বছর বয়স থেকে কর্মোন্নতি শুরু হয়।

বৃষ

বৃষ (২১ এপ্রিল – ২১ মে)

এই রাশির জাতক-জাতিকা কখনো অন্তর্মুখী, কখনো বহির্মুখী হয়ে থাকে। তবে বয়োবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে একটু আত্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠতে পারে। এরা প্রশাসনিক কাজ, জনসংযোগ, ব্যাংক, জীবন বীমা, সৃজনশীল পেশা, মৎস্য ও রাসায়নিক দ্রব্যের ব্যবসায় উন্নতি করে।

মিথুন

মিথুন (২২ মে – ২১ জুন)

এই জাতক-জাতিকা জীবনের প্রথম থেকেই কর্মক্ষেত্রে ভালো করে থাকে। পেশা- যেমন চিকিৎসা, সমাজকর্ম, ডাক বিভাগ, আইন, সাহিত্যচর্চা, কাগজ, ব্যাংক, বীমা, প্রকাশনা, লাইব্রেরি, হোটেল ম্যানেজমেন্ট, ওষুধ ব্যবসা, অধ্যাপনা, ব্যবসায় বিশেষ কৃতিত্ব প্রকাশ পায়। এরা ব্যবসা-বাণিজ্যে নানাভাবে লাভবান হয়।




কর্কট

কর্কট (২২ জুন – ২২ জুলাই)

এদের কর্মশক্তি অপরিসীম। যে কোনো কাজ আন্তরিকতা ও পরিশ্রম দিয়ে তা সাফল্যমণ্ডিত করে তোলে। এমন কোনো কাজ নেই যা কর্কটের দুঃসাধ্য। এরা জনসংযোগ, চিকিৎসা, কন্ট্রাক্টরি, ইনডেনটিং, বৈদেশিক বাণিজ্য, ব্যাংক, বীমা, ট্রাভেল এজেন্সি, রেল ও বহির্বাণিজ্য দফতরের কাজে বিশেষ দক্ষতা দেখাতে সক্ষম। ২৪ থেকে ৪৮ বছর সময় বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।

সিংহ

সিংহ (২৩ জুলাই – ২৩ আগস্ট)

অলসতা ও খামখেয়ালিপনাকে প্রশ্রয় না দিলে এরা কর্মজীবনে খুবই উন্নতি লাভ করে। প্রশাসনিক কাজ, রাজনীতি, শিল্পপতি, ডাক্তার, অভিনয়, জ্যোতিষচর্চা, কুটির শিল্পে এ জাতক নৈপুণ্যের পরিচয় দিতে পারে। খুব তাড়াতাড়ি এদের জীবনে কর্মে সাফল্য আসে। ২২ থেকে ৩২ বছরের মধ্যে প্রতিষ্ঠা পেয়ে থাকে।

কন্যা

কন্যা (২৪ আগস্ট – ২৩ সেপ্টেম্বর)

নানা বিষয়ে এদের যোগ্যতা ও কর্মকুশলতা প্রকাশ পায়। শিক্ষক, আইনজীবী, সাংবাদিক, সমালোচক ও শিল্পী হিসেবে ভালো করে। কর্মে প্রতিষ্ঠার জন্য এদের বিশেষ বেগ পেতে হয় না। তবে স্বাধীন ব্যবসায় এরা সাফল্য পায়।




তুলা

তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর – ২৩ অক্টোবর)

গবেষামূলক কাজ, সংগঠক, কূটনীতিক, প্রকাশনা, ওষুধ ব্যবসা প্রভৃতি পেশায় এরা প্রতিষ্ঠা পেয়ে থাকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কর্মজীবনে উন্নতি করে। এদের লোক চেনার ক্ষমতা অপরিসীম। ২৯ থেকে ৪৯ বছর পর্যন্ত সময় বিশেষ উল্লেখযোগ্য। এ সময়ে প্রতিষ্ঠা অর্জনে সমর্থ হয়।

বৃশ্চিক

বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর – ২২ নভেম্বর)

এই রাশির জাতক-জাতিকারা যে কাজে একবার ব্রতী হয়, তা উদ্ধার করে ছাড়ে। প্রচুর সংগ্রামের পর জীবনে সফলতা আসে। টাকাকড়ি লেনদেনের কাজ, চাষবাস, আইন ব্যবসা, রাজনীতি, শিক্ষকতা, বিজ্ঞাপন ব্যবসা, সাহিত্য ও দর্শনে এরা বিশেষ কৃতিত্ব দেখাতে পারে। চাকরিতেই সাধারণত বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠা পায়।

ধনু

ধনু (২৩ নভেম্বর – ২১ ডিসেম্বর)

এদের চিন্তায় বাস্তববাদের প্রাধান্য বেশি থাকে। শিল্প-সাহিত্য, প্রকাশনা ও মুদ্রণ ব্যবসা, বিজ্ঞাপন, শিক্ষকতা, প্রশাসন, রাজনীতি এবং মনোহারি দ্রব্যের ব্যবসায় লাভবান হয় এরা।




মকর

মকর (২২ ডিসেম্বর – ২০ জানুয়ারি)

দীর্ঘ পরিশ্রমের পর জীবনে এরা স্থায়ী সফলতা পায়। গবেষক, হিসাবরক্ষক, ঠিকাদার, শিক্ষক, ইঞ্জিনিয়ার ও রাজনীতিবিদ হিসেবে সফল হয়।

কুম্ভ

কুম্ভ (২১ জানুয়ারি – ১৮ ফেব্রুয়ারি)

গবেষণা, চিকিৎসাশাস্ত্র, সাংবাদিকতা, ইঞ্জিনিয়ারিং, সাহিত্যচর্চা, ট্রাভেল এজেন্সি, বৈদেশিক বাণিজ্য, ব্যাংক, পুলিশ জ্যোতিষচর্চা, জীবনবীমা যে কাজেই এ জাতক-জাতিকা লিপ্ত থাকুক না কেন সফল হবে। ২৫ বছরের পর সমৃদ্ধি ধরা দেয়।

মীন

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি – ২০ মার্চ)

বেশি বয়সে অর্থলাভ হয়ে থাকে। এরা বৈদেশিক বাণিজ্য, জাহাজে চাকরি, গবেষণা, শিল্পকর্ম, শিল্প-সাহিত্য, চিকিৎসা, রাজনীতি, প্রশাসনিক কর্ম, রত্ন-মুক্তা, কয়লা রাসায়নিক দ্রব্যের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠা পায়। বিশেষ করে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে প্রথম থেকেই দায়িত্বশীল পদ পায়।

Back to top button