রূপচর্চা

দারুণ সুন্দর ত্বকের জন্য খেতে হবে যে স্বাস্থ্যকর খাবারগুলো

প্রতিদিনের ধূলোবালি আর আর্দ্র আবহাওয়ায় আমাদের ত্বক বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। অনেক ধরনের প্রসাধনী আমরা প্রতিদিন ব্যবহার করছি ঠিকই কিন্তু পাশাপাশি অবশ্যই কিছু পুষ্টিকর খাবারও খাওয়া উচিৎ যেগুলো দেহের পুষ্টির সাথে ত্বকের ক্ষেত্রেও রাখতে পারে বিশেষ প্রভাব। আপনি যদি মসৃণ, নরম এবং স্বাস্থ্যকর ত্বক পেতে চান তাহলে অবশ্যই নিচের খাবারগুলো খাবেন।

১. গোলমরিচ ঘন্ট :
গোলমরিচে নির্দিষ্ট পরিমাণে ক্যালোরি এবং অন্যান্য বিভিন্ন উপাদান রয়েছে যা ত্বকের বিভিন্ন পুষ্টি যুগিয়ে থাকে। আপনি চাইলে গোলমরিচগুলোকে ভেজে নিয়ে খেতে পারেন বা একেবারে কোনো প্রসেসিং না করেই কাঁচাই খেতে পারেন। এই উপকরণটিকে বিভিন্ন খাবারের সাথে মিশিয়েও খেতে পারেন। তবে আপনি যদি ভালো ত্বক পেতে চান তাহলে অবশ্যই গোলমরিচগুলো সরাসরি খাবেন।

২. ডার্ক চকোলেট :
চকোলেট বেশিরভাগ মানুষেরই অনেক প্রিয় একটি খাবার। প্রিয় এই খাবারটি দিয়েও আপনি আপনার ত্বকটি ঠিক রাখতে পারেন। আপনি যদি প্রতিদিন কিছুটা হলেও এই ডার্ক চকোলেট খান তাহলে এটি আপনার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন সহজ করে আপনার ত্বককে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর এবং প্রাণবন্ত করে তুলবে। এছাড়া এটি দেহে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবেও কাজ করে।

৩. গ্রীন টি :
গ্রীন টি অনেক ধরনের পুষ্টিকর উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয়ে থাকে। আপনি আপনার প্রতিদিনের পানীয়ের পরিবর্তে এই ভেষজ গুণসম্পন্ন গ্রীন টি খেতে পারেন। এতে করে এটি আপনার দেহের ভেতরে কাজ করবে ঠিকই কিন্তু ফলাফল দেখা দেবে দেহের বাহিরে অর্থাৎ আপনার ত্বকে প্রাণ এনে দেবে।

৪. বিভিন্ন বীজ উপাদান :
বিভিন্ন বীজের উপাদান খেতে অনেক মজাদার হয়ে থাকে। বিশেষ করে সূর্যমুখী, চিয়া, শণ, কুমড়া এবং অন্যান্য বিভিন্ন ধরনের বীজ থেকে বের হওয়া তেল জাতীয় পদার্থ ত্বকের মশ্চারাইজার ধরে রাখতে সহায়তা করে পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে ভিটামন ই এবং প্রোটিন পেতে সাহায্য করে।

৫. পেঁপে :
পেঁপেতে ক্যালরির পরিমাণ যদিও কম থাকে তারপরও এটি ত্বকের জন্য বেশ কার্যকর। এটি খুব ভালো একটি ফেসপ্যাক হিসেবে কাজ করে। বেশিরভাগ মহিলাদের ওভারিন জাতীয় নানা সমস্যা থাকে। এই সমস্যাও সমাধান করে। পেঁপেতে থাকা প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ই এবং বিটাক্যারোটিন ত্বকের পুষ্টি যোগাতে বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখে।

এস সি

Back to top button