Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English

এজাজুল ইসলাম

এজাজুল ইসলাম পেশায় চিকিৎসক কিন্তু তিনি হাসির নায়ক হিসাবে বেশি পরিচিত। ব্যক্তিগত জীবনে তাঁর চার সন্তান।

যেভাবে অভিনয় জগতে প্রবেশ
ছোটবেলা থেকেই এজাজুল ইসলাম স্বপ্ন দেখতেন অভিনেতা হওয়ার। তিনি যখন চতুর্থ শ্রেণীতে পড়েন, তখনই প্রথম মঞ্চে ওঠেন অভিনয় করতে (কি চরিত্র করেছিলেন এখন মনে করতে পারেন না)। কিছু একটা বলতেই দর্শক হেসে উঠেছিল। এরপর অভিনয় করার ইচ্ছা আরো বেড়ে যায়। একসময় রংপুর থেকে ডাক্তারি পাস করে এলেন ঢাকায়। ১৯৭৮ থেকে ১৯৮৪ পর্যন্ত রংপুর রেডিওতে কাজ করেন। ১৯৮৫ সালে চাকরির সুবাদে ঢাকায় আসেন। বিটিভিতে অডিশন দিয়ে পাসও করলেন, কিন্তু ডাক আসেনি কখনো।

এরপর তিনি আবার পড়াশোনায় মনোযোগ দেন। পিজি হাসপাতালে নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিভাগে পোস্ট গ্র্যাজুয়েশনে ভর্তি হন। একদিন কথা বলার সুযোগ হয় হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে। এজাজুল ইসলাম তাঁকে বললেন, 'অভিনয় করতে চাই, কিন্তু কেউ ডাকে না।' সব শুনে হুমায়ূন আহমেদ বললেন, 'কেউ না ডাকলেও আমি তোমাকে ডাকব।' ঠিক তিন দিন পর হুমায়ূন আহমেদ ডাকলেন।

‘সবুজ সাথী’ সিরিয়ালে ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ করে দেন। আরো বললেন, 'টিভিতে আমার শুরুটা হয়েছিল একটু সিরিয়াস টাইপের অভিনয় দিয়ে, কিন্তু আমি পরিচিতি পাই কমেডি অভিনেতা হিসেবে। স্কুল, কলেজ এবং মেডিক্যাল কলেজের মঞ্চেও কমেডি ধাঁচের চরিত্রে অভিনয় করতাম। এই পরিচিতিই আমাকে গণ্ডির মধ্যে বেঁধে ফেলেছে। দর্শক আমাকে দেখলেই ভাবে আমি এখন তাদের হাসাব।' তিনি যেমন কমেডি চরিত্রে অভিনয় করতে পছন্দ করেন, তেমনি বাস্তব জীবনেও হাসি-খুশি। মৃত্যুর আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তিনি একজন সৎ ডাক্তার এবং সৎ অভিনেতাই থাকতে চান।


Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে