Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English

আতিকুল হক চৌধুরী

জন্মঃ ১৫ ডিসেম্বর, ১৯৩১
আতিকুল হক চৌধুরী বাংলাদেশের একজন আলোকিত নাট্যকার ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব।

জন্ম এবং পরিবার
১৯৩১ সালের ১৫ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন আতিকুল হক চৌধুরী। জন্ম ভোলার বাটামারা গ্রামে মামার বাড়িতে। তার নিজের বাড়ি বরিশালের উলানীয়া গ্রামে। আতিকুল হক চৌধুরীর বাবা সেরাজুল হক চৌধুরী, মা সৈয়দা লুৎফুন্নেসা (রওশন আরা ) বেগম। চার ভাইয়ের মধ্যে আতিকুল হক চৌধুরী সবার বড়। অন্য ভাইয়েরা হলেন রেজাউল হক চৌধুরী, নাসিরুল হক চৌধুরী ও ডা. লুৎফুল হক চৌধুরী। আতিকুল হক চৌধুরী ১৯৫৪ সালের ৬ই জানুয়ারি ফরিদপুরের এডিসি জহুরুল হকের বড় মেয়ে জহুরা বেগম লিলির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে। কনিষ্ঠ ছেলে মঈনুল হক চৌধুরী মাত্র ৩৫ বছর বয়সে ২০০১ সালের ৪ঠা জুন ইন্তিকাল করেন। ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের একজন প্রত্যক্ষ সাক্ষী আতিকুল হক চৌধুরী।

শিক্ষা জীবন
আতিকুল হক চৌধুরীর স্কুলজীবন কেটেছে বিভিন্ন স্থানে। বরিশালের সাহেবগঞ্জ, বাকেরগঞ্জ স্কুল, গৌরনদী হাইস্কুল, ভোলা সরকারি স্কুল, বরিশাল জেলা স্কুলে তিনি পড়াশোনা করেছেন। বরিশালের বিএম কলেজে তার কলেজ জীবন কেটেছে । এরপর ১৯৫২ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক সম্মান ডিগ্রি লাভ করেন।

কর্মজীবন
১৯৬০ সালে রেডিও পাকিস্তানে যোগ দেওয়ার মাধ্যমে তিনি কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৬৬ সালে যোগ দেন বাংলাদেশ টেলিভিশনে। বিটিভিতে কর্মরত অবস্থায় দেশবাসীকে অসংখ্য সেরা নাটক উপহার দেন তিনি। সর্বশেষ তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের উপমহাপরিচালক ছিলেন। বিটিভির উপমহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন ১৯৯০ সালে তিনি অবসরে যান। এরপর তিনি বেসরকারি একুশে টেলিভিশনের উপদেষ্টা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগেও তিনি ১১ বছর শিক্ষকতা করেছেন।

তার কাজ
বেতারে তারই প্রযোজনায় প্রথম অভিনয় করেন মুনীর চৌধুরী, শবনম, শর্মিলী আহমেদ, নাজমা আনোয়ার, দিলারা জামান, ডলি ইব্রাহিম, আলেয়া ফেরদৌসী, খলিল, আবদুল্লাহ আল মামুন। টিভিতে তার রচিত উল্লেখযোগ্য নাটকের মধ্যে রয়েছে বাবার কলম কোথায়, দূরবীণ দিয়ে দেখুন, যদি দূরের পথ, অন্বেষণ, জলাশয় কতদূর, ধূসর প্রাসাদ ইত্যাদি। টিভিতে তার প্রযোজিত নাটকের মাধ্যমে যারা প্রথম অভিনয় করেন তারা হলেন আবুল হায়াত, হুমায়ুন ফরীদি, শর্মিলী আহমেদ, কেয়া চৌধুরী, মিতা চৌধুরী, জুয়েল আইচ, আফরোজা বানু, আবিদা আলী, মেঘনা, শম্পা রেজা, শমী কায়সার, সালমান শাহ প্রমুখ।

পুরস্কার
শ্রেষ্ঠ নাট্য প্রযোজক হিসেবে তিনি ১৯৭৬ সালে জাতীয় টেলিভিশন পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া তিনি অর্জন করেছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সংস্থা পুরস্কার, সিকোয়েন্স পুরস্কার, শেরেবাংলা স্মৃতি পুরস্কার, স্যার সলিমুল্লাহ স্মৃতি পুরস্কার, রংধনু পুরস্কার, অগ্রপথিক পুরস্কার, ঋষিজ পদক, নাট্যসভা পদক, লাইফ পুরস্কার, টেনাসিনাস পুরস্কার, যায়যায়দিন পুরস্কার, তারকালোক পুরস্কার, কথক সাংস্কৃতিক পুরস্কার, ঢাকা আর্টস কাউন্সিল পুরস্কার, অর্জন সাংস্কৃতিক পুরস্কার, আনন্দ থিয়েটার পুরস্কার, টেলিভিশন প্রযোজক সমিতি পুরস্কার, ঢাকা লায়ন্স পদকসহ আরও নানা পুরস্কার। তিনি নয়াদিল্লিস্থ বিশ্ব উন্নয়ন সংসদ কর্তৃক সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেছিলেন।

মৃত্যু
তিনি ২০১৩, ১৭ জুন সোমবার রাতে রাজধানীর শমরিতা হাসপাতালে মৃত্যু বরন করেন।

 


Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে