Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯ , ৩ ভাদ্র ১৪২৬

বিমলাংশু রঞ্জন দে

বিমলাংশু রঞ্জন দে একজন চিকিৎসক। ঢাকা মেডিকেল কলেজে দেশের প্রথম অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন কেন্দ্র গড়ে তোলার পেছনে যাঁর উদ্যোগ, কঠোর পরিশ্রম ও অবদানের কথা সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত হওয়ার কথা, তিনি বাংলাদেশের একজন সফল সন্তান বিমলাংশু রঞ্জন দে।

জন্ম ও পরিবার
বিমলাংশু রঞ্জন দে সিলেটের ছাতকে জন্ম গ্রহণ করেন এবং সেখানেই বেড়ে উঠেন। বাবা সুকুমার চন্দ্র দে, যিনি ছিলেন অগাধ পাণ্ডিত্য আর জ্ঞানের অধিকারী, ছিলেন আজীবন ছেলের কাছে এক বিরাট দার্শনিক ও গাইড। ছেলের রোল মডেল। মা মনোরমা দে। মা স্বল্পশিক্ষিতা হয়েও দারুণ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতায় পরিপূর্ণ একজন মানুষ। ১৯৯৩ সালে বাবা সুকুমার চন্দ্র দে আর ২০১০ সালে মা মনোরমা দে মৃত্যুবরণ করেন।

ব্যক্তিগত জীবনে যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে সংসার বিমলাংশু দের। ছেলে সমিত্র, মেয়ে প্রিয়ানা। স্ত্রী শর্বরী দেও সিলেটের মৌলভীবাজারের মেয়ে, রবীন্দ্রসংগীত গাইতেন চমৎকার।

শিক্ষাজীবন
বিমলাংশু রঞ্জন দে’র প্রথম পাঠ ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরি স্কুলে, ১৯৭৫ সালে এসএসসি পাস করেন ওই স্কুল থেকেই। তারপর ’৭৭ সালে এইচএসসি সিলেটের মুরারী চাঁদ কলেজ থেকে। চেয়েছিলেন গবেষক হতে, অঙ্ক ছিল প্রিয় বিষয়। তাই ভর্তি হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিদ্যা বিভাগে। কিন্তু জীবন তাঁকে টেনে নিয়ে গেল অন্য দিকে। একটা বৃত্তি পেয়ে পড়তে গেলেন হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে, বিষয় চিকিৎসাবিজ্ঞান। চিকিৎসক হতে পেরে তিনি সুখী ও তৃপ্ত। মনে হয় জীবন ঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছিল। এসএসসি ও এইচএসসিতে বোর্ডে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী হওয়া বিমলাংশু মেধা ও প্রতিভার স্বাক্ষর রাখলেন হাঙ্গেরিতে গিয়েও, বরাবর চমৎকার ও সর্বোচ্চ স্কোর পাওয়ার কারণে গোল্ড মেডেল পান তিনি। আর এই স্কোরের রেকর্ড এখনো কেউ ভাঙতে পারেননি ওখানে। স্নাতক হওয়ার পর ইউরোপ ছেড়ে পাড়ি জমালেন যুক্তরাষ্ট্রে। পিএইচডি করলেন বোস্টনে, ট্রান্সপ্লান্টেশন ইমিউনোলজি বিষয়ে।

কর্মজীবন
পিএইচডি করে বিমলাংশু হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হাসপাতালে যোগ দেন। এই প্রতিষ্ঠানের মেডিসিন ও অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন বিষয়ের বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করছেন। পাশাপাশি চালিয়ে যাচ্ছেন বেশ কিছু গবেষণাকাজ।

বাংলাদেশের এই কৃতি সন্তান বিমলাংশুর গান একটা প্রিয় বিষয়। গান শোনা ছাড়াও ছবি আঁকতে ভালোবাসেন বিমল। আর ভালোবাসেন মানুষের সঙ্গে মিশতে, আড্ডা দিতে।

 


Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে