Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English

প্রেক্ষিত রুমানা-সাইদঃ নির্যাতনের ব্যাখ্যায় বিবর্তনীয় মনোবিজ্ঞান-লিখেছেন: রিয়াজ উদ্দীন ((ব্লগ নেম) - মুক্তমনা ব্লগ

প্রেক্ষিত রুমানা-সাইদঃ নির্যাতনের ব্যাখ্যায়… অপরাধের প্যাথলজি? সামাজিক অপরাধকে প্যাথলজিকাল দৃষ্টিভঙ্গীতে দেখার বিপদ হোলো এটার মাধ্যমে অপরাধকে প্রশ্রয় দেবার মত পরিস্থিতির তৈরি হয়। ফলে পপুলিস্ট প্রতিরোধের মূখে রাজনৈতিক শুদ্ধতার চর্চার প্রয়োজন এবং প্রবণতা দেখা দেয়। এতসব পর্দা পেরিয়ে দরকারি কথাটুকু অনেক সময় বলা হয়ে ওঠে না-- আবার বলা হলেও বার্তাটা ঢাকা পরে যায় পর্দার আড়ালে। কিন্তু জ্ঞান বিজ্ঞানের অগ্রগতির ফলে চারপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে আচরনবাদি দৃষ্টিতে দেখার সক্ষমতা বেড়ে গেছে মানুষের। এই আচরনবাদি দৃষ্টিভঙ্গীগুলোকে কি প্রক্রিয়ায় সামাজিক রীতিনীতির অংশে পরিণত করা যাবে বা করা উচিৎ সেটা একটা ভিন্ন আলোচনার বিষয়। কিন্তু জ্ঞান--বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে সমাজজীবনের ঘটনা প্রবাহকে মূল্যায়নের চর্চা না থাকলে একই সমস্যাগুলোকে যুগের পর যুগ টিকিয়ে রাখাই হবে মাত্র, সামাজিক অপরাধগুলির ক্রমাগত পুরনরুৎপাদন হতে থাকবে ক্রমবর্ধমান হারে। তাই বিবর্তনের দৃষ্টিতে পারিবারিক নির্যাতনের মূল্যায়ন বিষয়ক পুরোনো এই লেখাটাকে আবার সামনে এনে ফেললাম। বিষয়বস্তু সম্পর্কে আমার জ্ঞানের সীমাবদ্ধতার জন্য আগাম ক্ষমা চেয়ে রাখছি। লেখাটার ব্যকগ্রাউন্ড লেখাটি যখন লিখেছিলাম রুমানা-সাইদের ঘটনাটি তখন ভিন্ন এক প্রেক্ষিতে চলছিল। সত্যাসত্য না জেনে কোনো পক্ষ নেয়াটা কঠিন ছিল — আজকেও সেটা খুব সহজ হয়ে যায়নি। তবু…

১৯৭১- আলিফজান বিবিকে খুঁজে পাওয়া-লিখেছেন: ৯য়ন (ব্লগ নেম) - আমারব্লগ

১৯৭১- আলিফজান বিবিকে খুঁজে পাওয়া-লিখেছেন:… দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বারান্দায় যখন আলিফজান বিবির সঙ্গে দেখা হল, তখন দুপুর গড়িয়ে বিকেল প্রায়। সারাদিনের ক্লান্তি আর মানুষের মিথ্যাচারে দিকভ্রান্ত হয়ে শেষমেশ দেখা মিলল বীরাঙ্গনার আলিফজান বিবির। ৬০ বছর বয়সী বৃদ্ধা এখন বয়সে ভারে অনেকটাই ন্যুব্জ। একাত্তরের পাকবাহিনী কর্তৃক নির্যাতিতা এ নারীর শরম ভাঙ্গার আগে তাকে লুকিয়ে রেখেছিল এ সমাজ। উপজেলার চণ্ডিপুর…

ট্রানজিটের পয়লা মাশুল: তিতাস একটি খুন হয়ে যাওয়া নদীর নাম!-লিখেছেন: দিনমজুর (ব্লগ নেম) - সামওয়‌্যারইন ব্লগ

ট্রানজিটের পয়লা মাশুল: তিতাস একটি খুন… নিজ চোখেই দেখে এলাম নদীর উপর দিয়ে অভিনব ডিজিটাল রাস্তা। এখন থেকে নদীর উপর ব্রিজ আর খালের উপর কালভার্ট নির্মাণের কোন দরকার নেই। পদ্মা সেতু’র আলাপ বাদ। কারণ সহজ বুদ্ধি পাওয়া গেছে- নদী কিংবা খালের উপর ইট, বালু, সিমেন্টের বস্তা ফেলে পানি চলাচলের জন্য নীচে কয়েকটা কংক্রীটের পাইপ বসিয়ে দিলেই হলো, কয়েকশো টনি লরি চলাচল শুরু করে দেয়া যায়। তাতে নদীর স্বাভাবিক পানি প্রবাহ বাধা পেলে, স্রোত থেমে…

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে