Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

নুহাশপল্লীর অজানা এক হুমায়ূন

নুহাশপল্লীর অজানা এক হুমায়ূন
হুমায়ূন আহমেদের আমন্ত্রণে বাংলাদেশে এসেছিলেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। নুহাশপল্লীতে সময় কাটাচ্ছিলেন তারা। হুমায়ূন আহমেদ জানতেন একদিন পরই সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্মদিন। কিন্তু এ বিষয়ে হুমায়ূন আহমেদ কিছুই জানেন না- এমন একটা ভাব। রাতে খাবার খেয়ে বিশ্রামের প্রস্তুতি চলছে। রাত তখন প্রায় সাড়ে ১১টা। আধা ঘণ্টা পর হুমায়ূন আহমেদ সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়কে উদ্দেশ করে বললেন, চলুন একটু বাইরে থেকে ঘুরে আসি। বাইরে বের হয়েই সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় ‘ওয়াও’ বলে একটা চিৎকার দিলেন। নুহাশপল্লীর চারিদিকে মোমবাতির আলোয় এক অন্য ভুবনের আবেশ। প্রবেশপথ থেকে শুরু করে রাস্তাগুলো হয়ে দীঘি পর্যন্ত আলোর এক অন্যরকম খেলা। জন্মদিনে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়কে এভাবেই ‘সারপ্রাইজ’ দিয়েছিলেন হুমায়ূন আহমেদ। আর একটু আগে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার ঘটনাটা ইচ্ছাকৃত। তারপরই শুরু হয়েছিল নুহাশপল্লীর গেটের মূল প্রবেশ দেয়ালের ছোট ছোট মাটির গর্ত থেকে মোমবাতি প্রজ্বালন। সবই আসলে হুমায়ূন আহমেদের পূর্বপরিকল্পনার অংশ। প্রিয় মানুষদের তিনি এভবেই চমকে দিয়েছেন বহুবার। উপরের কথাগুলো বলছিলেন নুহাশপল্লীর ব্যবস্থাপক সাইফুল ইসলাম বুলবুল। কথার জাদুকর হুমায়ূন আহমেদের ৭০তম জন্মদিন আজ। অগণিত মানুষের প্রিয় এ লেখকের জীবদ্দশায় কিভাবে পালিত হতো তার জন্মদিনটি? এ বিষয়ে অনেকেরই কিছু কিছু জানা থাকলেও…

রহস্যময় নৌকার সন্নিকটে

রহস্যময় নৌকার সন্নিকটে
তা সে কবেকার কথা! পুরাণমতে কয়েক হাজার বছর তো বটেই! একদিন স্বয়ং ঈশ্বর এসে তাঁর প্রিয় পাত্র নোয়াহ'র কানে কানে বলে গেলেন, 'বিশাল এক নৌকা তৈরি করে তৈরি হয়ে থাকো। অচিরেই এক মহাপ্লাবন এসে ভাসিয়ে নেবে চারধার। নোয়াহ সে কথা শুনে আদজল খেয়ে নেমে পড়লেন নৌকা গড়বার কাজে। তারপর সেই নির্দিষ্ট দিনে প্লাবন এলো ঠিকই, তবে তার আগেই সুবিশাল সেই নৌকার পেটে ঢুকে যাবার ফলে বেঁচে গেলেন নোয়াহ, তাঁর পরিবার…

বিছানার পাশে আম্মা!

বিছানার পাশে আম্মা!
আমার শৈশবের আনন্দময় স্মৃতিগুলোর একটি হলো আমার মায়ের গলায় রবীন্দ্রনাতের কবিতা শুনতে পাওয়া। আমার মায়ের খুব প্রিয় বই ছিলো রবীন্দ্রনাথের সঞ্চয়িতা। আমার শৈশবে, তাঁর গৃহকর্মের ফাঁকে, সময়ে-অসময়ে তিনি সজোরে আবৃত্তি করতেন রবীন্দ্রনাথের কবিতা। বরান্দায় একখানা চেয়ার পাতা থাকত। কাজের ফাঁকে তিনি চেয়ারটিতে গিয়ে বসতেন আর সঞ্চয়িতা খুলে উচ্চকণ্ঠে পড়তেন রবীন্দ্রনাথের কবিতা।  ছেলেবেলাতেই…

গল্পের জাদুকর হুমায়ূন আহমেদ  

গল্পের জাদুকর হুমায়ূন আহমেদ  
হুমায়ূন আহমেদ। অসম্ভব রকমের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক ও চলচ্চিত্রকার। কিন্তু সবাই বলেন তিনি গল্পের জাদুকর। তার লেখায় তিনি এমন যাদু ছড়িয়েছেন যে, এখনও সেই যাদুমন্ত্রে বিহ্বল পাঠক। উপন্যাস, গান, সিনেমা- যেখানেই হাত দিয়েছেন, কথা-ছন্দ-দৃশ্যের জাদুতে একখানে হয়ে গেছেন দেশের পাঠক ও শ্রোতা-দর্শক।   আজ তার মৃত্যুবার্ষিকী।…

এক মহাজীবনের স্মৃতিচারণ

এক মহাজীবনের স্মৃতিচারণ
প্রায় দেড় যুগ হয়ে গেল সাংবাদিকতা করছি। এই দীর্ঘ সময়ে হাতেগোনা যে কয়েকটি মহাজীবনের সংস্পর্শ পেয়েছি, তাদের মধ্যে অন্যতম হুমায়ূন আহমেদ। নিজেকে সবসময় সৌভাগ্যবান মনে করি যে, হুমায়ুন স্যার আমাকে ব্যক্তিগতভাবে চিনতেন, পছন্দও করতেন। তার একাধিক আড্ডার আসরে হাজির থাকার অভিজ্ঞতা এইজীবনের অমূল্য সম্পদ। সময় কিভাবে…

হায়াৎ মামুদ ও রুশ লেখকদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ

হায়াৎ মামুদ ও রুশ লেখকদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ
এমন সুন্দর করে গল্প বলতে আর কোনো লেখক পারেন এই ভাষাতে! মনে হয় গল্প শুনছি বড় ভাইয়ের কাছে, কিংবা ছোট চাচার কাছে, অথবা অকালে বুড়িয়ে না-যাওয়া দাদুর কাছে। গল্প শুনলে মনে হবে, কোনো পণ্ডিতি নেই কথার মধ্যে। কিন্তু অন্তরালের বিষয় হচ্ছে ব্যাপক এবং গুলে-খাওয়া পাণ্ডিত্য না থাকলে কেউ এভাবে গল্প বলতে পারেন না। জন্মভূমি…

আমাদের নেক্সট জেনারেশনের ঈদ

আমাদের নেক্সট জেনারেশনের ঈদ
আমাদের পরের জেনারেশনও আর ছোট নেই। তারাও দিব্যি বড় হয়ে গেছে। বেশির ভাগই পিএচইডি করে ফেলেছে বা করছে। আমি বলি পিএইচডি জেনারেশন। বেশির ভাগই বিদেশে। এমন না যে আমরা ঠেলে ঠুলে তাদের বিদেশে পাঠিয়েছি। তারা নিজেরা নিজেরাই দিব্যি পড়াশুনা করতে এখন বিদেশে। আমার নিজের মেয়েটার কথাই বলি। একদিন সে এসে গম্ভীর মুখে জানালো…

ঘর পালানো প্রিয় কবি

ঘর পালানো প্রিয় কবি
১. বলা হয়, তিনি ছিলেন আজন্ম বোহেমিয়ান, যে ধারণার সঙ্গে আমি সম্পূর্ণ একমত নই, যদিও আমরা জেনেছি বেলাল চৌধুরী নামের একজন উড়নচণ্ডী লোক কলকাতায় পালিয়ে গেছেন, যিনি নাকি জাহাজের খালাসির কাজ থেকে কুমিরের চামড়া বিক্রির ব্যবসা পর্যন্ত করেছেন। একজন কবি ও সাংবাদিকরূপে কলকাতায় খুব নামডাক হয়েছে এবং কলকাতার খ্যাতিমান…

প্রিয় শওকত আলী

প্রিয় শওকত আলী
শওকত আলী প্রয়াত হয়েছেন! এই সত্য যতবার মনে আসছে, অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে ভেতর-বাহির! জানি তো, মৃত্যুই মনুষ্যজীবনের শেষ গন্তব্য! অমোঘ, অবধারিত! তবুও প্রাণ অসাড় হয়ে যেতে চাচ্ছে, থেকে থেকে! এদিকে আজকাল বেশ ক'দিন হয়, একটা কঠিন মতো কী জানি জিনিস- আমার ভেতরে বসত নিয়ে, আমাকেই খুব রূঢ়ভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করেছে! বেহিসাব,…

অসামান্য কথাকার

অসামান্য কথাকার
শওকত আলীর সাথে আমার শেষ দেখা হয়েছে বছর চারেক আগে। একটি দৈনিক পত্রিকা আয়োজিত ঘরোয়া এক আয়োজনে সেদিন তার সাথে আমার দেখা হয়েছিল প্রায় বছর দশেক পরে। দেখলাম রুগ্‌ণ হয়ে গেছেন। অসুস্থ, বোঝাই গেল। এর আগেও শুনেছিলাম তিনি দীর্ঘদিন ধরে নানা রকম অসুখে ভুগছিলেন। যার জন্য লেখালেখি ঠিক করতে পারছেন না। সেদিন বেশি কথাবার্তা…

সেইসব দিন, সেইসব মানুষেরা

সেইসব দিন, সেইসব মানুষেরা
রাতের দিকে কার্জন হলের সামনে গেলে এখনও আমার মাঝে মাঝে মনে হয়...ওই যে দোতলার বারান্দা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে গাছের পাতায় যিনি ঢেকে গেলেন, তাঁর ওয়েলিংটন বুট বা বাদামি উইগের সাথে কালো কোটের প্রান্ত ঝুলছে। ভাইসরয়ের পোশাকটা সদ্য জাহাজে করে এসেছে বাক্সবন্দী হয়ে। তিনি আড়াল হতেই যে কাঁচের জানালাটা বাতাসে সরে গেল, ওটা…

আঁকার বন্ধু, লেখার বন্ধু

আঁকার বন্ধু, লেখার বন্ধু
গতকাল ছিল কাইয়ুম চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী। শিল্পী গত হওয়ার পর তাঁর প্রথম জন্মদিন উদ্‌যাপিত হয় ২০১৫ সালে। এ উপলক্ষে জাতীয় জাদুঘরে তাঁর প্রচ্ছদ ও অলংকরণের একটি প্রদর্শনী হয়েছিল। তার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক মেলে ধরেছিলেন শিল্পীর সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ বন্ধুত্বের খেরোখাতা আমার বন্ধু…

 1 2 3 >  শেষ ›
Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে