Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ৭ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.4/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১৩-২০১২

শুধু বাতাসের গতি মাপে হাতিয়া আবহাওয়া অফিস


	শুধু বাতাসের গতি মাপে হাতিয়া আবহাওয়া অফিস

হাতিয়া উপজেলার আবহাওয়া অফিস চলে জনবল সংকট আর অপ্রতুল যন্ত্রাংশ নিয়ে। আর সে কারণে ঠিকমতো আবহাওয়া বার্তা দিতে পারে না বলে অভিযোগ আছে এ অফিসের বিরুদ্ধে।
হাতিয়া আবহাওয়া অফিস সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ১৪ জন কর্মী থাকার কথা থাকলেও সেখানে কাজ করছেন মাত্র ৪ জন। এরমধ্যে একজন ‘অবজারভার’ বাকি তিন জন কর্মচারী।
হাতিয়া আবহাওয়া অফিসের ‘অবজারভার’ ধর্মজ্যোতি চাকমার সঙ্গে কথা বলে অফিসের যন্ত্রাংশ সম্পর্কে জানা যায়। তিনি জানান, ১৭টি যন্ত্রের মধ্যে ৪টি নষ্ট। তবে বেশ কয়েকটি যন্ত্রের ব্যবহারের জন্য কোন দক্ষ লোক নেই বলে তাও অচল অবস্থায় পড়ে আছে।
এছাড়া প্রয়োজনীয় বিদ্যুতের অভাবে অফিসের একমাত্র কম্পিউটারটি বন্ধ হয়ে পড়ে আছে বলেও জানান তিনি।
আবহাওয়া অফিস ঘুরে দেখা যায়, দোতলা অফিসের দ্বিতীয় তলায় কেবল দু’টি কক্ষেই সব কার্যক্রম পরিচালিত হয়। নিচতলা অনেকটা পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। আর প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশগুলো বসানো হয়েছে ছাদের উপরে।
বুধবার রাতে ঘূর্ণিঝড়ের পরিস্থিতি নিয়ে কথা বললে ধর্মজ্যোতি চাকমা বাংলানিউজকে বলেন, ‘স্থানীয়ভাবে আবহাওয়া পরিস্থিতি জানানোর কোনো দায়িত্ব আমাদের নেই। আমরা এখান থেকে প্রতি তিনঘণ্টা পর বাতাসের গতি ও তাপমাত্রা সম্পর্কে ঢাকা অফিসকে অবহিত করি। কোন আশংকাজনক পরিস্থিতি থাকলে সে তথ্য জেলা প্রশাসনের হাত ঘুরে উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে স্থানীয়দের কাছে পৌঁছে।”
তিনি জানান, “বুধবার রাত ১২টায় সর্বশেষ আবহাওয়া পরিস্থিতি ঢাকা অফিসকে জানানো হয়। সেখানে বাতাসে গতি ছিল প্রতি ঘণ্টায় ৩৭২ কিলোমিটার।” বাতাসের এমন গতি চরম অস্বাভাবিক ছিল বলেও জানান তিনি।
তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহেদুর রহমানের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঘুর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস সম্পর্কে তিনি কোন তথ্য পাননি। ঘূর্ণিঝড় ঘটে যাওয়ার পরদিন তার কাছে ৩নং সতর্কতা সংকেত সম্বলিত একটি বার্তা ফ্যাক্সযোগে আসে।
হাতিয়া আবহাওয়া অফিস নিয়ে স্থানীয়দের অভিযোগ, আবহাওয়া অফিস কখনোই কোন আবহাওয়া সংকেত জানায় না। ঢাকা অফিসে পাঠানোর পাশাপাশি স্থানীয়ভাবে আবহাওয়া বার্তা জানালে মানুষ সতর্ক হওয়ার সুযোগ পায়। ঢাকা থেকে বিভিন্ন মাধ্যম হয়ে আবহাওয়া বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছানোর আগেই দুর্যোগ চলে আসে।
তারা আরো অভিযোগ করেন, এতো কম জনবল নিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ অফিস কোনভাবেই চলতে পারে না। এজন্য প্রয়োজনীয় জনবল ও যন্ত্রাংশ বাড়ানো প্রয়োজন বলেও মনে করেন তারা।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে