Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯ , ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (62 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১৮-২০১৭

বিদ্যালয়ে বিক্রেতাবিহীন দোকান উদ্বোধন

বিদ্যালয়ে বিক্রেতাবিহীন দোকান উদ্বোধন

নীলফামারী, ১৮ এপ্রিল- নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীনতম তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বিক্রেতাবিহীন 'সততা স্টোর' চালু করা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নির্দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে নৈতিক শিক্ষা চর্চার লক্ষ্যে পরীক্ষামূলকভাবে দোকানটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। আজ মঙ্গলবার  দুপুরে এ উপলক্ষে বিদ্যালয় চত্বরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু ছালেহ মো. মুসা জঙ্গী। তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. রেজাউল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সৈয়দপুর উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির (দুপ্রক) সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক তোফাজ্জল হোসেন লুতু, দুপ্রক সদস্য ও সানফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. মোখলেছুর রহমান জুয়েল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আমিনুর রহমান, জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক মো. আনোয়ারুল হাফিজসহ অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে প্রধান অতিথি ইউএনও আবু ছালেহ মো. মুসা জঙ্গী ফিতা কেটে বিক্রেতাবিহীন সততা স্টোর উদ্বোধন করেন। পরে তিনি এর সার্বিক কার্যক্রম প্রত্যক্ষ দেখেন।

প্রসঙ্গত, দুর্নীতি দমন কমিশনের নির্দেশে দুর্নীতি প্রতিরোধে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সততা ও নিষ্ঠাবোধ সৃষ্টি ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে গণসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে দেশবাপী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের নিয়ে সততা সংঘ গঠিত হয়েছে ইতিমধ্যে। দুদক এবার শিক্ষার্থীদের মাঝে নৈতিকতা ও সততা চর্চার লক্ষ্যে পরীক্ষামূলকভাবে বিক্রেতাবিহীন সততা স্টোর চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি বালক ও একটি বালিকা বিদ্যালয়ে সততা স্টোর গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার সৈয়দপুর উপজেলা শহরের  প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী তুলশীরাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দোকানটি  চালু করা হলো।

সততা স্টোর সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থাপিত সততা স্টোরের কোনো  বিক্রেতা থাকবে না। শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় শিক্ষা উপকরণ ও অন্যান্য জিনিসপত্র সাধারণ দোকানের মতো এখানে সাজানো থাকবে। প্রতিটি জিনিসের একটি মূল্য তালিকা টাঙানো থাকবে সেখানে। শিক্ষার্থীরা তার প্রয়োজনীয় জিনিসটি নিয়ে সততা স্টোরের রেজিস্ট্রারে তা লিপিবদ্ধ করে নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ করবে। জিনিসপত্রের মূল্য পরিশোধের জন্য সততা স্টোরে একটি ক্যাশবাক্সও রক্ষিত থাকবে। ওই বাক্সে জিনিসপত্রের মূল্যের অর্থ রেখে দিতে হবে। প্রতিদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ  সততা স্টোরের জিনিসপত্রের বিক্রির  হিসাব-নিকাশ করবে।  

আর/১৭:১৪/১৮ এপ্রিল

নীলফামারী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে