Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৮ এপ্রিল, ২০২০ , ২৪ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৯-২০১২

১০০ কোটি টাকার কয়েন কিনছে সরকার, খরচ ৬৩ কোটি টাকা


	১০০ কোটি টাকার কয়েন কিনছে সরকার, খরচ ৬৩ কোটি টাকা

দুই ও এক টাকা মূল্যমানের ১০০ কোটি টাকার ধাতব মুদ্রা (কয়েন) বানাচ্ছে সরকার। খরচ লাগছে ৬৩ কোটি টাকা। প্রতিটি দুই টাকা মূল্যমানের কয়েনের সংগ্রহ মূল্য দাঁড়াচ্ছে এক টাকা ০৯৬৬ পয়সা। জাপানের কোম্পানি ‘জাপান মিন্ট’ এসব ৫০০ মিলিয়ন বা ৫০ কোটি পিস কয়েন বানাবে। এসব কয়েন কেনার দর প্রস্তাব সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়েছে অর্থ বিভাগের ট্রেজারি ও ঋণ ব্যবস্থাপনা অনুবিভাগ। আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে মন্ত্রিসভা কমিটিতে বিষয়টি অনুমোদনের জন্য উঠবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বিষয়টি মন্ত্রিসভা কমিটিতে উঠবে বলে নিশ্চিত করেছেন। অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এ বছরের প্রথমদিকে বাংলাদেশ ব্যাংক দুই টাকা মূল্যমানের ৫০ কোটি পিস কয়েন বানানোর জন্য অর্থ বিভাগে একটি প্রস্তাব পাঠায়। অর্থ বিভাগ আন্তর্জাতিক দরপত্রের মাধ্যমে কয়েনগুলো কেনার জন্য অনুমতি দেয়। এরপর বাংলাদেশ ব্যাংক গত মে মাসে দরপত্র বিজ্ঞপ্তি জারি করে। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী জাপানের প্রতিষ্ঠান ‘জাপান মিন্ট’, স্লোভাকিয়ার প্রতিষ্ঠান ‘মিনকোভনা ক্রেমেনিকা’, ফ্রান্সের প্রতিষ্ঠান ‘লা মোননাই ডি প্যারিস’, নেদারল্যান্ডসের প্রতিষ্ঠান ‘রয়েল ডাচ মিন্ট’, জার্মানির প্রতিষ্ঠান ‘বেভারিয়ান স্টেট মিন্ট’, স্পেনের প্রতিষ্ঠান ‘রিয়েল কাসা ডি লা মনিডা’ এবং যুক্তরাজ্যের প্রতিষ্ঠান ‘বারক্লেইস কর্পোরেট’ অংশ নেয়। এসব কোম্পানির মধ্যে জাপান মিন্ট ৫৪ কোটি ৮৩ লাখ ১৫ হাজার ৩১ টাকা, মিনকোভনা ক্রেমেনিকা ৬৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার পাঁচশ’ টাকা, লা মোননাই ডি প্যারিস ৬৫ কোটি ৫৬ লাখ পাঁচ হাজার ৯০ টাকা, রয়েল ডাচ মিন্ট ৭৭ কোটি ১৬ লাখ ৫৬ হাজার ৯৪০ টাকা, বেভারিয়ান স্টেট মিন্ট ৯০ কোটি ৭১ লাখ ১৩ হাজার ৪৯৮ টাকা, রিয়েল কাসা ডি লা মনিডা ৯১ কোটি ১২ লাখ ৪০ হাজার ২৫৩ টাকা এবং বারক্লেইস কর্পোরেট ১২৩ কোটি আট লাখ ৬৫ হাজার ৪২০ টাকা দর উল্লেখ করেন। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক গঠিত মূল্যায়ন কমিটি সাতটি দরপত্রের তুলনামূলক বিচার বিশ্লেষণ করে জাপানের কোম্পানিকে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে তাদের দরপত্র গ্রহণ করার জন্য সুপারিশ করেছে। এর ভিত্তিতে বিষয়টি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে পাঠিয়েছে অর্থ বিভাগ। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, ৫০ কোটি পিস করে এক টাকা ও দুই টাকা মূল্যমানের ধাতব মুদ্রা সংগ্রহের ব্যয় নির্বাহের জন্য ২০১২-২০১৩ অর্থবছরের বাজেটে ০৯০৩ টাকশাল খাতে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। ৫০ কোটি পিস দুই টাকা মূল্যমানের কয়েন সংগ্রহের জন্য সর্বনিম্ন দরদাতার দর প্রায় ৫৫ কোটি টাকা। তবে আনুষঙ্গিক ব্যয় ও বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হারের হ্রাস/বৃদ্ধি বিবেচনায় আরও অতিরিক্ত আট বা নয় কোটি টাকা অর্থাৎ আনুমানিক ৬২ বা ৬৩ কোটি টাকার প্রয়োজন হবে। বিষয়টি এভাবে বিবেচনায় নিতে মন্ত্রিসভা কমিটির সদয় বিবেচনা ও অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রিসভা কমিটিতে পাঠানো সার সংক্ষেপের শেষে বলা হয়েছে, অর্থ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী সারসংক্ষেপটি দেখেছেন ও অনুমোদন করেছেন এবং মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় পাঠানোর জন্য সম্মতি দিয়েছেন।        

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে