Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০ , ১৯ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৮-২০১২

বাংলাদেশে ভায়াগ্রা উৎপাদনে ১৩ কোম্পানিকে লাইসেন্স


	বাংলাদেশে ভায়াগ্রা উৎপাদনে ১৩ কোম্পানিকে লাইসেন্স

বাংলাদেশেই উৎপাদন হবে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট ভায়াগ্রা। উৎপাদিত সেই ভায়াগ্রা স্থানীয় বাজারে বিক্রি হবে। এ জন্য
 কমপক্ষে ১৩টি ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানিকে সরকারি পর্যায় থেকে লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। দেশে পুরুষত্ব কমে যাওয়া পুরুষের সংখ্যা ক্রমে বাড়ার কারণেই এ লাইসেন্স দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সরকারের ড্রাগ প্রশাসন বিষয়ক কর্মকর্তা শাহ রুহুল আমিন। তিনি বলেন, ওই কোম্পানিগুলোকে এ মাসেই অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে ওই লাইসেন্স বা ভায়াগ্রা উৎপাদন বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের চিকিৎসকরা। তারা আশঙ্কা প্রকাশ করছেন, এভাবে ভায়াগ্রা উৎপাদনের অনুমতি দেয়া হলে তা পুরুষত্বহীনতায় ব্যাপকভাবে ব্যবহার হবে। এতে দেখা দেবে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকি। বুধবার বার্তা সংস্থা এএফপিকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে টাইমস অব ওমান। এতে বলা হয়, বাংলাদেশ সরকারের ড্রাগ কন্ট্রোল কমিটি সমপ্রতি এক ডজনেরও বেশি ওষুধ প্রস্তুতকারককে সিলডেনাফিল সাইট্রেট, যা ভায়াগ্রা নামে বেশি পরিচিত, তা উৎপাদন ও বাজারজাত করার লাইসেন্স দিয়েছে। দশকব্যাপী চলমান নীতিকে উল্টে এটা করা হয়। কিন্তু বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছে। প্রায় ৩২ হাজার ডাক্তারের সংগঠন এটি। তারা ওই সিদ্ধান্তে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, লোকজন ব্যাপক হারে ভায়াগ্রা হাতের নাগালে পেলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি দেখা দেবে।
বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শরফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ভায়াগ্রা উৎপাদনের জন্য যে লাইসেন্স দেয়া হয়েছে তা বাতিল করতে আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাচ্ছি। আর কোন বিশেষজ্ঞ প্রেসক্রিপশনে এগুলো লিখলে তা জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে দেখা দেবে। এ বিষয়ে তাদের সংগঠন আগামী সপ্তাহে জরুরি বৈঠকে বসবে। ড্রাগ বা ওষুধ বিক্রিতে আইনকানুনের ঘাটতির বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তারা। শরফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, যে কোন ওষুধের দোকান থেকে যে কেউ যে কোন ধরনের ওষুধ কিনতে পারেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়া বিক্রি করতে নিষেধাজ্ঞা আছে এমন ওষুধও খোলামেলাভাবে বিক্রি হচ্ছে। ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে যৌন রোগে ভোগা পুরুষের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। এ বিষয়ে একটি টেকনিক্যাল পরিষদ সম্মতি দেয়ার পরই কেবল ভায়াগ্রা উৎপাদনের লাইসেন্স দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। বর্তমানে বাংলাদেশে যে কেউ ইচ্ছা করলেই ভায়াগ্রা কিনতে পারেন না। এ বিষয়ে সরকারের ড্রাগ প্রশাসন বিষয়ক এক কর্মকর্তা শাহ রুহুল আমিন বলেছেন, এ মাসে আমরা সিলডেনাফিল সাইট্রেট (ভায়াগ্রা) উৎপাদনের জন্য ১৩টি ওষুধ প্রস্তুতকারক কারখানাকে অনুমতি দিয়েছি। তিনি বলেন, এর আগে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে শুধু রপ্তানি করার জন্য এ ওষুধ প্রস্তুতের অনুমতি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন আমরা তা বাংলাদেশের বাজারে উৎপাদনের জন্য অনুমতি দিয়েছি। কারণ, এ বিষয়ে ইতিমধ্যে বিশেষজ্ঞরা মত দিয়েছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, ভায়াগ্রার অপব্যবহারে উচ্চ রক্তচাপ, হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক ও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে