Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (24 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৩-২০১৬

পাঞ্জাবের গ্রামে পূজা হচ্ছে জ্যান্ত গণেশের  

আশরাফ ইসলাম


পাঞ্জাবের গ্রামে পূজা হচ্ছে জ্যান্ত গণেশের

 

পাঞ্জাব, ১৩ নভেম্বর- শিল্প ও বিজ্ঞানের পৃষ্ঠপোষক, বুদ্ধি ও জ্ঞানের দেবতা কিংবা বিঘ্ননাশকারী রূপে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের কছে গুরুত্বপূর্ণ এক দেবতা গণেশ। হাতির মাথা আর চার হাত বিশিষ্ট গণেশ মুর্তি মন্দিরে স্থান পেয়ে লাভ করে ভক্তদের আরাধনা। তবে ভারতের পাঞ্জাবের জালন্ধরের একটি গ্রামে ৬ বছরের এক শিশুকে এখন গণেশ ঠাকুর হিসেবে পূজা করা হচ্ছে। বিরল রোগে আক্রান্ত এই শিশুটি স্থানীয়দের কাছে দেবতার প্রতিরূপ বলে বিবেচিত হচ্ছে।

প্রাণষু নামের শিশুটি বেশ কিছু শারিরীক ত্রুটি নিয়ে জন্মায়। ছয় বছর বয়সেই স্পষ্ট হয়ে যায় তার চোখ দুটি সরু ফলার মতো। মাথা শরীরের তুলনায় বেশ বড়। শারীরিক ভারসাম্যহীন এই বালক ভাল করে হাঁটতেও পারে না। তাকেই দেবতা জ্ঞান করে পূজা করছেন স্থানীয়রা।


দিনমজুর কমলেশের পাঁচ সন্তানের একজন প্রাণষু। দিনে আড়াইশ টাকা আয় করে সংসার চালানো কমলেশের অন্য তিন সন্তান স্বাভাবিক। প্রাণষুর আর এক ভাইয়ের শারিরীক অক্ষমতা রয়েছে। প্রাণষুর জন্মের পরই চিকিৎসক দেখানো হয়েছিলো। তারা জানিয়েছিলেন, ‘দূষণের কারণে তার এই রকম চেহারা।’


প্রতিদিন সহপাঠী থেকে শুরু করে স্কুলের শিক্ষকরা পর্যন্ত মাথা হেঁট করে আশীর্বাদ চেয়ে নেন ৬ বছরের এই শিশুর কাছে। শাসন করাতো দূরে থাক, ঈশ্বরের স্থানে বসিয়ে রীতিমতো পুজো করেন শিক্ষকরা। আর সেই গণেশরূপী বালক এক গাল হেসে, দু-হাত তুলে আশীর্বাদ দেয়। প্রাণষুর সহপাঠীরাও তাকে বিশেষ বিরক্ত করে না। যদি রেগে গিয়ে কিছু করে দেয় সে! গণেশ ঠাকুর বলে কথা!

তবে ভারতে দেবতা গণেশের জাগ্রত হওয়ার বেশ কিছু গল্প প্রচলিত রয়েছে। যার কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি। ১৯৯৫ সালে নয়াদিল্লীর একটি মন্দিরে দেবতা গণেশ দুধ খাচ্ছে বলে প্রচার হয়। মন্দিরের পুরোহিত মুর্তির মুখের কাছে চামচ ভর্তি দুধ নিয়ে যাওয়ার পর হঠাৎ তা অদৃশ্য হয়ে গেলে প্রচার হয় দুধ খেয়ে ফেলছে গণেশ। পরে এর ব্যাখ্যায় গবেষকরা জানান ‘ফুড কালারিং’র জন্যই এই ঘটনা ঘটেছিলো। পরবর্তীতে ২০০৬ সালে উত্তর প্রদেশের এক মন্দিরেও একইরমক ঘটনা ঘটে বলে প্রচার হয়। সেবার গণেশের সঙ্গে অন্য দুই দেবতা শিব এবং দুর্গার কথাও জানা যায়। তবে সেবারও এর পক্ষে কোন ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি।

সূত্র: আনন্দবাজার

এফ/১৮:১৯/১৩ নভেম্বর

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে