Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯ , ৪ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.2/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-২৬-২০১২

তাজের প্রতিদ্বন্দ্বী নয়, জনগণের জন্য নির্বাচন: রিমি

তাজের প্রতিদ্বন্দ্বী নয়, জনগণের জন্য নির্বাচন: রিমি
কাপাসিয়ার জনগণ অভিভাবকহীন। তাই তাদের অভিভাবকত্ব নিতেই নির্বাচনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদের কন্যা সিমিন হোসেন রিমি।
তিনি বলেছেন, “কাপসিয়ার জনগণ অভিভাবকহীন। তাদের অনুরোধ ও ভালবাসার কথা বিবেচনা করে নির্বাচনে সম্মত হয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর আমাকে সমর্থন দিয়েছেন।”
কাপাসিয়া আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে রোববার দুপুরে বনানীর ডিওএইচএস’র বাসায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সাংবাদিকদের এ বিষয়ক প্রশ্নের জবাবে বঙ্গতাজ তনয়া এ কথা বলেন।
এ সময় ছোট ভাই সোহেল তাজের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে তিনি নির্বাচন করছেন না বলেও জানিয়ে দেন সাংবাদিকদের।
এর আগে শনিবার আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসনের পদত্যাগী সাংসদ সোহেল তাজের বড় বোন সিমিন হোসেন রিমিকে দলের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেন।
আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর এ আসনের উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে রিমি বলেন,  “নির্বাচনের ব্যাপারে আমি বলেছিলাম- চিন্তা করে দেখবো। আর এটাকেই অনেকে পজিটিভ মনোভাব হিসেবে দেখেছেন। কাপাসিয়ার জনগণের এমন মনোভাব দেখে এক পর্যায়ে মনে হলো-  ফিরে আসাটা বোধহয় অন্যায় হবে। তাই সম্মত হয়েছি।”
কিন্তু এ নির্বাচনে পরিবারের সঙ্গে লড়াই করতে হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আশা করি সবার সহযোগিতা-সমর্থন পাবো। সোহেল তাজও মেসেজ পাঠিয়ে কনগ্রাচুলেট করেছে।”
ছোট ভাই সোহেল তাজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সবার একটা ব্যক্তি স্বাত্যন্ত্র রয়েছে। ওর কর্মক্ষেত্রে সে হয়তো সঠিক ছিল। তবে আমি বলতে পারি, ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আমি নির্বাচন করছি না।”
নিজের প্রসঙ্গে রিমি বলেন, “কাপাসিয়াতে আমি ছোটকাল থেকেই বিভিন্ন সামাজিক কাজ করছি। একটি পাঠাগার গড়েছি। শিশুদের সচেতন করার জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। স্কাউটস আন্দোলন করেছি। কাপসিয়ার প্রায় ৫০টি স্কুলকে এতে সম্পৃক্ত করেছি। মাদকবিরোধী আন্দোলন পরিচালনা করেছি।”
রাজনীতি প্রসঙ্গে রিমি বলেন, “আমি একটি বার্তা দিতে চাই, সেটা হচ্ছে রাজনীতি মানে জনকল্যাণ, মানুষের সেবা করা।”
এ সময় সাংবাদিকরা “সোহেল তাজ রাজনীতিতে এসেও কোন ছাড় দেননি, আপনি কি ছাড় দেবেন?’ জানতে চাইলে প্রসঙ্গ কিছুটা এড়িয়ে রিমি বলেন, “আমি মনে করি বুদ্ধি করে চললে সমস্যা হওয়ার কথা না।”
“সোহেল তাজ মন্ত্রিত্ব ছেড়েছেন বা ছেড়ে দিতে হয়েছে-এমন অবস্থায় আপনাকে মন্ত্রিত্ব দেওয়া হলে তা গ্রহণ করবেন কি না” জানতে চাইলে তিনি বলেন, “মন্ত্রিত্ব করতে চাই না, কর্মী হিসেবে কাজ করতে চাই।”
উপ-নির্বাচনে বিএনপিকেও অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান সিমিন হোসেন রিমি।
আগামী ২৯ আগস্ট নির্বাচনী এলাকায় যাওয়ার কথা রয়েছে তার।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে