Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ২ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১৭-২০১১

লিবিয়ার ত্রিপোলিতে গুঁড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে গাদ্দাফির বাসভবন

লিবিয়ার ত্রিপোলিতে গুঁড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে গাদ্দাফির বাসভবন
লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ক্ষমতাচ্যুত নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির বাসভবন বাব আল আজিজিয়া। সশস্ত্র রক্ষীদের নিয়ে দুটি বুলডোজার গাদ্দাফি আমলের ওই বাসভবনের চারপাশের দেয়াল গুঁড়িয়ে দিতে শুরু করেছে। ত্রিপোলিতে ছয় বর্গ কিলোমিটার জায়গা নিয়ে তৈরি বাব আল আজিজিয়া ছিল একইসঙ্গে গাদ্দাফির বাসভবন ও ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দু। এ অভিযানে ঘটনাস্থলে যোদ্ধাদের দায়িত্বে নিয়োজিত এতমান লেকতাহ বলেন, গাদ্দাফির সব কিছু ধ্বংস না করা পর্যন্ত আমরা কাজ চালিয়ে যাবো। তিনি আরো বলেন, আমরা গাদ্দাফির জায়গায় একটি শান্তি সংগঠন গড়ে তুলতে চাই। উল্লেখ্য, লিবিয়ায় বর্তমানে ন্যাশনাল ট্রান্সিশনাল কাউন্সিল (এনটিসি) ক্ষমতাসীন হওয়ার আগে যুদ্ধ চলাকালে এ বাসভবনে বেশ কয়েকবার ন্যাটোর বিমান হামলা হয়েছে।

এছাড়া লিবিয়ার ন্যাশনাল ট্রানজিশনাল কাউন্সিলের (এনটিসি) দাবি, তাদের বাহিনী ক্ষমতাচ্যুত নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির অনুগতদের দখলে থাকা বানি ওয়ালিদ শহরে ঢুকে পড়েছে। শহরটি রাজধানী ত্রিপোলির প্রায় ১৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্বে। এনটিসির সামরিক কমান্ডাররা জানিয়েছেন, এনটিসি বাহিনী বানি ওয়ালিদে নতুন করে অভিযান শুরু করেছে। এনটিসির কমান্ডার জামাল সালেম জানান, আমরা সকালে শহরের দক্ষিণ পশ্চিম এলাকা দিয়ে আক্রমণ করি। বিকেলে আমাদের লোকেরা শহরের ভেতরে ঢুকে পড়ে। তবে গাদ্দাফির অনুগত বাহিনী ব্যাপক প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে। এদিকে গাদ্দাফির নিজ শহর সারতে এখনো এনটিসি বাহিনীর সঙ্গে গাদ্দাফি বাহিনীর সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে। এনটিসির দাবি, সারতের অধিকাংশ এলাকাই তারা নিয়ন্ত্রণ করছে। বর্তমানে গাদ্দাফি বাহিনী শুধু বানি ওয়ালিদ ও সারতে নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে লড়াই চালিয়েছে যাচ্ছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে