Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ , ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (28 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-২৩-২০১২

চলে গেলেন আজাদ হিন্দ ফৌজের ক্যাপ্টেন লক্ষ্ণী সেহগল

দীপক রায়


চলে গেলেন আজাদ হিন্দ ফৌজের ক্যাপ্টেন লক্ষ্ণী সেহগল
সোমবার উত্তরপ্রদেশের কানপুরে প্রয়াত হলেন প্রবীণ স্বাধীনতা সংগ্রামী, নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর আজাদ হিন্দ ফৌজের ক্যাপ্টেন, ভারতের বামপন্থী আন্দোলনের নেত্রী, প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ লক্ষ্ণী সেহগল। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর। গত কয়েকদিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন আজাদ হিন্দ ফৌজের ঝাঁসি রানি ব্রিগেডের এই কম্যান্ডার। তারপর থেকেই কোমায় চলে যান তিনি। নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর অতি স্নেহের এই কিংবদন্তী স্বাধীনতা সংগ্রামীর মৃত্যুতে গোটা দেশজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কানপুরের মেডিক্যাল কলেজে দেহ দান করে দিয়ে গিয়েছেন তিনি। তাই তার দেহের কোন পারলৌকিক কাজ হবে না।
১৯১৪ সালে ভারতের মাদ্রাজে জন্ম হয়েছিল লক্ষ্মী স্বামীনাথনের। তার বাবা এস স্বামীনাথন ছিলেন মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী। মা আম্মু স্বামীনাথন ছিলেন বিশিষ্ট সমাজকর্মী তথা স্বাধীনতা সংগ্রামী। ১৯৩৮ সালে মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডাক্তারি এমবিবিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপরে ১৯৪০ সালে ভারতীয় উদ্বাস্তুদের বিনামূল্যে চিকিত্‍সা পরিষেবা দিতে, সিঙ্গাপুরে যান লক্ষ্মী
স্বামীনাথন। ১৯৪৩ সালে এই সিঙ্গাপুরেই নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর সান্নিধ্যে আসেন তিনি। তারপরেই ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল আর্মি বা আজাদ হিন্দ ফৌজে মহিলা বাহিনী গঠনের দায়িত্ব বর্তায় লক্ষ্মী স্বামীনাথনে কাঁধে। তাঁর নেতৃত্বেই গঠিত হয় ঝাঁসির রানি ব্রিগেড। ১৯৪৭ সালে আজাদ হিন্দ ফৌজের কর্নেল প্রেমকুমার সেহগলের সঙ্গে বিবাহ সুত্রে বাঁধা পড়েন লক্ষ্মী সেহগাল। তারপর থেকে পাকাপাকি ভাবে চলে যান কানপুরে। সেখানে তারা দুজনে সমাজসেবায় ব্রতী হন। ১৯৭১ সালে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) দলের সদস্য হন লক্ষ্মী সেহগল। ১৯৭১ সালেই নির্বাচিত হন সাংসদ হিসাবে। তাঁর কন্যা সুহাসিনী আলি কানপুর থেকে অনেকবার সাংসদ হয়েছেন ভোটে জিতে। তার কন্যা সুহাসিনী আলী এখনো সিপিআইএম দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যা। বলা যেতে পারে আপাদমস্তক বামপন্থী পরিবার। এহেন লক্ষ্মী সায়গলকে ২০০২ সালে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বামপন্থীরা প্রার্থী করেছিল। যদিও তিনি জয়লাভ করতে পারেননি।
তার প্রয়ানের পরে দেশের সব রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে