Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (12 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৬-২৮-২০১২

‘হার্ডওয়্যার বিবেচনায় আইপ্যাডের চেয়ে সারফেস ভালো’

‘হার্ডওয়্যার বিবেচনায় আইপ্যাডের চেয়ে সারফেস ভালো’
২০১০ সালে স্টিভ জবস’র অ্যাপল কোম্পানি আইপ্যাড নিয়ে এলে সেটা নিয়ে বিশ্বের কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের মধ্যে হৈচৈ পড়ে যায়৷ সেটা সামাল দিতেই এরপর আরো অনেকে ট্যাবলেট কম্পিউটার তৈরি করে৷
কিন্তু সে অর্থে আইপ্যাড’র প্রতিদ্বন্দ্বি হতে পারেনি কোনোটিই৷ কিন্তু এবার বোধহয় তার ব্যতিক্রম হতে যাচ্ছে৷

বিখ্যাত সফটওয়্যার প্রস্তুতকারক মাইক্রোসফট এবার ট্যাবলেট নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছে৷ যার নাম ‘সারফেস'৷ মাইক্রোসফট’র পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট করে কোনো দিনের কথা না বললেও প্রযুক্তি বিশ্লেষকদের ধারণা সেপ্টেম্বর বা অক্টোবর মাস থেকে এটি বাজারে পাওয়া যেতে পারে৷ আর দামটা যে আইপ্যাড’র মতোই হতে পারে সেটা অবশ্য মাইক্রোসফটই বলেছে৷

‘সারফেস' নিয়ে ইতিমধ্যে প্রযুক্তি বিষয়ক সাংবাদিকরা বেশ উৎসাহ দেখিয়েছেন৷ তারা মনে করছেন, সারফেস সত্যি সত্যিই আইপ্যাড’র একটা শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বি হয়ে উঠতে পারে৷

আইপ্যাড ব্যবহারকারীরা যে ধরনের খুঁটিনাটি সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন মাইক্রোসফট চেষ্টা করেছে সেগুলো পুষিয়ে দিতে৷ যেমন আইপ্যাডে ভার্চুয়াল কিপ্যাড রয়েছে বটে৷ কিন্তু অনেককিছু লিখতে গেলে সেটাতে হয়তো অনেকেই স্বাচ্ছন্দবোধ করেন না৷ ফলে বাধ্য হয়ে অনেক ব্যবহারকারীকেই অতিরিক্ত টাকা খরচ করে কিবোর্ড কিনতে হচ্ছে৷ কিন্তু সারফেস’এ সে সমস্যাটা থাকছে না৷ কেননা এতে যে কাভারটি ব্যবহার করা হয়েছে, তাতেই কিবোর্ড রয়েছে৷

এছাড়া আইপ্যাড'কে ডেস্কটপ কম্পিউটারের মতো দাঁড় করিয়ে কেউ যদি মুভি দেখতে চান তাহলে তার কোনো ভালো ব্যবস্থা নেই৷ সেজন্য আবারও টাকা খরচ করে স্ট্যান্ড কিনতে হবে৷ কিন্তু সারফেস'এ সে সমস্যারও সমাধান রাখা হয়েছে৷ ফলে কেউ চাইলেই সারফেস’র পেছন দিকটি সামান্য কাত করে ট্যাবলেট'কে দাঁড় করিয়ে দিতে পারবেন৷

এমনি নানান সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কথা হচ্ছিল আইপ্যাড ব্যবহারকারী হাবিবুল্লাহ এন করিমের সঙ্গে৷ তিনি বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস বেসিস’র সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং টেকনোহেভেন কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা৷

সারফেস নিয়ে তাকে বেশ উচ্ছ্বসিত দেখা গেল৷ তিনি বললেন, “হার্ডওয়্যার’র কথা বিবেচনা করলে আইপ্যাড’র চেয়ে সারফেস ভালো৷ প্রসেসরের গতি, প্রসেসরের মেমোরি এসব দিক বিবেচনা করলে সারফেস ভালো৷ তবে স্ক্রিন রেজ্যুলেশনের দিকে দিয়ে আইপ্যাড’ই এগিয়ে থাকবে৷”

এরপর করিম নজর দিয়েছেন অপারেটিং সিস্টেমের দিকে৷ আইপ্যাড ব্যবহারকারীদের জন্য যেটা একটা বড় সমস্যা৷ সারফেস’র ক্ষেত্রে উইন্ডোজ এইট আর উইন্ডোজ আরটি অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হবে বলে জানানো হয়েছে৷ ফলে সাধারণ ওয়ার্ড, এক্সেল আর পাওয়ার পয়েন্ট সফটওয়্যার ব্যবহার করা যাবে সারফেস'এ৷ করিম বলছেন, “যারা দাফতরিক বা লেখাপড়ার জন্য প্রতিদিন মাইক্রোসফট’র সফটওয়্যারগুলো ব্যবহার করেন তাদের জন্য সারফেস বেশ কাজের হবে৷”

তবে একটা বিষয়ে আইপ্যাড'কে আপাতত এগিয়ে রাখছেন করিম৷ সেটা হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশন বা যাকে সংক্ষেপে বলা হয় ‘অ্যাপ'৷ কেননা আইপ্যাড উপযোগী প্রায় সাড়ে ছয় লাখ অ্যাপ ইতিমধ্যে তৈরি হয়ে গেছে৷ সেখানে সারফেস আসলে উইন্ডোজ এইট বা আরটি উপযোগী অ্যাপ তৈরি হতে একটু সময় লাগতে পারে৷ তিনি বলেন, “সারফেস উপযোগী অ্যাপ কত দ্রুত পাওয়া যাবে সেটা একটা বড় প্রশ্ন৷ তবে আমার মনে হয় মাইক্রোসফট যেহেতু এত বড় একটা কোম্পানি, তারা নিশ্চয়ই এই বিষয়টার দিকে নজর রাখছে৷”

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে