Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯ , ৩ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১০-২০১৬

দক্ষিণ চীন সাগরে ‘তর্জন গর্জন’ নয়: যুক্তরাষ্ট্র

দক্ষিণ চীন সাগরে ‘তর্জন গর্জন’ নয়: যুক্তরাষ্ট্র

ক্যালিফোর্নিয়া, ১০ ফেব্রুয়ারী- দক্ষিণ চীন সাগরের ছোট কয়েকটি দ্বীপের মালিকানা নিয়ে চীনের সাথে দীর্ঘদিন ধরেই চলে দ্বন্দ্ব আসছে যুক্তরাষ্ট্রের। বিতর্কিত ওই সাগরটিতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ নোঙ্গর করাকে কেন্দ্র করে প্রায়ই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে আন্তর্জাতিক অঙ্গন। সেই দক্ষিণ চীন সাগর সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য এবার চীনকে কঠোর হুশিয়ারি দিতে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।  

ছোট ছোট প্রতিবেশি দেশগুলোর সাথে চীনের ‘তর্জন-গর্জন’ বন্ধ করা উচিত বলে মনে করছেন তিনি। বুধবার আল জাজিরা জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথ ইস্ট এশিয়ান নেশনসের (আশিয়ান) নেতাদের সাথে বৈঠকের জন্য তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ওবামা। আর এ বৈঠকেই তিনি চীনকে এ হুশিয়ারি জানাবেন।       

এদিকে রয়টার্স জানিয়েছে, দক্ষিণ চীন সাগরে যৌথ টহলদারি শুরু করতে যাচ্ছে ভারত ও আমেরিকার নৌসেনারা। আর এই খবরে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে এশিয়া মহাদেশের বিশাল জলসীমায় । দক্ষিণ চীন সাগরকে নিজেদের এলাকা বলে দাবি করা চীন মোটেই খুশি হতে পারেনি এই যৌথ টলহদারির খবরে। তবে চীনের আশার কথা হল, ভারতীয় নৌসেনারা যৌথ টহলদারির পরিকল্পনার কথা এখনও সরকারিভাবে স্বীকার করেনি।

বিশ্লেষকরা বলছেন, আমেরিকার সঙ্গে ভারতের সামরিক সমঝোতা গত এক দশকে অনেক বেড়েছে। ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্বে এক সময় খোলাখুলিভাবে পাকিস্তানের পক্ষে থাকা আমেরিকা মেরু বদলে এখন ভারতের পাশে। এর আগে পাকিস্তানকে গোটা বিশ্বের সন্ত্রাসবাদীদের ভবিষ্যত্‍ রাজধানী বলে মন্তব্য করেছিলেন বারাক ওবামা।

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে