Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ , ১১ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (29 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১১-২০১১

স্কার্টে স্মার্ট

স্কার্টে স্মার্ট
ঋতুটা শরৎ হলেও গরম কিন্তু এখনো ভালোভাবেই অনুভূত হচ্ছে। তাই আরামের কথা না ভাবলে কি চলে! অন্যদিকে ফ্যাশন ট্রেন্ডও তো মাথায় রাখতে হয়। আঁটসাঁট পোশাকের পরিবর্তে সবাই চান কিছুটা ঢিলা আর আরামদায়ক পোশাক পরতে। তাই কিশোরী কিংবা তরুণীরা বেছে নিতে পারেন ঢিলেঢালা পোশাক স্কার্ট।
ফ্যাশন হাউস আড়ংয়ের বিপণন কর্মকর্তা তাসনিম হোসেন বলেন, আড়ংয়ের ?তাগা? তরুণ বয়সের বৈশিষ্ট্য চঞ্চলতার কথা মাথায় রেখেই এমন পোশাক ডিজাইন করে, যা পরে তারা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবে।
স্কার্ট একাধারে আরামদায়ক ও ফ্যাশনেবল পোশাক। আড়ং সাধারণত তিন ধরনের স্কার্ট করে থাকে। ট্রাইবাল মোটিফ ও গাঢ় রঙের ব্যবহারে ট্রাইবাল স্কার্ট, লেস ও পাড় বসানো ক্লাসিক স্কার্ট। এ ছাড়া কাপড়ের ওপর সুতা আর পুঁথির কাজ করা স্মার্ট টেইলারিং স্কার্ট। তাগার স্কার্টের ঝুল কিছুটা লম্বা, আর কাপড় নির্বাচনে সুতি এবং হাতে তৈরি কাপড়ের প্রাধান্য রয়েছে।
এগুলো ব্যবহারে আরামদায়ক। ক্লাসে, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার সময় কিংবা রাতের অনুষ্ঠানেও পরার উপযোগী এ পোশাক। স্লিভলেস, ছোট হাতা, ম্যাগি কিংবা থ্রিকোয়ার্টার?যেকোনো ধরনের হাতার টপসের সঙ্গে স্কার্ট মানায়। চাইলে টি-শার্টের সঙ্গেও স্কার্ট পরা যায়। আড়ংয়ের স্কার্ট কেনা যাবে ৫০০ থেকে এক হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে।
ফ্যাশন হাউস যাত্রার ঢাকা, গুলশান শাখার প্রধান সুকান্ত দে বলেন, যাত্রার স্কার্টের নকশা করা হয় সাধারণত বিভিন্ন থিমের ওপর। এখন খুব চলছে ?রিসাইকেল?, অর্থাৎ, পুরোনো জিনিসের নতুন ব্যবহার। আর এ থিমের ওপর ভিত্তি করেই পুরোনো কাপড় ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে স্কার্ট। যাত্রার বিশেষ আয়োজন ?রিকশা পেইন্ট?-এর স্কার্ট তো আছেই।
যাত্রার স্কার্টের ঝুল আর ডিজাইনের তারতম্য খুব বেশি। লম্বা, মাঝারি ও শর্ট স্কার্টও মিলবে এখানে। আবার কয়েক পরত কাপড়ের ডিজাইনের সঙ্গে পুঁতি আর ফিতা দেওয়া স্কার্টও আছে। চাইলে ফিতাটা দিয়ে থামির মতো পেঁচিয়ে এবং এক পাশে বেঁধেও পরা যাবে এ স্কার্ট। যাত্রার স্কার্ট কেনা যাবে ৮৮৫ থেকে দুই হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে।
ফ্যাশন হাউস ড্রেসিডেলের প্রধান নির্বাহী মায়া রহমান বলেন, আরামের সঙ্গে ফ্যাশনের কথা বললে কিশোরী কিংবা তরুণীরা প্রথমেই বেছে নেয় স্কার্ট। ড্রেসিডেল সুতি কাপড়ের মধ্যে দুই ধরনের স্কার্ট করে। মাছের মতো ওপর থেকে চাপা হয়ে নিচে ঢোলা এবং ঘেরে বেশি হলে তাকে বলে ?ফিশ স্কার্ট?। আবার ঢোলের মতো এক ধরনের ঢোলা স্কার্ট ডিজাইন করে তারা। আর এ স্কার্ট সবই ফুলের মোটিফ ব্যবহারে ডিজাইন করা। কেনা যাবে এক হাজার ৮০০ থেকে চার হাজার টাকার মধ্যে।
দেশী ঢংয়ের পোশাকের বাইরে কিছুটা পশ্চিমা ধাঁচের স্কার্ট চাইলে চলে যেতে পারেন একস্ট্যাসিতে। তাদের প্রধান ডিজাইনার তানজীম হক বলেন, বিশ্বজুড়ে এখন জনপ্রিয় স্ট্রেট স্কার্ট, ফুল স্কার্ট, শর্ট স্কার্ট, বেল শেপ স্কার্ট, এ লাইন স্কার্ট, প্লিটেড স্কার্ট, সার্কেল স্কার্ট, হবল স্কার্ট প্রভৃতি। মূলত বয়স ও শরীরের গড়ন অনুসারে এই স্কার্টগুলো পছন্দ করে সবাই। যাদের উচ্চতা তুলনামূলক কম, তাদের বেশি ঘেরের স্কার্ট না পরাই ভালো। একস্ট্যাসির প্রধান নির্বাহী আশা হকের মতে, এ দেশে স্কার্ট পরে মূলত ১২ থেকে ২৫ বছর বয়সের কিশোরী ও তরুণীরা। তাদের কাছে বৈচিত্র্যময় কাটিংয়ের জনপ্রিয়তা বেশি। একস্ট্যাসির অধিকাংশ স্কার্টই উজ্জ্বল রঙের। কোমরে ও নিচের অংশে ইয়োকের কাজ করা। তাতে ফিটিং ভালো হয়।
কেনা যাবে ২৪৮০-২৮০০ টাকার মধ্যে।
ফ্যাশন হাউস অরণ্যতে পাবেন প্রাকৃতিক রং ব্যবহারে তৈরি স্কার্ট।
এ ছাড়া ঢাকার বসুন্ধরা সিটি, নিউমার্কেট, চাঁদনী চক ও ধানমন্ডি হকার্স মার্কেট থেকে সুতি কিংবা সিনথেটিক কাপড়ের স্কার্ট কিনতে পারবেন।

বলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে