Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.5/5 (16 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৫-০৬-২০১২

সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র: হিলারি

মান্নান মারুফ


সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র: হিলারি
ঢাকা, ৫ মে: বাংলাদেশের পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার রাতে বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে বাংলাদেশ সফররত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এ সময় আলোচনার মাধ্যমে অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রেক্ষাপট তৈরির তাগিদ দেন তিনি।

হিলারি বলেন, ``যুক্তরাষ্ট্র চায় বাংলাদেশের পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হোক। তাতে সব দল অংশ নিক। আলোচনার মাধ্যমে সব দলের নির্বাচনে অংশগ্রহণের পরিবেশ তৈরি করা হোক।``

জবাবে খালেদা জিয়া জানান, তার দলও চায় সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন।

নিরপেক্ষ নির্বাচনে আগামীতে বিএনপি ক্ষমতায় গেলে জাতীয় ঐক্যের ভিত্তিতে দেশের স্থিতিশীলতা ও শান্তি বজায় রাখার চেষ্টা করবে বলেও হিলারিকে জানান খালেদা জিয়া।

বৈঠক শেষে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান। তবে বৈঠক শেষে হিলারির পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানানো হয়নি।

এর আগে রাত ন’টা ২২ মিনিটে গুলশানে খালেদা জিয়ার ব‍াসায় যান হিলারি। রাত দশটা ২২ মিনিটের পর বেরিয়ে যান তিনি।

এদিকে সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে খালেদা জিয়ার বাসায় নিরাপত্তা অবস্থান গ্রহণ করে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) কর্মীরা।

হিলারির সঙ্গে সাক্ষাৎকালীন বৈঠকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, ভাইস-চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিএনপির ‘নিখোঁজ’ নেতা এম ইলিয়াস আলীর শিশুকন্যা সাইয়ানা নাওয়ালও ছিল সেখানে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন দু’দিনের সফরে বাংলাদেশে আসেন শনিবার বিকেলে। খালেদা জিয়ার বাসায় যাওয়ার আগে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। এরপর যৌথ সংবাদ সম্মেলনেও অংশ নেন তারা। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও দেখা করেন হিলারি।

এদিকে খালেদা জিয়ার বাসায় হিলারির আগমন উপলক্ষে পুরো গুলশান এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। পুলিশ আর র‌্যাব ছাড়াও মোতায়েন করা হয় যুক্তরাষ্ট্রের স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) একদল চৌকস সদস্য। এ সময় বন্ধ করে দেওয়া হয় গুলশান ২ নম্বরের ৭৯ নম্বর রোড।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে