Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৯ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (3 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১৬-২০১৫

২০১৬ সালের পরেও আফগানিস্তানে সেনা মোতায়েন রাখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

২০১৬ সালের পরেও আফগানিস্তানে সেনা মোতায়েন রাখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

ওয়াশিংটন, ১৬ অক্টোবর- আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা উপস্থিতির সময়সীমা আরও বাড়াতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তালেবানের তৎপরতা বেড়ে যাওয়ার কথা বলে আফগানিস্তানে ২০১৬ সালের পরও সেনা মোতায়েন রাখতে চায় দেশটি। প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বরাতে বৃহস্পতিবার খবরটি জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। আফগান নেতাদের সঙ্গে কয়েকমাস ধরে চলা ওবামার বৈঠকের পর এমন সিদ্ধান্ত এলো।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে আফগানিস্তানে অবস্থান করা ৯,৮০০ মার্কিন সেনা ২০১৬ সাল পর্যন্ত থাকবে । প্রথমে সব সেনাসদস্যদের সরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত থাকলেও এখন বলা হচ্ছে ২০১৭ সালের শুরুর দিকে ৫,৫০০ সেনাসদস্য আফগানিস্তানে অবস্থান করবে এবং বিভিন্ন এলাকায় মোতায়েন থাকবে।

মার্কিন প্রশাসনের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানান আফগান সেনাদের কিভাবে সাহায্য করা যায় এনিয়ে কয়েক দফা বৈঠক হয়। 
মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, কয়েকমাসের পর্যবেক্ষণ শেষে প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

গেল মাসের শেষদিকে আফগানিস্তানের কুন্দুজ শহর দখলে নেয় তালেবান সেনারা। কুন্দুজের এই হারেই ন্যাটো সেনাদের উপর ঝড় বয়ে যায়। এবং তারা তাদের সেনাবাহিনী আরো শক্তিশালী করার সিদ্ধান্ত নেয়। ২০০১ সালের পর এটাই এখন পর্যন্ত তালেবানদের সবচেয়ে বড় সাফল্য বলে উল্লেখ করে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

সূত্র: বিবিসি ও আল-জাজিরা

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে