Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ , ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 1.3/5 (33 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১০-২০১৫

আবারও রক্তাক্ত যুক্তরাষ্ট্রের দুই বিশ্ববিদ্যালয়

আবারও রক্তাক্ত যুক্তরাষ্ট্রের দুই বিশ্ববিদ্যালয়

ওয়াশিংটন, ১০ অক্টোবর- যুক্তরাষ্ট্রে এক ঘণ্টার ব্যবধানে দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর হামলায় দুজন নিহত হয়েছেন। নর্দান অ্যারিজোনা ইউনিভার্সিটিতে গুলিবর্ষণের প্রথম ঘটনাটি ঘটে। এতে একজন নিহত এবং তিনজন আহত হন। এই ঘটনার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই টেক্সাস সাউদার্ন ইউনিভার্সিটিতে অপর এক গুলিবর্ষণের ঘটনায় একজন নিহত হন।

অ্যারিজোনার ঘটনায় সন্দেহভাজন অপরাধী হিসেবে একজনকে সনাক্ত করেছে পুলিশ। গুলি চালিয়ে একজনকে হত্যা ও তিনজনকে আহত করার জন্য স্টিভেন জোনস নামে ১৮ বছরের এক শিক্ষার্থীকে দায়ী করেছে পুলিশ। সামাজিক মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে জোনসের একটি ছবিও পেয়েছে তারা।

মাত্র কয়েকদিন আগে ওরেগন বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর হামলায় ১২ জন নিহতের শোক পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠার আগে আবারও রক্তাক্ত হলো দুটি মার্কিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ওরেগনে নিহত-আহতদের স্বজনদের সমবেদনা জানাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সফরের খবরের মধ্যেই আবারও শিক্ষাঙ্গনে চললো গুলি।


মার্কিন স্কুলে ৩ বছরে ১৪২টি গুলিবর্ষণের ঘটনা
যুক্তরাষ্ট্রে স্কুল-কলেজে রক্তাক্ত অধ্যায়ের সর্বশেষ সংযোজন ওরেগন হত্যাকাণ্ড। এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার পরিসংখ্যান তুলে ধরা সংস্থা ‘ম্যাস শুটিং ট্রাকার’ এর তথ্যানুযায়ী ২০১২ সালের স্যান্ডি হুক হত্যাকাণ্ডের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মোট ১৪২টি গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

আর সব মিলিয়ে ২০১৫ সালেই নির্বিচারে গুলি চালানোর ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটেছে। এ বছরের ২৭৪ দিনে যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে ২৯৪ টি এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে ওয়াশিংটন পোস্ট। এসব হামলার মধ্যে ৪৫ টি সংঘটিত হয় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে।

এসব ঘটনার জন্য আগ্নেয়াস্ত্রের সহজলভ্যতাকে দায়ী করা হলেও কার্যকর কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় বারবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রক্তাক্ত হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের পর মার্কিন গণমাধ্যমের কাছে হোয়াইট হাউস সেক্রেটারি জশ আর্নেস্ট জানান, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে ওবামা প্রশাসন সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে। তবে বিষয়টিকে আইনি ভিত্তি দিতে সাধারণ মার্কিনীদের সমর্থন প্রয়োজন হলেও কাঙ্ক্ষিত সাড়া মেলেনি।

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে