Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৭ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.3/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৪-২০১৫

সমকামী পাদ্রীকে অব্যাহতি দিলো ভ্যাটিকান

সমকামী পাদ্রীকে অব্যাহতি দিলো ভ্যাটিকান

রোম ০৪ অক্টোবর- ভ্যাটিকানে সেন্ট পিটার বাসিলিকা উদযাপন করবেন পোপ ফ্রান্সিস। তবে এর আগেই সমকামী বিতর্কে জর্জরিত দেশটির গীর্জা। সম্প্রতি জনসম্মুখে সমকামী হওয়ায় কথা প্রকাশ পাওয়ায় এক জ্যেষ্ঠ পাদ্রীকে বরখাস্ত করেছে ভ্যাটিকান কর্তৃপক্ষ। চার্চের প্রধান ধর্মযাজকরা একটি বৈঠকের মাধ্যমে এই সিদ্ধান্ত নেয়। এদিকে যৌনবিষয়ক সিদ্ধান্ত নিতে আরো সতর্কভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস।

শনিবার এক বিবৃতির মাধ্যমে পোপ ফ্র্যান্সিস এর এক মুখপাত্র জানায়, পোলিশ পাদ্রী ক্রিজিসতোফ চরমসা এর বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সে দ্বায়িতজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে। তাই ভ্যাটিকানের ধর্মতত্ত্ববিদের দায়িত্ব থেকে স্বাভাবিকভাবেই তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। চরমসা ভ্যাটিক্যান অফিসের একজন মধ্যম শ্রেণীর কর্মকর্তা। আর দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পেয়ে তিনি বেশ খুশিই। তিনি বলেন, আমি এখন শেকলমুক্ত এবং আমি খুবই খুশি।

৪৩ বছর বয়সী চরমসা আরো বলেন, লিঙ্গগত সংখ্যালঘুদের হয়ে কাজ করতে চান তিনি। তাদের পরিবার যে নীরবে কষ্ট সয়ে যাচ্ছে তাদের হয়েও কাজ করার ইচ্ছা তার। এছাড়া গীর্জায় সমকামীতার বিরুদ্ধে ১০ পয়েন্টের একটি স্বাধীনতার ম্যানিফেস্টো উপস্থাপন করেন তিনি। তার মতে, গীর্জার বেশিরভাগ পাদ্রীরাই সমকামীদের উপর অত্যাচার চালায়। ভ্যাটিকান ব্যুরোক্রেসির সঙ্গে যুক্ত থাকার ১২ বছরের অভিজ্ঞতা নিয়ে একটি বইও লিখবেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমি আমার এই বেরিয়ে আসাকে সকল সমকামী পাদ্রীদেরকে উৎসর্গ করছি। আমি তাদের সুখ কামনা করছি। যদিও আমি জানি আমি যেই সাহস করেছি, অনেকেই সেই সাহস করবেন না।’ এসময় গীর্জা কর্তৃপক্ষকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আমি সমকামীর বিরুদ্ধে তাদের বিরক্তির বিরোধীতা করি। চোখ মেলে তাকান তাহলে সমকামী মানুষদের দুর্দশা বুঝতে পারবেন আপনারা।’

আর এর পরিপ্রেক্ষিতেই প্রায় তিনশ গীর্জা নেতারা বৈঠকে বসবেন। ক্যাথলিক সমকামীদের নিয়ে আলোচনা ছাড়াও বিয়ের আগে কিংবা তালাকের পরে সহবাস করাটাকে কিভাবে দেখা হবে সে বিষয়েও আলোচনা করা হবে। যৌনবিষয়ক সিদ্ধান্ত নিতে আরো সতর্কভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস।

বিবিসির ধর্ম বিষয়ক প্রতিনিধি জানায়, গীর্জা হয়তো তাদের অনঢ় অবস্থান থেকে সরে আসতে পারে তবে ঐতিহ্যবাদীরা আশঙ্কা করছেন এতে করে ক্যাথলিক বিশ্বাসের উপর বিরুপ প্রভাব পড়তে পারে। 

সূত্র: আল-জাজিরা, বিবিসি

ইউরোপ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে