Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.8/5 (41 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৪-২০১৫

যুক্তরাষ্ট্রে ১০০ নারীর ১০০ মাইল পদযাত্রা

যুক্তরাষ্ট্রে ১০০ নারীর ১০০ মাইল পদযাত্রা

ওয়াশিংটন, ২৪ সেপ্টেম্বর- লক্ষাধিক বাংলাদেশিসহ প্রায় সোয়া কোটি অবৈধ ইমিগ্র্যান্টকে বৈধতা প্রদানের দাবি আদায়ের লক্ষ্যে অভিনব এক কর্মসূচি পালন করলেন আমেরিকান নারীরা। পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের ইয়র্ক সিটিতে অভিবাসীদের আটক রাখার ডিটেনশন সেন্টারের সামনে থেকে ১০০ নারী পায়ে হেঁটে ১০০ মাইল পথ অতিক্রম করে ওয়াশিংটন ডিসিতে ক্যাপিটল হিলের সামনে পৌঁছন ২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার। এদিনই খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসও ডিসিতে পৌঁছেন। পোপের মাধ্যমে মার্কিন কংগ্রেসে প্রভাব বিস্তারের অভিপ্রায়ে ১৫ সেপ্টেম্বর এই পদযাত্রা শুরু হয়েছিল।

ইমিগ্র্যান্টদের প্রতি সদয় হবার উদাত্ত্ব আহবান জানিয়েছেন পোপ ফ্র্যান্সিসও। ৬ দিনের যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় পপ ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্কেও আসবেন। জাতিসংঘে তিনি ভাষণ দেবেন ২৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১০টায়। একইদিন তিনি ম্যানহাটানে বিরাট এক প্রার্থনা সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন।

'১০০ নারীর ১০০ মাইল হাঁটা' কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ইমিগ্রেশনের ইস্যুর প্রতি আমেরিকানদের আরও সহনশীল হওয়ার আহবান জানানো হয়। রিপাবলিকান পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থীরা যখন অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের বৈধতা প্রদানের তীব্র বিরোধিতা করছেন ঠিক তখনই এ কর্মসূচির গুরুত্ব অপরিসীম বলে মানবাধিকার সংগঠকরা উল্লেখ করেছেন।

রিয়েল এস্টেট মোগল ডোনাল্ড ট্রাম্প বারবার বলছেন যে, অবৈধভাবে বসবাসরতদের তিনি ঢালাওভাবে বহিষ্কারের পদক্ষেপ নেবেন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে পারলে। শুধু তাই নয়, বহুদিনের রীতি অনুযায়ী অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের গর্ভে জন্মগ্রহণকারীদের যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হবার বিধিও তিনি বাতিল করতে চান। পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে নির্মাণ করতে চান উঁচু দেয়াল। স্মরণ করা যেতে পারে, অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের স্বার্থে প্রেসিডেন্ট ওবামার জারি করা নির্বাহী আদেশের বিরুদ্ধে রিপাবলিকানরা মামলা করেছে। ‘প্রেসিডেন্ট হিসেবে ওবামার কোন অধিকার নেই অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের স্বার্থে মার্কিন নীতি পরিবর্তনের’-এমন যুক্তির অবতারণা করছে রিপাবলিকানরা। রিপাবলিকানরা বলছে যে, আইন লংঘনকারিদের পুরস্কৃত করার ফলে আইন লংঘনের প্রবণতাই বাড়বে।

উল্লেখ্য, নানা শর্তে বিরাটসংখ্যক অবৈধ ইমিগ্র্যান্টকে বৈধতা প্রদানের লক্ষ্যে ডেমক্র্যাটরা সিনেটে ‘কমপ্রিহেনসিভ ইমিগ্রেশন রিফর্ম বিল পাশ করেছিল ২০১৩ সালের ২৭ জুন। বিলের নম্বর ছিল-এস-৭৪৪। কিন্তু রিপাবলিকানদের চরম বিরোধিতার কারণে সে বিল প্রতিনিধি পরিষদে গৃহিত হয়নি। সেই থেকে দর-কষাকষি চলছে। এক পর্যায়ে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা নির্বাহী আদেশ জারি করেছিলেন ৪৫ লক্ষাধিক অবৈধ ইমিগ্র্যান্টকে বৈধতা প্রদানের জন্য। সে বিধিও আদালতের নিষেধাজ্ঞার শিকার হয়েছে। রিপাবলিকান পার্টির লোকজন উচ্চ আদালতে মামলা করে সেই নির্বাহী আদেশের কার্যক্রম স্থগিত করিয়েছে।

ন্যাশনাল ডমেস্টিক ওয়ার্কার্স এলায়েন্সের পরিচালক আইজেন পো এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ইমিগ্র্যান্টদের গড়া এ দেশে ইমিগ্রেশন বিরোধী মনোভাব উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে-যা বিশ্বাস করতেও লজ্জা হয়।’ উল্লেখ্য, ১০০ নারীর ১০০ মাইল পদযাত্রা কর্মসূচির উদ্যোক্তা সংস্থার অন্যতম হচ্ছে ‘ ন্যাশনাল ডমেস্টিক ওয়ার্কার্স এলায়েন্স’ এই কর্মসূচির ব্যানার ছিল ‘উই বিলঙ টুগেদার’।

এই কর্মসূচির সূচনাকালে আন্দ্রিয়া ক্রিস্টিনা মারকেডো বলেন, ‘এসব কারণে পোপের সফরের সময়ে এমন একটি কর্মসূচির ভীষণ প্রয়োজন ছিল। ইমিগ্রেশন ইস্যুতে মার্কিন কংগ্রেস যাতে আরো মানবিক হয় সে ব্যাপারে পোপ জোরালো আহবান জানাবেন বলে আশা করছি।’ ৮ দিন লাগে ১০০ মাইল হাঁটতে। তাদের পেছনে ছিল চিকিৎসক, বহনযোগ্য টয়লেটওয়ালা ট্রাক এবং বড় দুটি বাস। এর মধ্যে ৪ বছরের একটি কন্যা শিশু এবং ৬০ বছরের অধিক বয়েসী কয়েকজনও ছিলেন। প্রায় সকলেই হিসপ্যানিক এবং বিভিন্ন সিটিতে তারা গৃহকর্মীর কাজ করেন। অধিকাংশই যুক্তরাষ্ট্রের সিটিজেন অথবা গ্রিণকার্ডধারী।

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে