Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১৬-২০১২

ডিসিসি নির্বাচন স্থগিত

ডিসিসি নির্বাচন স্থগিত
ঢাকা, এপ্রিল ১৬- ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের কার্যক্রম তিন মাসের জন্য স্থগিত করে দিয়েছে হাইকোর্ট। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদের করা একটি রিট আবেদনের শুনানি শেষে সোমবার বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। এছাড়া সীমানা সংক্রান্ত আইনের ধাপগুলো বাস্তবায়ন করে তারপর নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দেশ ইসিকে কেন দেওয়া হবে না- তাও জানতে চেয়েছে আদালত।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশন সচিব, ঢাকার জেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা, দুই রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসককে দুই সপ্তাহের মধ্যে এর কারণ জানাতে বলা হয়েছে।
ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন (ডিসিসি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার এক সপ্তাহের মাথায় আদেশ দিল আদালত। তফসিল অনুযায়ী ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে ২৪ মে ভোট হওয়ার কথা ছিল।
স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইনের কয়েকটি ধারা বাস্তবায়ন না করা পর্যন্ত ডিসিসি নির্বাচন বন্ধ চেয়ে রোববার সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদনটি করা হয়।
স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ এর ২৭ ধারায় আছে, নতুন কোনো সিটি কর্পোরেশন হলে সীমানা নির্ধারণকারী কর্মকর্তাকে সুনির্দিষ্ট ওয়ার্ডের বিষয়ে সুপারিশ করতে হবে এবং কর্পোরেশনকে বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিভক্ত করতে হবে। এই ওয়ার্ডের সংখ্যা গেজেট নোটিফিকেশনের মাধ্যমে প্রকাশ করতে হবে।
ওই আইনের ২৮ ধারায় বলা হয়েছে, সরকারি কর্মচারীদের থেকে গেজেট নোটিফিকেশনের মাধ্যমে সীমানা নির্ধারণকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করতে হবে। সীমানা নিধারণের জন্য কর্মকর্তা নিয়োগ করে গেজেট প্রকাশ করতে হবে।
ঢাকা দক্ষিণ ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নবগঠিত হওয়ায় ওয়ার্ডের বিভাগ ও সংখ্যা নির্ধারণ, স্থানীয় সরকার সিটি কর্পোরেশন আইন-২০০৯’র ২৭ ও ২৮ ধারা বাস্তবায়ন না করে নির্বাচন অনুষ্ঠানের সুযোগ নেই বলে রিট আবেদনকারীর যুক্তি।


রায়ের কপি পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত: সিইসি
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘‘উচ্চ আদালতের রায় হাতে পেলে এ রায়ের বিরুদ্ধে কমিশন আপিল করবে কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’’
ডিসিসি নির্বাচনের কার্যক্রম তিন মাস বন্ধে হাইকোর্টের আদেশের প্রতিক্রিয়ায় সোমবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘‘হাইকোর্টের রায়ের কথা আমরা শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে এখনো লিখিত কোনো কিছু আমাদের হাতে এখনো এসে পৌঁছেনি। এ রায়ে হতাশ বা খুশি হওয়ার কিছু নেই।’’
তিনি আরো বলেন, ‘‘নির্বাচন কমিশন একটি সাংবিধানিক সংস্থা। আদালতের রায়ের প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখে ও আইনের মধ্যে থেকে আমরা আমাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করে যাবো।’’
নির্বাচন কার্যক্রম বন্ধে আদালতের তিন মাসের স্থগিতাদেশের মধ্যে কি সব কিছু ঠিক করা সম্ভব? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘‘রায়ের কপি হাতে পেলে বোঝা যাবে সীমানা নির্ধারণ, ভোটার তালিকা হালনাগাদসহ কিছু ঠিক করতে কত সময় লাগবে।’’

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে