Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ১৫ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.4/5 (8 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২১-২০১৫

কিউবায় স্বাধীনতার বার্তা দিলেন পোপ

কিউবায় স্বাধীনতার বার্তা দিলেন পোপ

হাভানা, ২১ সেপ্টেম্বর- পোপ নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথম মার্কিন সফরের আগে ৪ দিনের কিউবা সফরে শনিবার হাভানায় এসে পৌঁছলেন পোপ ফ্রান্সিস৷ আমেরিকা-কিউবা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নতি যেমন কামনা করেছেন তিনি, পাশাপাশি রবিবার কিউবার কিংবদন্তি রেভোলিউশন স্কোয়্যারে দাঁড়িয়ে সানডে মাস-এর ভাষণে তুলেছেন কিউবায় মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রসঙ্গও৷ কমিউনিস্ট কিউবায় দাঁড়িয়ে ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্য ও স্বাধীনতার বার্তাই তুলে ধরেছেন ক্যাথলিক চার্চের সর্বোচ্চ কর্ণধার৷ কিউবা ও আমেরিকার মধ্যে ৫৩ বছরের শৈত্যের অবসান ঘটেছে সম্প্রতিই, আর তার জন্য পোপ ফ্রান্সিসের মধ্যস্থতাও অনেকাংশে দায়ী৷ সেই প্রেক্ষিতে তাঁর মার্কিন সফরের ঠিক আগেই কিউবা সফর যথেষ্ট তাত্‍পর্যপূর্ণ৷

পোপ ফ্রান্সিসের রাজনৈতিক মনন ও উদারমনস্কতার পরিচয় ইতিপূর্বে বহুবারই মিলেছে৷ কিউবার ক্ষেত্রে সরাসরি কোনও রাজনৈতিক বক্তব্য না রাখলেও তাঁর রবিবারের প্রার্থনার বিষয় নির্বাচনে রাজনৈতিক সুর দেখছে ওয়াকিবহাল মহল৷ যিশুর সঙ্গে তাঁর শিষ্যদের কিছু কথোপকথন উল্লেখ করে ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্যের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন পোপ ফ্রান্সিস৷ অন্যের চোখে নিজেকে 'ভালো' প্রমাণ করার জন্য ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্য খুইয়ে দেওয়াও আসলে নিজের অহঙ্কারকে তুষ্ট করার আত্মকেন্দ্রিক চেষ্টাই, তা মনে করিয়ে দিয়েছেন পোপ৷ আর তার সঙ্গেই সওয়াল করেছেন ব্যক্তিমানুষের 'স্বাধীনতা'র সপক্ষেও৷ সরাসরি না হলেও কিউবার মানবাধিকার লঙ্ঘনের তীব্র সমস্যার দিকেই নির্দেশ করেছেন পোপ ফ্রান্সিস, এমনটাই ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের৷

শনিবার বিমান বন্দরে তাঁকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত হন প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ত্রো৷ তাঁর পাশে দাঁড়িয়েই কিউবায় ক্যাথলিকদের জন্য সরকারের তরফে আরও সাহায্য ও সমর্থনের জন্য সওয়াল করেছেন পোপ ফ্রান্সিস৷ বিমান বন্দর থেকে কিউবায় ভ্যাটিকানের দূতের বাসভবন পর্যন্ত রাস্তায় পোপকে দেখতে ভিড় জমিয়েছিলেন সহস্রাধিক মানুষ৷ দক্ষিণ আমেরিকা থেকে প্রথম পোপ হওয়ার সুবাদে তাঁকে ঘিরে কিউবাবাসীদের উত্‍সাহও ছিল চোখে পড়ার মতো৷ দীর্ঘ দিন ধরেই কমিউনিস্ট শাসনে আছে কিউবা, একটা সময় পর্যন্ত সংবিধানের সর্বোচ্চ স্থান দেওয়া হত নাস্তিকতাকে৷ সেখানে রেভোলিউশন স্কোয়্যারের মতো জায়গায় (ফিদেল কাস্ত্রো জীবনের বহু ভাষণ দিয়েছেন যেখানে) রবিবারের প্রার্থনা আয়োজন করার বিষয়টি যথেষ্ট তাত্পর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল৷ 

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে