Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ , ১০ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (41 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১৫-২০১৫

‘জলঘোলা করেছেন অর্থমন্ত্রী, সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’

‘জলঘোলা করেছেন অর্থমন্ত্রী, সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’

ঢাকা, ১৫ আগষ্ট- বহু নাটকীয়তার পর অবশেষে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি’র ওপর আরোপিত ৭.৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করে নিয়েছে সরকার। শিক্ষার্থীদের টানা পাঁচ দিনের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন ও রাজপথে অবস্থান কর্মসূচিতে কার্যত অচল হয়ে পড়ে রাজধানী। এতে নগরবাসীকে পোহাতে হয় মহাদুর্ভোগ। এ পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য অর্থমন্ত্রীর উদাসীনতাকে দুষলেও প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররফ হোসাইন ভুঁইঞা সংবাদমাধ্যমকে জানান, অর্থমন্ত্রী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর–মূসক) নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী ভ্যাট প্রত্যাহারে অর্থমন্ত্রীকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন।

সোমবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা শাহেদুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, চলতি অর্থবছরে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ ও ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ওপর আরোপিত সাড়ে সাত শতাংশ মূসক প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী এবং শিক্ষকবর্গ তাদের আন্দোলন বন্ধ করে শিক্ষাঙ্গনে ফিরে যাবেন বলে আশা করে সরকার। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় কোনো ধরনের বাধা সৃষ্টির সুযোগ দেবেন না।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এমাজউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘অর্থমন্ত্রী সচেতন হলে এমন পরিস্থিতির উদ্ভব হতো না। শিক্ষা হলো সেবা খাত ও মানুষের মৌলিক অধিকার। যখন বিশ্বজুড়ে শিক্ষাকে অবৈতনিক করার চেষ্টা চলছে তখন আমাদের দেশে ভ্যাট বসানো সিদ্ধান্তটি অমূলক। জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনের জন্য সরকারি ও বেসরকারি সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহিত করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘কোনো রকম সহিংসতা ছাড়া আন্দোলন করায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সারাদেশের মানুষ থেকে প্রশংসিত হবেন। শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে এ পদক্ষেপ নিয়ে সরকার সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এজন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই।’

এদিকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মালিক সমিতির সভাপতি শেখ কবির হোসেন বলেন, 'ভ্যাট প্রত্যাহার করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। তিনি শিক্ষানুরাগী এবং তার সরকারের সময় শিক্ষার প্রসার ঘটেছে। ভ্যাট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে শিক্ষার আরও প্রসার ঘটবে।' শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার জন্যও অনুরোধ করেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মালিক সমিতির এই সভাপতি।

‘নো ভ্যাট অন এডুকেশন’-এর অন্যতম সংগঠক ফারহান হাবিব জানান, আন্দোলন আপাতত বন্ধ। আমরা ক্লাসে ফিরে যাচ্ছি। আবার প্রয়োজন হলে রাস্তায় নামব। রাষ্ট্র অনেক ক্ষেত্রেই কর আদায়ে ব্যর্থ। যারা কোটি কোটি টাকা কর ফাঁকি দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয় না। অর্থমন্ত্রী পুরনো ধ্যান-ধারণা নিয়ে আছেন, ২০১৫ সালে এসেও তিনি মনে করেন শুধু উচ্চবিত্তরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে। তাছাড়া তিনি ধরে নিয়েছেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন ও প্রতিবাদ করতে পারে না। সুতরাং রাজস্ব আদায়ে তাদের ওপর কর বসানো যায়। এজন্য এ ধরণের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার ওপর ভ্যাট প্রত্যাহার করায় সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। আশা করি শিক্ষার জন্য হুমকিদায়ক কোনো পদক্ষেপ সরকার ভবিষ্যতে আর নিবে না।’

প্রসঙ্গত, কয়েক মাস ধরেই আন্দোলন চলছে। এর মধ্যে বুধবার রামপুরায় ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণের ঘটনায়। ঐ রাতেই আহত শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাস্তায় নামতে থাকেন বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এতে তীব্র হয় শিক্ষায় ভ্যাট বিরোধী আন্দোলন। এরপর শুক্রবার ও শনিবার খণ্ড খণ্ডভাবে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। রোববার ও সোমবার পুনরায় ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে রাজপথে অবস্থানে নেয় শিক্ষার্থীরা। এতে রাজধানী ঢাকা অচল হয়ে পড়লে ভ্যাট প্রত্যাহারের বিজ্ঞপ্তি দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে