Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ , ৯ আশ্বিন ১৪২৭

গড় রেটিং: 5.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৪-১৪-২০১২

উৎক্ষেপণের ‘দশ মিনিটেই বিধ্বস্ত’ উত্তর কোরিয়ার রকেট

উৎক্ষেপণের ‘দশ মিনিটেই বিধ্বস্ত’ উত্তর কোরিয়ার রকেট
উত্তর কোরিয়ার বহুল আলোচিত দূরপাল্লার রকেটটি উৎক্ষেপণের কয়েক মিনিটের মধ্যেই বিধ্বস্ত হয়েছে। প্রথমে এ ব্যাপারে প্রতিবেশী দেশগুলোর কাছ থেকে খবর পাওয়া গেলেও পরে উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থার মাধ্যমেই কর্মকর্তারা এ কথা স্বীকার করেছেন। উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, পৃথিবী পর্যবেক্ষণকারী উপগ্রহটি এর পূর্ব নির্ধারিত কক্ষপথে প্রবেশ করতে ব্যর্থ হয়েছে। বিজ্ঞানী, টেকনেশিয়ান এবং বিশেষজ্ঞরা এখন এর ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধান করছেন। এর আগে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিম সুং-হওয়ান সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, উত্তর কোরিয়ার দূরপাল্লার রকেট উৎক্ষেপণ ব্যর্থ হয়েছে। উৎক্ষেপণের কয়েক মিনিট পরপরই রকেটটি খণ্ড বিখণ্ডিত হয়ে সাগরে পড়ে বলে তিনি দাবি করেন। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ দাবির পক্ষে বিস্তারিত আর কিছু জানাননি। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিম মিন সিউক সাংবাদিকদের বলেন, রকেটটি স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল ০৭৩৯ মিনিটে ছোড়া হয়। আকাশে ওড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই রকেটটি লক্ষ্যচ্যুত হয় বলে তিনি জানান। দক্ষিণ কোরিয়ার পাশাপাশি জাপান কর্তৃপক্ষও উত্তর কোরিয়ার রকেট উৎক্ষেপণ ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছে। উৎক্ষেপণের এক মিনিটের মধ্যেই উড়ন্ত বস্তুটি মহাসাগরে পড়ে যায় বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন জাপানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নাওকি তানাকা। প্রতিবেশী দেশ দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান এবং যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের দাবি, শুক্রবার উত্তর কোরিয়া-চীন সীমান্তের উৎক্ষেপণ মঞ্চ থেকে ছাড়ার ১০ মিনিটের মধ্যে ‘উনহা-৩’ রকেটটি ১২০ কিলোমিটার উড়ে গিয়ে পীত সাগরে বিধ্বস্ত হয়। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গোয়েন্দা তথ্য থেকে স্পষ্ট হয়েছে যে, উত্তর কোরিয়ার রকেট উৎক্ষেপণ চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। উত্তর আমেরিকার এয়ারোস্পেস ডিফেন্স কমান্ড (এনওআরএডি) বলছে, রকেটের নিচের অংশটি পড়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার পশ্চিম দিকের সাগরে। আর উপগ্রহ বহনকারী বাকি অংশ অন্য কোথাও পড়েছে। বিধ্বস্ত রকেটের জঞ্জাল মাটিতে না পড়ায় কোন বিপদও ঘটেনি বলে এনওআরএডি জানিয়েছে। এদিকে পিয়ংইয়ংয়ের রকেট উৎক্ষেপণ ব্যর্থ হওয়ার পরেও এর তীব্র নিন্দা করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। তার অফিস থেকে গতকাল দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ রকেট উৎক্ষেপণ নিরাপত্তা পরিষদের ১৮৭৪ অনুচ্ছেদের সরাসরি লঙ্ঘন এবং এর মাধ্যমে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতাকে হুমকির সম্মুখীন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রও তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। ব্যর্থ রকেট উৎক্ষেপণকে উস্কানিমূলক উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এর ফলে পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পূর্বের চুক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এর পাশাপাশি এশিয়ার নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার জন্য তারা উত্তর কোরিয়াকে দায়ী করেছে। হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জে কারনি শুক্রবার বলেছেন, উত্তর কোরিয়া এসব করে নিজেদের আরও বিচ্ছিন্ন করে ফেলছে। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়া একদিকে উস্কানিমূলক কাজে অর্থের অপচয় করছে অথচ তাদের দেশের মানুষ না খেয়ে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি জার্মানি ও বৃটেনও এই পিয়ংইয়ংয়ের রকেট উৎক্ষেপণের নিন্দা জানিয়েছে। এদিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ বলেছে, উত্তর কোরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে তারা শুক্রবার জরুরি বৈঠকে বসবে। তবে রকেট উৎক্ষেপণের ব্যাপারে এখনও কোন মন্তব্য করেনি উত্তর কোরিয়া। তবে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে খুব শিগগিরই ঘোষণা আসতে যাচ্ছে।

এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে