Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০ , ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (11 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৯-০৯-২০১৫

১৫ আগস্ট কারো জন্মদিন হতেই পারে

১৫ আগস্ট কারো জন্মদিন হতেই পারে

ঢাকা, ০৯ সেপ্টেম্বর- ১৫ আগস্ট যে কারো জন্মদিন হতেই পারে কিন্তু কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ওই দিন মিথ্যা জন্মদিন উদযাপন করলে তা বিকৃত মানসিকতারই প্রকাশ বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মিথ্যা জন্মদিন উদযাপনের ঘটনায় ধিক্কার জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ আগস্ট কারো জন্মদিন হতেই পারে, এদিন জন্মদিন হবে না সেটা তো না। কিন্তু যার জন্ম দিন না, সে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে মিথ্যা জন্ম দিন ঘোষণা দিয়ে, যত বয়স তত বড় কেক কেটে উৎসবে পরিণত করে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের উৎসাহিত করা, হত্যাকে স্বীকৃত দেয়ার মতো বিকৃত মানিসকতা দেখছি। এখনো এটা হচ্ছে। তবে সময়ের বিবর্তনে এসব মুছে যাবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘মিথ্যা জন্মদিনের বিষয়ে দেশের মানুষ আজ বুঝতে পেরেছে। এই ধরনের ঘটনাকে সাধারণ ধিক্কার দিচ্ছে।’ বুধবার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে আব্দুল মতিন খসরু, উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ ও মো. রুস্তম আলী ফরাজীর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ব্যক্তিকে হত্যা করা যায় আদর্শকে হত্যা করা যায় না। জাতির পিতাকে শুধু হত্যা নয়, হত্যা করে তার নাম মুছে ফেলে ইতিহাস বিকৃত করে মানুষের মন থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। এক সময় ছিল ১৫ আগস্ট কোনো প্রোগ্রামই করতে পারতাম না। একসময় জাতির পিতার নাম  ছবি সবই নিষিদ্ধ ছিল, কিন্তু সত্যকে কেউ নির্বাসিত করতে পারেনি, সত্যটা উদ্ভাসিত হবেই, হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন, ‘আমার জীবনে এই অভিজ্ঞতা আছে যখন বাংলাদেশের পাঠ্যপুস্তকে বঙ্গবন্ধুর নাম ছিল না, তখন কিন্তু পৃথিবীর অন্যদেশে বাংলাদেশের ইতিহাস পাঠ করা হলেই বঙ্গবন্ধুর নাম থাকতো, ছিল। তবে ভবিষতে সেই দুর্দিন আর আসবে না, দেশের মানুষ শোষিত হবে, নির্যাতিত হবে। সেই দিন আর আসবে না। সংবিধানে বঙ্গবন্ধুর নাম আছে তাই নতুন করে আর আইন করা লাগবে না।’

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে