Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০ , ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.4/5 (18 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৯-০৮-২০১৫

‘দেশে ছয় বছরে ৫৯,৭৬০ আত্মহত্যা’

‘দেশে ছয় বছরে ৫৯,৭৬০ আত্মহত্যা’

ঢাকা, ০৮ সেপ্টেম্বর- গত ছয় বছরে ৫৯ হাজার ৭৬০টি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে আত্মহত্যায় প্রাণহানির দিক থেকে বাংলাদেশের অবস্থান এখন দশম। তিন বছর আগে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৩৪। বাংলাদেশে সাত বছর বয়সী শিশু থেকে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ আত্মহত্যা করছেন।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সদর দপ্তরের বরাত দিয়ে এসব কথা জানানো হয়। ‘ব্রাইটার টুমরো’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ১০ সেপ্টেম্বর বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে ওই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজসহ দেশের পুরোনো আটটি মেডিকেল কলেজে মানসিক রোগের চিকিৎসায় কোনো অধ্যাপক নেই। জেলা হাসপাতালগুলোতেও মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কোনো পদ নেই। ফলে মানসিক রোগে ভোগা মানুষ সুচিকিৎসা পাচ্ছে না। কখনো কখনো তারা আত্মঘাতী হচ্ছে।
জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের শিক্ষক হেলালউদ্দিন আহমেদ বলেন, সারা দেশে মনোরোগ বিশেষজ্ঞের সংখ্যা কোনোভাবেই ২১০ জনের বেশি নয়। পুরোনো মেডিকেল কলেজ ও জেলা হাসপাতালগুলোয় মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পদ না থাকায় প্রায় সব চিকিৎসককেই পাবনা ও ঢাকায় থাকতে হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মানুষ সাধারণ দু’ ধরনের অবস্থায় পড়লে আত্মহত্যা করে। অনেকে প্রস্তুতি নিয়ে আট ঘাঁট বেঁধে, অনেকে হুট করে আত্মহত্যা করে। যারা প্রস্তুতি নিয়ে আত্মহত্যা করে তারা সাধারণত মনোবৈকল্যে ভুগে থাকে। চিকিৎসা ছাড়াও তাদের পারিবারিক ও সামাজিক সহায়তা প্রয়োজন। গবেষণায় দেখা গেছে, আত্মহত্যা করার ইচ্ছা যখন একজন ব্যক্তি অন্যের কাছে প্রকাশ করে তখন ঝুঁকি কমে যায়। আত্মহত্যার ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে কথা বলার সুযোগ করে দেওয়া দরকার।

বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার সাংবাদিক জয়শ্রী জামান সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবসটি রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে পালন করা হয়। বাংলাদেশ সরকারের উচিত দিবসটি পালনের উদ্যোগ নেওয়া। তিনি আরও বলেন, কিশোর-তরুণেরা আবেগতাড়িত হয়ে আত্মহত্যা করে। আবেগ কি করে দ্রুত নিয়ন্ত্রণ করা যায় সে বিষয়ে স্কুল-কলেজ কিংবা সামাজিক প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা দরকার।

উল্লেখ্য, জয়শ্রী জামানের ১৭ ও ১৩ বছর বয়সী দুই সন্তান গত বছর আত্মহত্যা করে। এরপর থেকেই তিনি আত্মহত্যা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক কাজ করে আসছেন। মানুষ যেন তার কষ্টের কথা নির্দ্বিধায় বলতে পারে সে জন্য একটি টেলিফোন সহায়তা লাইন চালুর চেষ্টা করছেন তিনি ও তাঁর স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

আগামী ১০ সেপ্টেম্বর ব্রাইটার টুমরো প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সেমিনারের আয়োজন করেছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে