Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (156 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-১৩-২০১৫

তানজানিয়ার সাবা সাবা দিবস

শাহীন এ আলম


তানজানিয়ার সাবা সাবা দিবস

২০০৯ সালের জুলাই মাসের কথা। আমি তানজানিয়ায় নতুন। কাজে যোগদান করেছি এক মাসও হয়নি। কয়েক দিন ধরে দেখছি, স্থানীয়দের মাঝে একটা শব্দ খুব বেশি উচ্চারিত হচ্ছে। সেটা হলো সাবা সাবা। এখানকার সহেলি (Swahili) ভাষা তখন তেমন কিছুই জানি না। তবে শেখার আগ্রহটা খুবই প্রবল ছিল। প্রথম দিকে নতুন শব্দ শুনলেই তার অর্থ জানার চেষ্টা করতাম। ভারতীয় বংশোদ্ভূত সহকর্মী পাপ্পু আমাকে কাজ চালানোর মতো কিছু শব্দের অর্থ শিখিয়েছিল। কিন্তু সাবা সাবা শব্দের অর্থ তার কাছ থেকে জানা হয়নি। সেও বলেনি।

সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে অফিসের যাওয়ার জন্য তৈরি হয়ে গেলাম। চা নাশতা শেষ করে পিকিং স্পটে যেতে যেতে পাঁচ মিনিট দেরি হয়ে গেল। সহকর্মী পাপ্পুও ওই গাড়িতে অফিসে যায়। সে প্রতিদিন আমার বাসার কাছে আসার আগে ফোন করে আমাকে নিচে নামতে বলে। কিন্তু সেদিন আমাকে ফোন করেনি। মনে করলাম গাড়ি আমার জন্য অপেক্ষায় আছে। কিন্তু নির্ধারিত স্থানে গিয়ে গাড়ি দেখলাম না। ভাবলাম গাড়ি আমার জন্য অপেক্ষা না করে চলে গেছে।

একটা ট্যাক্সি নিয়ে আমি অফিসে রওনা হলাম। কিছু দূর যেতেই খেয়াল করলাম রাস্তাঘাট কেমন যেন খালি খালি লাগছে। গাড়ি রাস্তায় অনেক কম। অফিসে পৌঁছেই আরেক ধাক্কা। নিরাপত্তা রক্ষী আমাকে অফিসে ঢুকতে দিচ্ছিল না। ভাবলাম লেট করায় ঢুকতে দিচ্ছে না, হয়তো এই দেশে এটাই আইন। ইংরেজিতে জিজ্ঞেস করলাম, দেরি হওয়ার কারণে কি আমাকে ঢুকতে দিচ্ছ না? সে কি বুঝল জানি না। সে বারবার শুধু তার গায়ের টি শার্টটি টেনে টেনে দেখাচ্ছিল আর বলছিল সাবা সাবা।

তখন খেয়াল করে দেখলাম, আশপাশের লোকজনও একই রকম টিশার্ট পরে আছে। এটা দেখে চিন্তায় পরে গেলাম ব্যাপারটা আসলে কি? এ রকম টি শার্ট তো কালকে আমিও দু​টি পেয়েছি। আজকে হয়তো সবার এই টি শার্ট পরে আশার কথা ছিল। আমি পরিনি। এ কারণেই হয়তো আমাকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। আর অপেক্ষা না করে সহকর্মী পাপ্পুকে ফোন করলাম। তখন সে জানাল, তুমি জান না, আজকে সাবা সাবা ডে? আজ তো পাবলিক হলিডে। ফোন শেষ করে পাপ্পুর কথা মতো ট্যাক্সি নিয়ে সোজা চলে গেলাম সাবা সাবা গ্রাউন্ডে। তারপর যা জানতে পারলাম সাবা সাবা সম্পর্কে।

সাবা অর্থ সাত। ইংরেজি সপ্তম মাসের সপ্তম দিনকে এখানে সাবা সাবা ডে (সাত সাত দিবস) হিসেবে পালন করা হয়। সাবা সাবা তানজানিয়ায় একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। ৭ জুলাই ১৯৫৪, টাঙ্গানিকা আফ্রিকান ন্যাশনাল ইউনিয়ন (TANU) প্রতিষ্ঠিত হয়। টাঙ্গানিকার (তানজানিয়ার পুরাতন নাম) স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে এই সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন মওালিমু জুলিয়াস নায়েরেরে। যিনি ১৯৬১ সালে তানজানিয়ার স্বাধীনতার নেতৃত্ব দানকারী ও তানজানিয়ানদের জাতির পিতা। এ ছাড়াও সাবা সাবা দিবসে প্রতি বছর সপ্তাহব্যাপী দারুস সালামে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (DITF) অনুষ্ঠিত হয়। তানজানিয়া এক্সটার্নাল ট্রেড বোর্ড আয়োজিত এই মেলা মূল শহর থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে কুরেসেনি এলাকার কিলোয়া রোডের জুলিয়াস নায়েরেরে ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। কালের পরিবর্তনে এটা এখন তাদের জাতীয় উৎসবে পরিণত হয়েছে।

বরাবরের মতো এ বছরও এই সাবা সাবা দিবসকে কেন্দ্র করে জুলিয়াস নায়েরেরে ময়দানে এবার ২৮ জুন থেকে শুরু হয়েছে তানজানিয়ানদের এই উৎসব। দারুস সালাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা চলবে ৮ জুলাই ২০১৫ পর্যন্ত। আফ্রিকা মহাদেশের সকল দেশসহ বিশ্বের অনেক দেশ এই মেলায় অংশ নিয়েছে। এবারের মেলায় চার শ বিদেশি প্রতিষ্ঠানসহ দুই হাজারেরও বেশি প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করছে। ঐতিহ্য অনুযায়ী আজ সাত জুলাই রাষ্ট্রপতি জাকায়া ম্রিশো কিকওয়েটে ও ফার্স্টলেডি সালমা কিকওয়েটেসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা মেলা পরিদর্শনে আসেন। রাষ্ট্রপতি বিভিন্ন স্টল ও প্যাভিলিয়ন ঘুরে দেখেন এবং শেষে মেলায় অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশে তার পরামর্শমূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

এমনি ভাবে এখানে নানে নানে দিবসও পালিত হয়। নানে শব্দের অর্থ আট। এটা পালিত হয় আগস্ট মাসের আট তারিখে। নানে নানে ডে অর্থাৎ আট মাসের অষ্টম দিন মূলত কৃষকদের দিবস হিসেবে পালন হয়। নানে নানে দিবসও সরকারি ছুটির দিন। আর সেই দিন বসে কৃষিপণ্য নিয়ে বিশাল মেলা। এই মেলা একেক বছর একেক অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হয়।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে