Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০ , ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

গড় রেটিং: 2.8/5 (11 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-২৮-২০১২

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বায়েসের আলোচনা সভা

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বায়েসের আলোচনা সভা
টরন্টো, ২৭ মার্চ -কানাডায় বাঙালি নতুন প্রজন্মকে দেশের অর্জনগুলো, বিশেষ করে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানাতে হবে। পাশাপশি বাংলাদেশ সম্পর্কেও আগ্রহী করে তুলতে হবে। আমরা যদি এতে ব্যর্থ হই, তাহলে দেশ শুুধু এই প্রজন্মকেই হারাবে না, অর্থনৈতিকভাবেও ক্ষতিগ্রস্ত হবে। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বেঙ্গলি ইনফরমেশন এন্ড এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিসেস (বায়েস) আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তারা একথা বলেন। বায়েসে’র প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ ইমাম উদ্দিনের সভাপতিত্বে টরন্টোর ১০০ রোয়েনা ড্রাইভে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় মুক্তিযোদ্ধা, লেখক, সাংবাদিক ও নতুন প্রজন্মের অনেক তরুণ-তরুণী উপস্থিত ছিলেন ।

ইসমত আরা মোস্তফার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত স্বাধীনতা দিবসের এ আলোচনায় বক্তব্য রাখেন একাত্তরের গেরিলা গ্রন্থের লেখক, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ড. জহিরুল ইসলাম, সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর, বায়েসের সেক্রেটারি জেনারেল গোলাম মোস্তফা, ভাইস প্রেসিডেন্ট কে এম মবিদুর রহমান প্রমুখ।

ড. জহির বলেন, মুক্তিযুদ্ধ হঠাৎ করে শুরু হয়নি, পকিস্তানিদের শোষণ, নিপীড়ন ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে পুঞ্জিভুত দীর্ঘদিনের ক্ষোভ, আন্দোলন এবং এক পর্যায়ে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধে আমাদের ঝাপিয়ে পড়তে বাধ্য করে। নিজ হাতে অস্ত্র ধরে দেশকে স্বাধীন করা ছাড়া আমাদের কোনো বিকল্প ছিল না। মুক্তিুযুদ্ধে কিভাবে ঢাকা ও তার পূর্বপাশের গ্রাম এলাকায় গেরিলা অপারেশন চালিয়েছেন তিনি তার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করেন। এছাড়া যুদ্ধের অভিজ্ঞতা সম্পর্কেও অনুষ্ঠানে উপস্থিত তরুনদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বায়েসের সম্প্রতি প্রকাশিত জরিপের উল্লেখ করে শওগাত আলী সাগর বলেন, এখানে তরুণ প্রজন্মের কাছে যদি বাংলাদেেেশর ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি সম্পর্কে জানাতে না পারি, তাহলে এই প্রজন্মকে আমরা হারিয়ে ফেলবো। অর্থনৈতিকভাবেও বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

সভাপতির বক্তব্যে মোহাম্মদ ইমাম উদ্দিন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের কথা, স্বাধীনতার কথা, মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্বের কথা আমাদের সন্তানদের জানাতে হবে। বালাদেশ সম্পর্কে তাদের আগ্রহী করে তুলতে হবে। আমরা যদি এটা করতে না পারি, তাহলে এটি আমাদের একটি ব্যর্থতা হিসেবেই গন্য হবে।

বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। সংগীত পরিবেশনায় ছিল লাবিবা তানজিম ও তার দল। পরে দেশাত্ববোধক কবিতা আবৃত্তি করেন ইসরাত জাহান লতা ও গোলাম মহিউদ্দিন।

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে