Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯ , ৪ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.3/5 (49 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-২৫-২০১২

নামের আগে-পরে পদবি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে ইসি’র উদ্যোগ

হাসান শাফি


নামের আগে-পরে পদবি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে ইসি’র উদ্যোগ
ঢাকা, ২৬ মার্চ- নামের আগে বা পরে পদ-পদবির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করতে ‘নাম’-এর সংজ্ঞা নির্ধারণ করার উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নানা আইনগত দিক খতিয়ে দেখে অবশেষে কমিশন ভোটার তালিকা আইনের   একটি ধারায়  ‘নাম’-এর সংজ্ঞা অন্তর্ভুক্ত করার শেষ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। ‘ভোটার তালিকা (সংশোধন) আইন ২০১২’-এর একটি খসড়া এরই মধ্যে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের এ উদ্যোগ সফল হলে ভোটার হওয়ার যোগ্য কোন নাগরিক ভবিষ্যতে আর নামের আগে বা পরে ইচ্ছামতো পদ-পদবি জুড়ে দিতে পারবেন না। এর মাধ্যমে দেশের নাগরিকদের নামের ক্ষেত্রে যে ধরনের ‘বিশৃঙ্খল’ অবস্থা বিরাজ করছে তা অনেকাংশেই কমে আসবে বলে মনে করছে কমিশন। সূত্র জানায়, বিদ্যমান ভোটার তালিকা আইনে ‘নাম’-এর সংজ্ঞা উল্লেখ না থাকায় ভোটার হওয়ার যোগ্য নাগরিকরা ‘ফ্রি স্টাইলে’ ভোটার তালিকা ফরমে নাম উল্লেখ করে। নাম উল্লেখের পেছনে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই অনুসরণ করা হয় না সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির শিক্ষাগত সনদে উল্লিখিত নাম। বরং, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে নাগরিকরা পড়াশোনা বা পেশাগতভাবে অর্জন করা পদ-পদবি নামের আগে বা পরে জুড়ে দেন। নামের অংশ হিসেবে যেমন অনেক ক্ষেত্রে ‘চৌধুরী, ফকির, মোল্লা’র মতো খেতাব ব্যবহার করেন তেমনভাবেই নামের আগে-পরে জুড়ে দেন ‘বিচারপতি, ব্যারিস্টার, এডভোকেট, প্রকৌশলী, ডক্টর, ডাক্তার, অধ্যাপক, সামরিক পদবি, যুদ্ধের খেতাব, আলহাজ, মাওলানা, হাফেজ’- এ ধরনের পদ-পদবি। আর নামের আগে-পরে এসব পদ-পদবিসহই নাগরিকরা পেয়ে যান ‘জাতীয় পরিচয়পত্র’। এ পরিস্থিতি রোধ করতেই ড. হুদা কমিশনের ধারাবাহিকতায় কাজী রকিব উদ্দীন আহমদের কমিশনও ভোটার তালিকা আইনে নাগরিকদের ‘নাম’-এর সংজ্ঞা অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে। বিষয়টি স্বীকার করে কমিশন সচিবালয়ের আইন শাখার এক কর্মকর্তা গতকাল মানবজমিনকে জানান, ভোটার তালিকা আইনে নাগরিকের নামের সংজ্ঞা নির্ধারণ করার উদ্যোগ কমিশন নিয়েছে। এরই মধ্যে ‘নাম’-এর সংজ্ঞার একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছে। সমপ্রতি তা আইন মন্ত্রণালয়েও পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। প্রস্তাবিত আইনে ভোটারের ‘নাম’-এর সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, ‘জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন, ২০০৪-এর অধীন নিবন্ধিত অথবা প্রদত্ত সনদে উল্লিখিত নাম অথবা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী বা জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট বা মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট বা সমমানের কোন পরীক্ষায় প্রদত্ত সনদে উল্লিখিত নাম।’ আইন শাখার ওই কর্মকর্তা বলেন, সংজ্ঞাটি আইনে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর থেকে একজন নাগরিকের জন্মনিবন্ধন সনদ বা স্কুল পর্যায়ে যে নাম ব্যবহৃত হয়েছে, সে নামই ভোটার তালিকা ও জাতীয় পরিচয়পত্রে উল্লেখ থাকবে। এর ফলে ‘অফিসিয়াল’ কাগজপত্রে কোন নাগরিক নামের আগে-পরে বিচারপতি, ব্যারিস্টার, এডভোকেট, প্রকৌশলী, ডক্টর, ডাক্তার, অধ্যাপক, নানা সামরিক পদবি, যুদ্ধের খেতাব, আলহাজ, মাওলানা, হাফেজ- এ ধরনের পদবি-পরিচয় ব্যবহার করতে পারবেন না। ‘ভোটার তালিকা (সংশোধন) আইন-২০১২’ এরই মধ্যে সংশোধনের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ওই কর্মকর্তা জানান, কমিশন আশা করছে আগামী বছর জানুয়ারিতে ভোটার তালিকা হালনাগাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের আগেই আইনটি পাস হবে। নিয়ম অনুযায়ী ভোটার তালিকায় যেভাবে যে নাম থাকবে, সে নাম জাতীয় পরিচয়পত্রেও থাকবে। সদ্য বিদায়ী নির্বাচন কমিশনের এ প্রস্তাব কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন কমিশন যাচাই-বাছাই শেষে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। অন্যদিকে যারা পদবি-পরিচয়যুক্ত নাম ব্যবহারে অভ্যস্ত, তাদের একটি পক্ষ এ প্রস্তাবের বিরোধিতা করছে। সংসদেও বিরোধিতা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কমিশন সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, ২০০৮ সালে ছবিসহ ভোটার তালিকা তৈরির সময়ও সাধারণভাবে নামের আগে-পরে পদবি-পরিচয় গ্রহণযোগ্যতা পায়নি; যদিও সে সময় নামের আগে পদ-পদবি গ্রহণ না করার পক্ষে কোন আইন ছিল না। তবে তখন কিছু ক্ষেত্রে নামের আগে পদবি-পরিচয় গ্রহণ করার ঘটনাও ঘটে। সে সময় প্রেসিডেন্ট ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ নামের আগে অধ্যাপক ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান ফখরুদ্দীন আহমদ নামের আগে ডক্টর যুক্ত রেখেই ভোটার হয়েছিলেন। এমনকি বর্তমান জাতীয় সংসদের অনেক এমপিই নামের আগে-পরে নানা পদবি-পরিচয়যুক্ত করে ভোটার হয়েছিলেন। নির্বাচনের সময় অনেকে প্রার্থী হয়ে বিজয়ী হয়ে বর্তমান সংসদের সদস্যও নির্বাচিত হয়েছেন। এ বিষয়ে কমিশন সচিবালয়ের যুগ্ম সচিব (আইন) এন আই খান জানান, আইনটি সংশোধন হলে নামের আগে ও পরে কেউ কোন ধরনের পদবি ব্যবহার করতে পারবেন না। এছাড়া বিদেশ যাওয়ার সময় নামের ক্ষেত্রে যে সমস্ত ঝামেলার সৃষ্টি হয় তা-ও অনেকাংশে কমে আসবে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে