Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯ , ৩ আষাঢ় ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (20 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৭-২০১১

পেসার বনাম স্পিনারদের সিরিজ!

পেসার বনাম স্পিনারদের সিরিজ!
পাকিস্তান-ভারতের বিপক্ষে পিঠাপিঠি সিরিজে টানা খেলা। এরপর ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিযান। সেটি শেষ করে রবি রামপল ঢাকায় এসেছেন পরশু বিকেলে। চাইলে কাল হালকা অনুশীলন করলেই পারতেন। কিন্তু অনুশীলনের বোলিংয়েও কাল যেন আগুন ঝরালেন রামপল। পাওয়েল-সিমন্সদের নাকে বাতাস লাগিয়ে গেল তাঁর অনেক বল। একাডেমির নেটের উইকেটে কিছুটা ঘাস আছে। রোচ-স্যামি-রাসেলরাও সতীর্থ ব্যাটসম্যানদের ভোগালেন যথেষ্ট।
দেবেন্দ্র বিশু যথেষ্ট ভোগাবেন, সন্দেহ নেই। অ্যান্থনি মার্টিন বা শেন শিলিংফোর্ডের স্পিনও ভালোই কার্যকর হওয়ার কথা। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মূল প্রতিপক্ষ কিন্তু ওই রামপল-রোচরাই। ওয়ানডে সিরিজে না থাকলেও টেস্টে ঠিকই ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা নেবেন ফিদেল এডওয়ার্ডস। ক্যারিবিয়ান পেস বোলিংয়ের স্বর্ণযুগ হয়তো ফিরে আসেনি। কিন্তু রোচ-এডওয়ার্ডসদের সৌজন্যে ক্যারিবিয়ান পেস আক্রমণ আবারও সমীহ আদায় করছে। বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল স্পিনার দলে থাকার পরও তাই এই সিরিজে পেস আক্রমণই ওয়েস্ট ইন্ডিজের মূল শক্তি।
মিরপুর শেরেবাংলা বা চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্টেডিয়ামের উইকেটে ঘাসের ছিটেফোঁটাও থাকবে না নিশ্চিত। কিন্তু অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি তো আগের দিনই বলে দিয়েছেন, ?জেনুইন ফাস্ট বোলাররা যেকোনো উইকেটেই দ্রুত বোলিং করতে পারে। আমার তিনজন জেনুইন ফাস্ট বোলার আছে।? স্যামি যতই বলুন, মরা উইকেট ফাস্ট বোলারদের ধার কিছুটা হলেও কমাবে। কাল দিনেশ রামদিন হয়তো সে কারণেই বললেন, ?আশা করছি, উইকেটে কিছুটা হলেও বাউন্স পাওয়া যাবে।?
রামদিনের আশা পূরণ হওয়ার সম্ভাবনা যে একটুও নেই, সেটা মোটামুটি নিশ্চিত করেই বলা যায়। অবশ্য উইকেটের চেয়েও বড় আরেকটা চ্যালেঞ্জ দেখছেন এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান, ?আমার মনে হয়, ফাস্ট বোলারদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হবে এখানকার প্রচণ্ড গরম আবহাওয়া। অবশ্য এই দুই দিনে ওরা ভালোই মানিয়ে নিয়েছে। দলে ওদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, ইনিংসের শুরুতে উইকেট নিয়ে ওরা প্রতিপক্ষকে চাপে ফেলে দেয়।?
এই ?গুরুত্বপূর্ণ? দলে থাকতে পারতেন রামদিন নিজেও। শৈশবে ফাস্ট বোলারই হতে চেয়েছিলেন, স্কুলের হয়ে নতুন বলে বোলিং করতেন রামপলের সঙ্গে। রামদিনের দাবি, স্কুল দলের প্রয়োজনেই একসময় উইকেটের পেছনে দাঁড়াতে শুরু করেন। এটাই হয়তো মূল কারণ, তবে শীর্ণকায় শরীরেরও নিশ্চয়ই একটা ভূমিকা ছিল!
সে যা-ই হোক, উইকেটকিপার হয়ে যে ভুল করেননি, সেটা প্রমাণ হয়ে যায় খুব দ্রুতই। টিনএজ পেরোনোর পরপরই জায়গা পেয়ে যান জাতীয় দলে। জায়গাটা পাকা করতেও খুব একটা সময় লাগেনি। সহজাত নেতৃত্বগুণের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভবিষ্যৎ অধিনায়কও মনে করা হচ্ছিল তাঁকে। সেই ভাবনা থেকেই দেওয়া হয়েছিল সহ-অধিনায়কত্ব। কিন্তু ধারাবাহিক ব্যাটিং-ব্যর্থতায় আবার নড়বড়ে হয়ে পড়ল জায়গাটা। গত বছরের মে-জুনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩ টেস্টে ৬৩ ও ৫ ওয়ানডেতে ৩৪ করার পর বাদই পড়ে গেলেন। গত অক্টোবরে বাদ পড়লেন কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও।
ব্যাটিং-ব্যর্থতায় বাদ পড়েছিলেন, ফিরেছেন ব্যাটিং-সাফল্য নিয়েই। ঘরোয়া চার দিনের টুর্নামেন্টে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান করে জায়গা পেলেন বাংলাদেশ সফরের দলে। জানালেন, কঠোর পরিশ্রমের পুরস্কার এই ফেরা, ?ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক খেটেছি, অনেক কাজ করেছি নিজের ব্যাটিং নিয়ে। ভারতে চ্যাম্পিয়নস লিগ টি-টোয়েন্টি খেলে ফিরলাম, এখানে টেস্ট ও ওয়ানডে ম্যাচগুলোর জন্য মুখিয়ে আছি।?
বয়স মাত্র ২৬। কিন্তু ৪২ টেস্ট ও ৮১ ওয়ানডে খেলা রামদিন যে এতেই দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের একজন! দলে জায়গা পাকা করতে হবে। সঙ্গে দিকনির্দেশনাও দিতে হবে তরুণদের। আরেকটি ক্ষেত্রেও তিনি ?সিনিয়র?। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে দলে রামদিনের আগে বাংলাদেশে আসার অভিজ্ঞতা আছে কেবল মারলন স্যামুয়েলসের। ২০০২ সিরিজে খেলেছিলেন স্যামুয়েলস, আর ২০০৪ সালে বাংলাদেশে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রামদিন। টুর্নামেন্টে রানার্সআপ হয়েছিল তাঁর দল।
নিজের সেই বাংলাদেশ-অভিজ্ঞতা সতীর্থদের জানিয়েছেনও, ?ওদের কিছু পরামর্শ দিয়েছি। এখানকার কন্ডিশন ক্যারিবিয়ার মতো নয়। তবে এই অল্পগু সময়েই আমরা মানিয়ে নিতে শুরু করেছি। বাংলাদেশ অনেক স্পিনার খেলাবে। আমাদের সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে হবে।?
ক্যারিবিয়ান পেস আর বাংলাদেশের স্পিন?এই সিরিজের স্লোগান কি তবে এটাই!

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে