Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.3/5 (28 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-১৪-২০১৫

ভারতকে হারাতে পারবে না বাংলাদেশ: সৌরভ

ভারতকে হারাতে পারবে না বাংলাদেশ: সৌরভ

অ্যাডিলেইড, ১৪ মার্চ- বিশ্বকাপে বাংলাদেশের উন্নতি দেখে সৌরভ গাঙ্গুলী মুগ্ধ। তবে মাশরাফি বিন মুর্তজা, মাহমুদুল্লাহ, মুশফিকুর রহিম আর সাকিব আল হাসানদের এই উন্নতি ভারতের বিপক্ষে কোয়ার্টার-ফাইনাল জয়ের জন্য যথেষ্ট নয় বলে মনে করেন তিনি।

২০০৭-এর বিশ্বকাপ আর ২০১২-এর এশিয়া কাপের মতো বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে আরেকটি ভারত-বধ অধ্যায় ঢুকবে কিনা, এই প্রশ্নের উত্তরে মহেন্দ্র সিং ধোনির দলকেই অনেক এগিয়ে রাখছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক।

আগামী বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেইড ওভালে সেমি-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে উড়তে থাকা ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

শনিবার স্টার স্পোর্টসে এ ম্যাচ নিয়ে আলোচনায় গাঙ্গুলী জানান, ভারতের বিপক্ষে মাশরাফি-সাকিবদের জয়ের কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না তিনি।

“আমি তাদের (বাংলাদেশ) শেষ তিন-চারটা বিশ্বকাপে দেখছি, ইংল্যান্ডকেও হারাতে দেখেছি। নিউ জিল্যান্ডের ওপর তারা প্রচুর চাপ তৈরি করেছে। বাংলাদেশ এখন অনেক উন্নত। তাদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, তাদের যে উন্নতি হয়েছে সেটা এ মুহূর্তে ভারতকে হারানোর জন্য যথেষ্ট নয়।”

কেন নয়, এরও ব্যাখ্যা দেন গাঙ্গুলী। বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত টানা ৬টি ম্যাচ জিতে কোয়ার্টার-ফাইনালে জায়গা করে নেয়। বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, অজিঙ্কা রাহানে-ব্যাটসম্যানরা সব ফর্মে রয়েছেন। বল হাতে ভালো করে যাচ্ছেন মোহাম্মদ সামি আর উমেশ যাদবরা। সব মিলিয়ে ভারত এখন যেন অদম্য এক দল।

বাংলাদেশ ভারতের সঙ্গে কেন পারবে না, সেই ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে এদিকটাই তুলে ধরেন গাঙ্গুলী। 

“তারা ভারতকে ২০০৭ সালে (বিশ্বকাপে) হারিয়েছে। বিশ্বকাপে বড় দলকেও হারিয়েছে। কিন্তু আমরা সবাই জানি, ভারত অনেক এগিয়ে আছে।”

এগিয়ে যাওয়ার দিক থেকে বাংলাদেশও খুব একটা পিছিয়ে নেই। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার পথে মাশরাফিরা ইংল্যান্ডের মতো ক্রিকেট পরাশক্তিকে হারায়।

গাঙ্গুলী মনে করেন, বিশ্বকাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে খেলার চাপও বাংলাদেশকে সামাল দিতে হবে, যা মেলবোর্নের মতো বড় মাঠে হাজার হাজার ভারত সমর্থকের সামনে সহজ হবে না।

অনুষ্ঠানটিতে বাংলাদেশের শক্তির দিকগুলো নিয়েও আলোচনা হয়। ইংল্যান্ড ও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচে টানা শতক করেন মাহমুদুল্লাহ। মাশরাফি বিন মুর্তজা, রুবেল হোসেনের মতো অভিজ্ঞদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বল হাতে আলো ছড়াচ্ছেন পেসার তাসকিন আহমেদ। মাহমুদুল্লাহ ও তাসকিনের প্রশংসা করেন গাঙ্গুলী।

“মাহমুদুল্লাহকে মানসম্পন্ন খেলোয়াড় মনে হয়েছে আমার। সে সময় নেয় এবং উইকেটের উভয় দিকেই শট খেলে। তাসকিনকেও দেখেছি; সেও মানসম্পন্ন বোলার এবং যে অনেক দলে খেলতে পারে।”

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফিরও প্রশংসা করেন গাঙ্গুলী। তবে মাশরাফির দলের সাফল্য কামনা করতে না পারার কথা বলেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার, “যেহেতু তারা ভারতের বিপক্ষে খেলছে, সেহেতু বাংলাদেশের জন্য খুব বেশি সৌভাগ্য কামনা করতে পারছি না। কিন্তু তারা এই বিশ্বকাপে ভালো করছে।”   

১৪ মার্চ ২০১৫/১১ঃ৪১পিএম/আনিকা/

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে