Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৯ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (43 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৩-০৪-২০১৫

রোবট বলছে বিশ্বকাপ যাবে নিউজিল্যান্ডের ঘরে

মোস্তফা আরিফ


রোবট বলছে বিশ্বকাপ যাবে নিউজিল্যান্ডের ঘরে

ক্যানবেরা, ০৪ মার্চ- বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে চলছে সরব আলোচনা। প্রিয় দলের প্রতি আগ্রহ, ভালবাসা, হৃদয়ের আবেগ, অনুভূতি থাকাটাই স্বাভাবিক। চলছে চায়ের কাপে ঝড়। কম্পিউটার প্রযুক্তিতেও (রোবটিকস) চলছে এ নিয়ে গবেষণা। গাণিতিক সূত্র ও প্রযুক্তির কল্যাণে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন হিসাবে ধরা হচ্ছে কিউই খ্যাত নিউজিল্যান্ডকে। আচমকা এক তথ্যই বটে। প্রযুক্তি বিশ্লেষণ করে অস্ট্রেলিয়ার একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান এ তথ্য দিয়েছে অার অস্ট্রেলিয়ার এবিসি নিউজ তা প্রকাশ করেছে।

কিউইরা কীভাবে শিরোপা জিতবে প্রযুক্তির গাণিতিক সূত্রটি বেশ চমকপ্রদ। গ্রুপ পর্বের ম্যাচ এখনও শেষ হয়নি। এরই মধ্যে গাণিতিক সূত্রের প্রয়োগ হচ্ছে। গ্রুপ পর্ব শেষ হবে ১৫ মার্চ। অথচ রোবট কম্পিউটারের মাধ্যমে বলছে নিউজিল্যান্ডের নাম।

রোবটের যুক্তিটা এমন: নিউজিল্যান্ড এ পর্যন্ত চারটি ম্যাচ জিতেছে। শতভাগ সাফল্য নিয়ে পুল-এ-তে শীর্ষে রয়েছে। গ্রুপ পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ আটের টিকিট নিশ্চিত হবে তাদের। গ্রুপ পর্বে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম বাহিনীর হাতে রয়েছে ২টি ম্যাচ। ৮ মার্চ ব্ল্যাকক্যাপসরা লড়বে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের বিপক্ষে। এ ম্যাচ জিততে বেশী বেগ পেতে হবে না। এরপর টাইগারদের বিপক্ষে। এটা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তারপরেও ধরে নেয়া যায় কিউইরা জিতবে।

কোয়ার্টার ফাইনালে তারা মুখোমুখি হবে আয়রল্যান্ডের বিপক্ষে। আইরিশদের কুপোকাত করেই শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করবে নিউজিল্যান্ড। সেমিফাইনালে দেখা হতে পারে ক্যালিপসোখ্যাত ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে। এ ম্যাচেও কিউইরা বিজয়ের হাসি হাসবে। ফাইনালে লড়বে লংকান সিংহদের বিপক্ষে।

লংকান সিংহদের নাস্তানুবাদ করেই বিজয়ের হাসি হাসবে নিউজিল্যান্ড। এ সবই ধারণা মাত্র। হিসাব পাল্টে যেতে পারে। সীমিত ওভারের ম্যাচ নিয়ে এতোটা নিশ্চিত করে কিছুই বলা যায় না। ক্রিকেট হচ্ছে গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা। বিশেষ করে সীমিত ওভারের ম্যাচ নিয়ে আগাম তথ্য প্রদান বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়। তার উপর বিশ্বকাপ বলে কথা। কম্পিউটারের হিসাব মিলে গেলে সেটা হবে সত্যিই বিস্ময়কর। এত আশা ভরসা এবং প্রত্যাশা ও রোবট প্রযুক্তির গবেষণা সব কিছুই চুলচেরা মিলে যাবে তা ভাবার কোনও কারণ নেই।

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপেও নিউজিল্যান্ড দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়েছিল। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে হেরেও গিয়েছিল এমনকি সেমিফাইনালে সেই পাকিস্তানের কাছে হেরে অশ্রুসজল চোখে বিদায় নিতে হয়েছিল কিউইদের।

এবারও সেরকম কিছু ঘটবে না তা কে বলতে পারে? প্রযুক্তি এবং গাণিতিক সূত্রই সবকিছু নয়। এমনও হতে পারে এবারের বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে যদি নিউজিল্যান্ড হেরে যায় তাতেও অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না। প্রযুক্তির হিসাব এবং বিশ্বাস নিয়েই সব কিছু চলে না। প্রযুক্তির সূত্রানুযায়ী নিউজিল্যান্ড চ্যাম্পিয়ন হলে হয়তো ভবিষ্যতে প্রযুক্তির উপর বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়বে।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে