Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ , ১১ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.0/5 (42 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২২-২০১৫

রমিজ রাজার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ঝড়

রমিজ রাজার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ঝড়

ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারী- বিশ্বকাপের বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মধ্যকার ম্যাচে বাংলাদেশকে হেয় করে সাবেক পাক ক্রিকেটার রমিজ রাজার ধারাভাষ্যে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের টাইগার সমর্থকরা। দাবি উঠেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কমেন্টেটর প্যানেল থেকে রমিজকে বহিস্কারের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে উঠেছে প্রতিবাদের ঝড়।

ওই ঘটনার পর থেকেই ফেসবুক আর টুইটারে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ‘ব্যান রমিজ রাজা’ (#BanRameezRaja) হ্যাশ ট্যাগটি। আর আইসিসির কাছে বহিস্কারের আবেদন জানিয়ে খোলা হয়েছে কয়েকশ নতুন ইভেন্ট। এমনকি তৈরি হয়েছে বেশকিছু ফান পেজও যেখানে রমিজ রাজাকে নিয়ে চলছে বিদ্রুপ। শুধু তাই নয়, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারী শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার প্রবাসী বাঙালীরা গ্যালারিতে ‘ব্যান রমিজ রাজা ফ্রম আইসিসি ওয়ার্ল্ডকাপ কমেন্টরি প্যানেল’ লেখা ব্যানার নিয়ে যাওয়ারও উদ্যোগ নিয়েছে। এ জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যানরমিজরাজা হয়েছে ইভেন্ট। যারা ওইদিন খেলা দেখতে মাঠে যাবেন, তাদেরকে এই পোস্টারটি প্রিন্ট করে নিয়ে যাওয়ার জন‌্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আইসিসি ক্রিটেক বিশ্বকাপ-২০১৫ এর প্রথম রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় ম্যানুকা ওভাল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তানের মধ্যকার ম্যাচ চলাকালে ধারাভাষ্য দেওয়াকালে বাংলাদেশকে বিভিন্নভাবে হেয় করার চেষ্টা করেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার রমিজ রাজা।

এসময় রমিজ রাজা বারবার এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের কাছে বাংলাদেশের হারকে স্মরণ করছিলেন এবং আফগান ক্রিকেটের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে তাদেরকে ম্যাচের ফেবারিট প্রমাণ করার চেষ্টা করছিলেন।

ধারাভাষ্য দেওয়ার সময় একটা পর্যােয়ে হঠাৎ তিনি বলেন, ওহ! বাংলাদেশ, টেরিবল ট্রাফিজ জ্যাম ইন ঢাকা। উই হ্যাড টু স্টার্ট...। যার অর্থ দাঁড়ায়, ওহ! ঢাকায় ভয়ংকর ট্রাফিক জ্যাম, ম্যাচ শুরুর অনেক আগে মাঠে যাওয়ার জন্য রওয়ানা দিতে হয়েছিল!


রমিজ রাজার কুশপুত্তলিকা দাহ

এছাড়াও তিনি এনামুল হক বিজয়ের ডাকনাম কেন ‘বিজয়’ বা তার কেন ডাকনাম থাকবে, সে নিয়েও কথা বলতে ছাড়েননি রমিজ রাজা। তিনি বলেন, এ ধরনের ‘পেট নেইম’ নাকি শুধু বাংলাদেশেই দেখা যায়।

এছাড়া পুরষ্কার বিতরনীর মঞ্চে প্রথমে আফগান অধিনায়ক গোলাম নবীর সাথে কথা সেরে রমিজ গাছাড়াভাবে বলেন, নাউ ইটস মাই ডিউটি টু কল দি ক্যাপ্টেন অব বাংলাদেশ, মাশরাফি বিন মোর্তুজা। এর অর্থ- এখন আমার চাকরি বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজাকে ডাকা।

এই ম্যাচের পর থেকেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বয়ে যাচ্ছে রমিজের প্রতি ঘৃণা জানিয়ে তুমুল সমালোচনার ঘূর্ণিপাত।

এর আগে ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার নভোজাৎ সিধুও তার ধারাভাষ্যে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন। তখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। শাস্তিস্বরূপ তাকে ইএসপিএন ধারাভাষ্য প্যানেল থেকে অপসারণ করা হয় সেসময়।

এরই সূত্র ধরে আইসিসি’র কমেন্টেটর প্যানেল থেকে রমিজ রাজাকে অপসারণের দাবিতেও চলছে প্রতিবাদের ঝড়। এরই মধ্যে ‘ব্যান রমিজ রাজা’ একটি হ্যাশট্যাগ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এক টাইগার সমর্থক তার স্ট্যাটাসে লেখেন-

    পাকিস্তানী ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজাকে নিষিদ্ধ করতে হবে। ফেইসবুক কিংবা টুইটার যে যেখানে পারেন প্রতিবাদ করুন। স্ট্যাটাসে লিখুন...
    Hello ICC, ‪#‎BanRameezRaja‬ from comentry box during Bangladesh ‪#‎cricket‬ match on ‪#‎CWC15‬. He hurts ‪#‎Bangladesh‬ with ‪#‎hatespeech‬.

গতকাল ২০ ফেব্রুয়ারি অপর একজন তার স্ট্যাটাসে লেখেন-

    পাকি রমিজ রাজা বাংলাদেশ ও বাংলার প্রানের ক্রিকেট কে নিয়ে যে অপমানের সুরে তাচ্ছিল্য করে কমেন্টারি দিয়েছে তার প্রতিবাদে আজ শুক্রবার বিকাল ৫ টায় শাহবাগে ঐ পাকি বেজন্মার ‪#‎কুশপুত্তলিকাদাহ‬ করা হবে। সকলকে প্রতিবাদে থাকার আহবান।।

    ‪#‎HelloICC‬, #‪#‎BanRameezRaja‬ from comentry box during BD cricket match on ‪#‎cwc15‬. He's hurt ‪#‎Bangladesh‬ with ‪#‎hatespeech‬.

শুধু তাই নয়, বিভিন্ন জায়গায় রমিজ রাজার কুশপুত্তলিকা দাহও করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রতি তার তাচ্ছিল্যের কারণে।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে