Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯ , ৪ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.9/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১৫-২০১২

তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা পুনর্বহাল আর সম্ভব নয়

তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা পুনর্বহাল আর সম্ভব নয়
আদালতের রায়ে বাতিল হওয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা পুনর্বহাল করা সম্ভব নয়। এ ব্যাপারে যদি বিকল্প কোনো প্রস্তাব থাকে তবে জাতীয় সংসদে এসে তা উপস্থাপন করার জন্য বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভি-নিউয়ে ১৪ দলের মহাসমাবেশে আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের নেতারা এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও জাতীয় সংসদে সরকারদলীয় উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন। সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী অভিযোগ করেন, বিএনপির চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া পাকিস্তানের টাকায় চলেন। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেন, তারা দিয়েছেন সমাবেশ, হয়েছে মহাসমাবেশ। এটি পরিণত হয়েছে জনসমুদ্রে। উপদেষ্টাম-লীর সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, তিনি বিরোধী দলকে সংসদে আসতে বলবেন না। কারণ তিনি জানেন, চোরের মতো সরকার ও সংসদের টাকা নিতে, বেতন-ভাতা নিতে এ মাসের মধ্যেই তারা সংসদে আসবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকারমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত সব নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে। নির্বাচন এতটাই অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু হয়েছে যে এ নিয়ে বিএনপিও কোনো অভিযোগ তুলতে পারেনি। আওয়ামী লীগের নেতা মোহাম্মদ নাসিম অভিযোগ করেন, বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষ নিয়ে তাদের বাঁচানোর জন্য আন্দোলন করছেন। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-ইনু) সভাপতি হাসানুল হক ইনু অভিযোগ করেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের সঙ্গে নিয়ে চারদলীয় জোট গঠন করে বাংলাদেশকে তালেবান রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গত তিন বছর ধরে দেশকে অন্ধকার থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করছে। খালেদা জিয়া আবারো দেশকে অন্ধকারে ফেলে দিতে চাচ্ছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, এ দেশের তরুণরা অসামপ্রদায়িক, গণতান্ত্রিক দেশ চায়। জাতীয় জীবনে নানা সঙ্কট আছে, বিদ্যুতের সঙ্কট আছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি আছে। তারপরও সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে এ সব সঙ্কট মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের বিজয় অবশ্যম্ভাবী। বিকাল চারটার দিকে সমাবেশমঞ্চে উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা।
 

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে