Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯ , ৫ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.3/5 (12 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১২-২০১২

সমাবেশকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ-মৃত্যু, গ্রেপ্তার

সমাবেশকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ-মৃত্যু, গ্রেপ্তার
বিএনপির অভিযোগ, নির্যাতন গ্রেপ্তার চলছে : বিএনপির নয়াপল্টনের কার্যালয় থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, মহা সমাবেশে যোগ দিতে ঢাকার ও ঢাকা আগত বিএনপির নেতা কর্মীদের অনেকের উপর নির্যাতন অত্যাচার চলছে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতারা। গ্রেপ্তারও করা হচ্ছে। বিএনপির কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে-যাত্রবাড়ি থেকে কাঁচপুর রোডে পুলিশ এবং সরকারিদলের নেতা-কর্মীরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে সাধারণ মানুষকে পিটাচ্ছে। পুলিশ পথচারিদের গ্রেপ্তার করছে। গাজীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় পুলিশের উপস্থিতিতে পুলিশের উপস্থিতিতে সরাকরি দলের কর্মীরা লগি-বৈঠা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছে। সামবেশে আগত কর্মীদের উপর হামলা করছে তারা । কোনাবড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকতের বাড়িতে সরকার দলীয় কর্মীরা হামলাও ভাংচুর চালিয়েছে। এ সময় পুলিশের ইনসপেক্টর আজাদ ও এসআই হারুন উপস্থিত ছিল বলে বিএনপি সূত্র জানায়। কাঞ্চন ব্রীজের টোল প্লাজায় সকাল সাতটা ঢাকাগামী কোন গাড়ি প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। আওয়ামী লীগ নেতারা দেশীয় অস্ত্র হাতে মহড়া দিচ্ছেন ।রাস্তার উভয়পাশে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। পোস্তগলা ব্রীজে পুলিশ ঢাকাগামী সাধারণ লোকজনকে পিটাচ্ছে। পুলিশ ও সরকারি দলের কর্মীরা যৌথভাবে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছে।  সায়দাবাদে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা রিক্সা পর্যন্ত চলাচল করতে দিচ্ছে না । পুলিশ পথচারীদের পিটাচ্ছে। ডেমরা তারাবু ব্রীজের উভয়পাশে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। এ পথে কোন গাড়ি চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না । গাবতলী এলাকায় ও কোন ধরনের যানবাহন চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না । সেখানে যে জায়গায় বিএনপি কর্মীরা অবস্থান নিচ্ছেন পুলিশ সে জায়গার সব  দোকানপাট বন্ধ করে দিচ্ছে। গাবতলীর সোহাগ সিএনজি পাম্পে বিএনপি নেত-কর্মীদের একটি গাড়ি পুলিশ আটকে দিয়ে সবাই আটক করেেেছ। মাজাররোডে আওয়ামী লীগ নেতারা নিজেরাই চেকপোস্ট বসিয়েছে। তারা পথচারীদের ধরে ধরে তল্লাশি করছে।


হাজারীবাগে হকিস্টিক হাতে পুলিশের মহড়া : রাজধানীর হাজারীবাগে ইউনিফর্ম পরিহিত পুলিশের একটি দল ১৫-২০টি  মোটর সাইকেল যোগে হকিস্টিক হাতে রাস্তায় মহড়া দিচ্ছে। বিএনপি নেতা-কর্মীদের অভিযোগ এসব পুলিশ সদস্যদের এর আগে এ এলাকায় কখনো দেখা যায়নি। সরকারদলী কর্মীরা পুলিশের ইউনিফর্ম পড়ে সাধারণ মানুষকে পেটাচ্ছে বলে বিএনপি ধারণা করছে।


মৎস্যভবন এলাকায় ছাত্রদল-ছাত্রলীগ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া : রাজধানীর মৎস্যভবন এলাকায় ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। ১০ মিনিট ব্যাপী ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে ছাত্রলীগ পুলিশের সহায়তায় ছাত্রদলকে সেগুন বাগিচার দিকে তাড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়। সকালে শাহবাগ এলাকায় অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ কর্মীরা। মৎস্যভবন এলাকায় অবস্থান নেয় ছাত্রদল কর্মীরা। পৌনে ১১টার দিকে পুলিশ ও র‌্যাবের সহায়তায় ছাত্রলীগ কর্মীরা ছাত্রদল কর্মীদের উপর হামলা চালায়। এ দিকে সুপ্রিমকোর্ট থেকে বিএনপি-জামায়তপন্থী আইনজীবীদের একটি মিছিল মহাসমাবেশের দিকে যায়।


ছাত্রলীগের ধাওয়া : রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড এলাকায় ছাত্রদল ও যুবদল কর্মীরা সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া করেছে ছাত্রলীগ কর্মীরা। পৌনে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে পুলিশ মৃদু লাঠিচার্জ করে। একপর্যায়ে ঘটনাস্থলে দু’টো পটকা ফুটার শব্দ পাওয়া যায়। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। ২০মিনিট পর পরিস্থিতি স্বাবাবিক হয়ে আসে।
গাজীপুর : গাজীপুরের বিভিন্ন এলকায় গতকাল রাতে অভিযান চালিয়ে ১৯জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ সকাল থেকে শহরের কোথাও কোন যান চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে না । মহাসড়কে বিপুল পরিমাণ পুলিশ ও আইনশৃংখলা বাহিনী অবস্থান নিয়েছেন।শহরের অধিকাংশ দোকানপাট খোলেনি।


জামায়াতের অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মী গ্রেপ্তার :
মহাসমাবেশে আসার পথে জামায়াতের ৭০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ । নগরীর রমনা, যাত্রাবাড়ী, ধানমন্ডী, পল্টন, দক্ষিন খান, বিমানবন্দর, কলাবাগান, বাড্ডা, সুত্রাপুর ও হাজারীবাগ এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। এদিকে গণগ্রেফতার বন্ধ করে গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি দিয়ে সমাবেশে যোগদানের সুযোগ দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে ঢাকা মহানগর জামায়াত ।
লঞ্চ ঘাটে ভিড়তে দিল না নৌযান শ্রমিক লীগ : দক্ষিণাঞ্চলের লঞ্চগুলো সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে ভিড়তে দেয়নি। ভোর ছয়টা থেকে সকাল আটটার মধ্যে অল্প কিছু যাত্রী নিয়ে দুটি লঞ্চ ঘাটে ভিড়তে গেলে নৌযান শ্রমিক লীগের লাল পোশাকধারী শ্রমিকেরা লাঠি হাতে বাধা দেয়। তাঁরা খেয়া নৌকার মাঝিদেরও মারধর করেন।  আজও দেশের দক্ষিণাঞ্চলের লঞ্চগুলো সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে ভেড়াতে গেলে নৌযান শ্রমিক লীগের লাল পোশাকধারী শ্রমিকেরা পুলিশের উপস্থিতিতেই লাঠিসোঁটা নিয়ে বাধা দেন। লঞ্চ কর্তৃপক্ষ অন্য জায়গাতে যযাত্রীদের নামিয়ে দেন। বুড়িগঙ্গা নদীর পোস্তগোলা ঘাট থেকে কেরানীগঞ্জের খোলা ১৫ থেকে ২০টি ঘাটে খেয়াসহ নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে।


ব্যানার কেড়ে নিয়েছে পুলিশ : পুলিশ বিএনপির মিছিল থেকে ব্যানার কেড়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বে দুপুর সোয়া ১২ টায় একটি মিছিল পুরানা পল্টন থেকে সমাবেশে  আসার সময় শান্তিগনর এলাকায় কর্তব্যরত পুলিশ বিএনপির নেতা কর্মীদের হাত থেকে ব্যানার কেড়ে নেয়। এ সময় নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের বাকবিতণ্ডা হয়। পরে বিএনপি নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। এর আগে বরিশাল জেলা যুবদল, ভোলা জেলার বিএনপির ব্যানার কেড়ে নেয় পুলিশ। এদিকে, সারাদেশ থেকে একের পর মিছিল আসছে।  সেগুন বাগিচার অলি-গলিতে বিএনপির নেতাকর্মীদের ঢল নেমেছে। পুরানা পল্টন থেকে বিএনপির অফিস, নয়াপল্টন থেকে কাকরাইল পর্যন্ত  সবধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। পুরো সেগুন বাগিচায় নেমেছে  জনতার ঢল। শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে পুরো এলাকা।


মাঠে বিজিবি : বিএনপির মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্যের সমাগম ঘটানো হয়েছে। র‌্যাব ও অন্যান্য সংস্থার পাশাপাশি দুই ব্যাটালিয়ন বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ (বিজিবি) মাঠে নামানো  হয়েছে। বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মহসিন হোসেন বার্তা২৪ ডটনেটকে জানান, রোববার রাত থেকে দুই ব্যাটালিয়ন বিজিবি সদস্য রাজধানীতে টহল দিচ্ছে ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থান নিয়েছে। সরকারের নির্দেশে এদের মাঠে নামানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। এদিকে, সমাবেশকে কেন্দ্র করে ২৫ হাজারেরও বেশি পুলিশ সদস্য মাঠে রয়েছে বলে জানা গেছে। এ ছাড়াও র‌্যাব ও অন্যান্য সংস্থার সদস্যরাও সক্রিয় রয়েছে। ঢাকার রাস্তায় গাড়ি চলাচল খুবই কম। মোড়ে মোড়ে পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।


এক নেতার মৃত্যু : মহাসমাবেশে এসে মারা গেছেন চট্টগ্রাম বিএনপির নেতা মো. শাহজাহান। চট্টগ্রাম থেকে এসে দলের নেতাকর্মী নিয়ে তিনি অবস্থান করেন মতিঝিলে। দুপুরের দিকে মিছিল সহকারে সমাবেশ স্থলের দিকে আসার পথে হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে নেয়া হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার লাশ রাখা হয়েছে হাসপাতাল মর্গে। মো. শাহজাহান চট্টগ্রামের ধলমোড়ি থানার বিএনপির দায়িত্বশীল বলে জানা গেছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে