Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.5/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-১১-২০১২

কারণ কি আরব বসন্ত!

কারণ কি আরব বসন্ত!
বাংলাদেশের রাজনীতিতে সংঘাতের ইতিহাস দীর্ঘ। হরতাল, অবরোধ, ঘেরাও আর সমাবেশ নতুন কিছু নয় এ দেশে। বঙ্গভবনে অক্সিজেন বন্ধ করে দেয়ার রাজনীতিরও সাক্ষী মানুষ। তবে একটি মহাসমাবেশকে ঘিরে এত উত্তেজনা আর আতঙ্ক স্বাধীন বাংলাদেশ আর কখনওই দেখেনি কেউ। সরকারের তরফে পদে পদে দেয়া হচ্ছে বাধা। হোটেলে বোর্ডার রাখা মানা। এমনকি বাসাবাড়িতে অতিথি রাখতেও কড়াকড়ি। সবখানে চলছে গণগ্রেপ্তার। ১২ই মার্চ বিএনপি ও সমমনাদের মহাসমাবেশ ঘিরে কেন এ আতঙ্ক, কেন এ উত্তেজনা। এ আতঙ্কের মূলে কি আরব বসন্ত? গত দু’বছরে আরব বিশ্বকে আমূল বদলে দেয়া আন্দোলনের কথা মাথায় রেখেই কি নীতিনির্ধারকদের এমন সতর্কতা। ২০১০ সালের শুরু থেকে আরব বিশ্বে গণবিপ্লবের ঝড়কে পশ্চিমা মিডিয়া আরব বসন্ত হিসেবে আখ্যায়িত করে। গণবিক্ষোভের শুরু মিশরে; এরপর লিবিয়া, সিরিয়া, ইয়েমেনসহ বিভিন্ন দেশে তা ছড়িয়ে পড়ে। প্রথম মিশরে প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারকের পতন হয়। পরে লিবিয়ায় মুয়াম্মার আল-গাদ্দাফি জামানার অবসান হয়। তিউনিসিয়া, বাহরাইনেও আরব বসন্তের ঢেউ লাগে। আরব বিশ্বের প্রায় সব সরকারই বিপ্লব ঠেকাতে নেয় নানা পদক্ষেপ। এসব গণবিক্ষোভ হয়েছে রাজধানী শহরকে কেন্দ্র করে। কায়রোর তাহরির স্কোয়ার, তিউনিসিয়ার তিউনিসে হাবিব বরগুইবা এভিনিউ, ইয়েমেনের সানা, বাহরাইনের মানামার পার্ল রুন্ডাবুটকে ঘিরে হয়েছে এ বিদ্রোহ। এসব স্থানে শুরুতে জড়ো হন আন্দোলনরতরা। এরপর সেখানে অবস্থান করে সরকার পতনের জন্য চালিয়ে যান আন্দোলন। আরব বসন্তের মতো ঢাকাতেও সরকারবিরোধী আন্দোলনকারীরা অবস্থান নিয়ে সরকার পতনের আন্দোলন শুরু করতে পারেন এমন শঙ্কা আছে নীতিনির্ধারণী মহলে। এ কারণে চারদিকে এমন ধরপাকড়, আতঙ্ক আর উত্তেজনা। এর আগে বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা দখলের পরিকল্পনা পুলিশ ভেস্তে দিয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছে।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে