Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.5/5 (30 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-০৯-২০১২

সরকার হার্ড লাইনে গেলে কর্মসূচি একদিন পিছিয়ে দিতে পারে বিএনপি

সরকার হার্ড লাইনে গেলে কর্মসূচি একদিন পিছিয়ে দিতে পারে বিএনপি
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দলের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে ম্যারাথন বৈঠক করেছেন। বৈঠকে নতুন জোটের ঘোষণাপত্র অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
 খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে দশটায় শুরু হয়ে এ বৈঠক শেষ হয় রাত সাড়ে বারোটায়।
স্থায়ী কমিটির এ বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে সে বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের কিছু জানায়নি বিএনপি।
জানা গেছে, ১২ মার্চের মহাসমাবেশে সরকার বাধা দিলে বা ১৪৪ ধারা জারি করলে বিএনপি কী করবে সে বিষয় নিয়েই বেশি সময় আলোচনা হয়েছে এই সভায়।
সিদ্ধান্ত কী নেয়া হয়েছে তা কেউ বলতে রাজি হননি। তবে ধারনা করা হচ্ছে বিষয়টি নিয়ে বিএনপি এখনই হার্ড লাইনে যেতে চাচ্ছে না। সরকার হার্ড লাইনে গেলে বিএনপি তাদের কর্মসূচি পিছিয়ে দিয়ে জনমত তাদের পক্ষে নিতেই বেশি আগ্রহী।
বিএনপি মনে করে সরকার বিরোধী দলের কর্মসূচি পালন করতে না দিলে দেশের মানুষ সরকারের বিরুদ্ধেই কথা বলবে। সেজন্য ১২ মার্চ মহাসমাবেশ করতে না দিলে একদিন পিছিয়ে ১৩ মার্চ করার ঘোষণা দিতে পারে বিএনপি।
তবে বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। ১১ মার্চ চারদলীয় ও সমমনা ১৬টি দলের সভাপতিরা বৈঠকে বসবেন। ওই বৈঠকে নতুন জোটের ঘোষণাপত্রে সাক্ষর হবে।
এদিকে অন্য এক সুত্র জানায়, এখন পর্যন্ত বিএনপি তাদের সিদ্ধান্তে অটল রয়েছে। যেকোনো মূল্যে মহাসমাবেশ করতে চায় তারা।
সুত্র জানায়, মহাসমাবেশের আগের দিন নাশকতার অজুহাতে পুলিশ যদি ১৪৪ ধারা জারি করে তাহলে প্রথমে তা প্রত্যাহারের আবেদন করা হতে পারে। তারপরও যদি প্রত্যাহার না করে তাহলে ১৪৪ ধারা ভেঙে সমাবেশ করারও একটা চিন্তা রয়েছে।
তবে এসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন দলের চেয়ারপারসন ও জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। সেজন্য এ বিষয়ে কেউ মুখ খুলতে রাজি নয়। ১১ মার্চ রাতের বৈঠকের আগে এ বিষয়ে চারদলীয় জোট ও সমমনাদের পক্ষ থেকে কোনো সিদ্ধান্তও পাওয়া যাবে না বলে মনে করা হচ্ছে। কুটনৈতিকদের সঙ্গে বৈঠক
বিস্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদ। বৈঠকে কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি।

 

সুত্র জানায়, গত কয়েক মাসে বিএনপি’র কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা বেশ কয়েকবার কুটনৈতিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বৃহস্পতিবারের বৈঠকও ছিল তারই ধারাবাহিকতা।

 



জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে