Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 1.3/5 (9 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-০১-২০১৫

নারীদের যৌন দাস হতে বাধ্য করছে আইএস: অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

নারীদের যৌন দাস হতে বাধ্য করছে আইএস: অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

লন্ডন, ০১ জানুয়ারি- এবার অভিযোগ উঠেছে যে ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর জঙ্গিরা ইয়াজিদি নারী ও শিশুদের ধরে নিয়ে তাদের জোর করে যৌন দাসত্ব গ্রহণে বাধ্য করছে। এর হাত থেকে বাঁচতে অনেকে আত্মহত্ম্যা করছে বলে জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

৪০ জনেরও বেশি ইয়াজিদি নারী, যারা আইএস-এর কাছ থেকে পালিয়ে আসতে সমর্থ হয়েছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি৷ সংগঠনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ডোনাটেলা রোভেরা জানান, বন্দিদের মধ্যে যারা যৌন দাস হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে তাদের অনেকেরই বয়স ১৪, ১৫ কিংবা তার চেয়েও ছোট।

আইএস যোদ্ধারাই মূলত এই কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বলে জানালেও আইএস সমর্থকরাও এর সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে মনে করছে অ্যামনেস্টি।

ধর্ষিত হওয়ার ভয়ে আটক কেউ কেউ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে বলেও জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থাটি। যেমন জিলান নামের ১৯ বছরের এক তরুণী ধর্ষিত হতে পারে আশংকা করে আত্মহত্যা করেছে বলে অ্যামনেস্টিকে জানিয়েছে ঐ মেয়ের ভাই। জিলানের সঙ্গে আটক এক তরুণী, যিনি কোনোরকমে পালিয়ে বাঁচতে পেরেছেন, তিনিও জিলানের আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ‘সে (জিলান) তার হাত কেটে ফেলে। তারপর ঝুলে পড়ে। সে অনেক সুন্দরী ছিল। আমার মনে হয় সে জানতে পেরেছিল যে তাকে একটি মানুষ নিয়ে যাবে এবং সে জন্য সে নিজেকে শেষ করে দিয়েছে।'

১৬ বছরের মেয়ে রান্দা অ্যামনেস্টিকে তার ধর্ষিত হওয়ার খবর বলেছে। প্রথমে তাকে তার পরিবার সহ অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর তার চেয়ে দ্বিগুণ বয়সের এক পুরুষ তাকে ধর্ষণ করে বলে জানিয়েছে রান্দা। ‘তারা আমার ও আমার পরিবারের সঙ্গে যা করেছে তা খুবই বেদনাদায়ক।’

আইএস-এর হাতে যারা বন্দি আছে, এমনকি যারা পালিয়ে আসতে পেরেছে তাদের মনের উপর একটি দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব পড়বে। রোভেরা বলেন, ‘‘এই নারীরা যে ধরনের ভয়ংকর যৌন সহিংসতার মুখোমুখি হয়েছে তার যে শারীরিক ও মনস্তাত্ত্বিক প্রভাব সেটা মারাত্মক বিপর্যয়কর।

‘তাদের অনেককেই এমনভাবে নির্যাতন করা হয়েছে যেন তারা তাদের ব্যক্তিগত অস্থাবর সম্পত্তি,’ বলেন অ্যামনেস্টি কর্মকর্তা রোভেরা।

শরিয়া অনুযায়ী করা হয়েছে!

জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস-এর প্রচারণা বিষয়ক ম্যাগাজিন ‘দাবিক'-এ প্রকাশিত এক প্রবন্ধে বলা হয়েছে, ‘‘ইয়াজিদি নারী ও শিশুদের আটকের পর শরিয়া মেনে সিনজার অভিযানে যে আইএস যোদ্ধারা অংশ নিয়েছে, তাদের মাঝে ভাগ-বাটোয়ারা করে দেয়া হয়েছে।

তথ্যসূত্র: ডয়েচভেল

মধ্যপ্রাচ্য

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে