Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৩ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (8 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২৯-২০১২

বাংলাদেশ সেন্টারের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

রাকিব রাশেদীন


বাংলাদেশ সেন্টারের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
বাংলাদেশ সেন্টার এবং কমিউনিট সার্ভিসেস বিসিসিএস ২০০৭ সাল থেকে তাদের যাত্রা শুরু করে। যাত্রালগ্ন থেকে বরাবরের মতো প্রতি বছর তারা এ বিশেষ দিনটি পালন করে আসছে। একই ধারাবাহিকতায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গত ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি ২ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠান অমর একুশে আয়োজন করা হয়।
প্রথমদিন অনুষ্ঠিত হয়েছে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন এবং হাতের লেখা প্রতিযোগিতা। শতাধিক শিশু কিশোরদের সমাবেশ ঘটে সেন্টারে। উদ্যোক্তারা প্রতিযোগীদের ৩ ভাগে বিভক্ত করেন। িচত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় 'ক' গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে যথাক্রমে আদৃতা দেওয়ান, তালহা তাহসিন ও অরপিতা পাল। 'খ' গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে যথাক্রমে সুবাইয়া মারজান চৌধুরী, সুমাইয়া মারজান চৌধুরী ও আবিদা রহমান। গ গ্রুপে প্রথম হয়েছে তাহসিন হানিফ, দ্বীতিয় হয়েছে অনন্যা রাফা ও তৃতীয় হয়েছে নাফিলা আলী।
হােতর লেখা প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে যথাক্রমে অরপিতা পাল, অর্চিতা পাল এবং মাসরুর অনন্যা। খ গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে শ্রেয়াশ্রী মণ্ডল, তাসনিমা হোসেন আয়েশা, সুরাইয়া এন চৌধুরী। 'গ' গ্রুপে প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় হয়েছে তাহসিন হানিফ, অনন্যা রাফা এবং ফািরহা আর খান।
বিচারক মণ্ডলীতে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. শামিমা নাসরিন শাহেদ, দৈনিক প্রথম আলোর খসরু চৌধুরী, সাপ্তাহিক বেঙ্গলি টাইমস সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু, ফাইন্যান্সিয়াল এডভাইজর প্রণবেশ পোদ্দার, বিটিভির সাবেক সংবাদ পাঠকা দিলরুবা আলম। শিশু কিশোরদের মাঝে পুরষ্কার প্রদান করেন ব্যারিষ্টার চয়নিকা দত্ত। এ ধরনের প্রতিযোগিতা আরও বেশি বেশি করার আহবান জানান অংশগ্রহণকারী শিশুদের অভিভাবকগণ  ।

অনুষ্ঠানমালার দ্বিতীয় দিন ২০শে ফেব্রুয়ারি বিকেল সােড় চারটায় এই প্রথম বােরর মতো বিসিসিএস এর কার্যালয় থেেক ভিক্টোরিয়া পার্ক সিগন্যাল পর্যন্ত একটি শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। মেরি রাশেদিনের নেতৃত্বে এ েশাভাযাত্রা ড্যানফোর্থের বাঙালি অধু্যষিত এলাকা প্রদক্ষিণ করে পথচারীদের দৃষ্টি আকর্ষন করে। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন সাবেক মন্ত্রী মারিয়া মিন্না, অন্য থিয়েটার, আলম পিয়া স্কুল, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, সুচারু আর্ট সেন্টার, মহিলা আওয়ামী লীগ কানাডা সহ বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশী। শোভাযাত্রার প্রধান বিষয় ছিল অন্টারিও প্রদেশের স্কুল পর্যায়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের জন্য আবেদন। আেবদনটি লিখেন মহাদেব চক্রবর্তী।
শোভাযাত্রা শেষে কবিতা, গান, কথা এবং শিশুদের অংশগহনে বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয় । স্কুল পর্যায়ে অংশগ্রহন করে আলম পিয়া স্কুল, ভুপালি সংগীত বিদ্যায়াতন, স্কুল অফ হিন্দুইজম এবং কালচারাল স্টাডিজ, সুমন মালিক স্কুল । এ ছাড়াও টরন্টোতে বসবাসরত গুণী সব শিল্পিরা এতে অংশগ্রহন করেন। ২১শে ফেব্রুয়ারী  এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিশসবে মর্যাদা পেয়েসছ এবং তার সঠিক অনুভুতি প্রকাশ পেয়েছে ইরানি মেয়ে আফরোজার অনবদ্যকে পরিবেশনার মাধ্যমে ।

অনুষ্ঠান শেষে আয়োজক এবং দর্শকরা মিলে ড্যানফোর্থের ঘরোয়া রেষ্টুেরন্টের আঙিনায় স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে রাত ১২ টা ১ মিনিটে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
দুই দিন ব্যাপী এ অনুষ্ঠান মালার পেছনে যাদের অবদান রয়েছে তারা হলেন- হাসিনা কাদের, মাহবুব রেজা, প্রনবেশ পোদ্দার, সিরাজুল ইসলাম কাজী, মাহমুদ চৌধুরি, ম্যাক আজাদ, শিবু চৌধুরি, মকবুল হসাইন এবং মেরি রাশেদিন।
(আরও ছবি দেখুন দেশে বিদেশের ছবিঘরে অথবা ফটো গ্যালারিতে)

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে