Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৩ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.2/5 (13 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২৮-২০১২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার একুশে উদযাপন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার একুশে উদযাপন
কানাডায় বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েটদের সংগঠন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে মহান ভাষা শহীদদের স্মরণে বিশেষ আয়োজন ‘হৃদয়ে একুশ’ অনুষ্ঠিত হয়  গত  ২৬ ফেব্রুয়ারি রবিবার সন্ধ্যা ৬ টায় টরন্টোর ৯ ডজ রোডের রয়েল কানাডিয়ান লিজিয়ন হলে। এবারের একুশের আয়োজনের শ্লোগান ছিলো- একুশ মানে মাথা নত না করা...।  শুরুতেই ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ এবং গত দুই বছরে পৃথিবী ছেড়ে বিদায় নেয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েট ও শিক্ষকদের  স্মরণ ও সম্মান জানিয়ে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করা হয় এবং এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক, ম্যাকমাস্টার ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. আহমেদ শফিকুল হক । আর আলোচনায় অংশ  নেন  টরন্টোর ভাষাসৌধ প্রতিষ্ঠার উদ্যোক্তা মোহাম্মদ আলী বোখারী, লেখিকা তাসরীনা শিখা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ড. জহির সাদিক, কমিউনিটির জনপ্রিয় মুখ ব্যারিষ্টার কামরুল হাফিজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. শামীমা নাসরিন শাহেদ ও সমাজ উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ ড. মাহবুব হাসান । আলোচনাপর্বে সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল হালিম মিয়া। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু। আলোচনা সভায় বক্তারা একুশের চেতনায় প্রবাসের নতুন প্রজন্মকে গড়ে তোলার জন্যে প্রবাসীদের প্রতি উদ্দাত্ত আহবান জানান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা কোর্স পুনরায় চালুর উদ্যোগের অগ্রগতি সর্ম্পকে দর্শকদের অবহিত করা হয়। আর এই আয়োজনকে নিজ দায়িত্বে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্যে বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদকে অভিনন্দন জানানো হয় এবং তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়। একই সাথে ভাষাসৌধ নির্মাণের প্রয়াসকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্যে সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী বোখারীকেও অভিনন্দন জানানো হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম আগামীতে এই ধরণের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেয়া এবং কমিউনিটির কল্যাণে যে কোনও মহতি উদ্যোগে সবসময় পাশে থাকবে বলেও বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আলোচনা শেষে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন সুমী রহমান। আর অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনায় ছিলেন আনজুমান রোজী। সহ-ব্যবস্থাপনায় ছিলেন তাসমিনা আইরিন ঝিনুক। জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী ইলোরা আমিনের নেতৃত্বে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি...’ সমবেত সঙ্গীত দিয়ে শুরু হয় এই পর্ব। অরুণা হায়দারের পরিচালনায় সুকন্যা নৃত্যাঙ্গনের শিল্পীদের অসাধারণ পরিবেশনা ছিলো মনকাড়া। অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন শেখর-ই-গোমেজ, তাসরিনা শিখা, মৌ মধুবন্তী, মেহরাব রহমান, আনজুমান রোজী, রোজানা নাসরীন, রোজী তালুকদার, সৈয়দ আজম মোহাম্মদ। সঙ্গীত পরিবেশন করেন জীবিনা সঞ্চিতা হক, ইলোরা আমিন, চমন আরা বেগম, পিনু সাত্তার, সুমী বর্মন, তাসমিনা আইরিন ঝিনুক প্রমুখ। এরই পাশাপাশি ছিলো চা-কফি-নাস্তার আপ্যায়ন।
জনাকীর্ণ দর্শক আর দারুণ রকমের গোছানো আয়োজন যেনো সবার মনে জাগিয়ে তুলেছিলো অন্যরকম এক অনুভূতি। আলোচনা সভার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো আয়োজনটি দর্শকরা উপভোগ করেন।
অন্যদিকে টরন্টোর বাঙালি অধ্যুষিত ড্যানফোর্থ প্রিয়প্রাঙ্গন চত্বরে অস্থায়ী দৃষ্টি শহীদ মিনারে প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাত ১২.১০ মিনিটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম পুস্পস্তবক অর্পণ করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরামের পক্ষে সংগঠনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ব্যারিষ্টার কামরুল হাফিজ, সভাপতি আব্দুল হালিম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু, নির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে আব্দুল কাদের মিলু, সাদী আহমেদ, আহমেদ হোসেন, সুমী রহমান, মেহরাব রহমান, ইশতিয়াক আহমেদ, আন্জুমান রোজী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে