Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৩ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.9/5 (38 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৯-২০১৪

আশরাফুলের শাস্তি কমল

আশরাফুলের শাস্তি কমল

ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর- দুর্নীতির দায়ে ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলের আট বছরের নিষেধাজ্ঞা কমিয়ে পাঁচ বছর করেছে বিসিবির ডিসিপ্লিনারি প্যানেল। এতে আছে দুই বছরের ক্ষমাযোগ্য শাস্তি।

সোমবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পাঠানো এক ই-মেইলে বলা হয়, ২০১৬ সালের ১৩ অগাস্ট বা তারপর ক্রিকেটে ফিরতে পারেন আশরাফুল।

গত বছরের ১৩ অগাস্ট থেকে কার্যকর রয়েছে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা। তাই ২০১৬ পর্যন্ত ক্রিকেটের বাইরে থাকতেই হচ্ছে সাবেক এই অধিনায়ককে। এর মধ্যে বিসিবি বা আইসিসির কোনো শিক্ষা বা পুনর্বাসন কর্মসূচিতে অংশ নিতে হবে সাবেক এই অধিনায়ককে। সেক্ষেত্রে তিন বছর পর বাতিল হতে পারে বাকি দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা।

জরিমানা করা ১০ লাখ টাকা দিতেই হচ্ছে আশরাফুলকে।

এর আগে ক্রিকেটে ম্যাচ পাতানোর অপরাধে আশরাফুলকে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল দুর্নীতি বিরোধী ট্রাইব্যুনাল।

পরে ডিসিপ্লিনারি প্যানেল প্রধান অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি আব্দুর রশিদের কাছে শাস্তি কমাতে আপিল করেন আশরাফুল। তারই প্রেক্ষিতে শাস্তি কমল অন্যতম সেরা সাবেক এই ব্যাটসম্যানের।

দুর্নীতি বিরোধী ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছিল বিসিবি ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। তাদের আপিএলে দোষী প্রমাণিত হলেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরী। তাকে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ঘোষিত সংক্ষিপ্ত রায়ে নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছিলেন সেলিম চৌধুরী।

ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের ব্যবস্থপনা পরিচালক শিহাব চৌধুরীর ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। তবে তার ২০ লাখ টাকার জরিমানা বাতিল করা হয়েছে।

১৮ মাসের জন্য নিষিদ্ধ শ্রীলঙ্কার কৌশল লুকুয়ারাচ্চির শাস্তি কমেছে ৬ মাস। গত বছরের ১৩ অগাস্ট থেকে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকায় তার শাস্তির মেয়াদ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে।

এখনো আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে যাওয়ার সুযোগ আছে আশরাফুল, শিহাব চৌধুরী, বিসিবি ও আইসিসি। রায় পাওয়ার ২১ দিনের মধ্যে সেখানে আপিল করতে হবে তাদের।

গত ১৯ জানুয়ারি থেকে চূড়ান্ত শুনানি শুরু হয়। ২৬ ফেব্রুয়ারি তার সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করে ট্রাইব্যুনাল। সংক্ষিপ্ত রায়ের পর এক যৌথ বিবৃতিতে হতাশা ও বিস্ময় প্রকাশ করেছিল আইসিসি ও বিসিবি। পরে আট জুন জানানো হয় বিস্তারিত রায়।

২৬ ফেব্রুয়ারি ঘোষিত সংক্ষিপ্ত রায়ে নির্দোষ প্রমাণিত হন জাতীয় দলের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার মোহাম্মদ রফিক, বাঁহাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেন ও পেসার মাহবুবুল আলম। ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গৌরব রাওয়াদ এবং ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ড্যারেন স্টিভেন্সও নির্দোষ প্রমাণিত হন।

গত ১৪ অক্টোবর আইন কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি আব্দুর রশিদকে ডিসিপ্লিনারি প্যানেলের চেয়ারম্যান নিয়োগ করে বিসিবি।

গত বছরের ১৩ অগাস্ট রাজধানীর একটি হোটেলে আইসিসি ও বিসিবির যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বিপিএলে ম্যাচ পাতানোর জন্য জড়িত থাকায় ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করার কথা জানান আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে